+

 

কলকাতা, রবিবার ২৬ মার্চ ২০১৭, ১২ চৈত্র ১৪২৩

তিস্তা নিয়ে মমতার সঙ্গে কথা  বলে সিদ্ধান্ত, আশ্বাস কেন্দ্রের >> কয়েক মিনিটের ঘূর্ণিঝড়ে লন্ডভন্ড মালদহে মৃত দুই >> রাজ্যে রাজ্যে যোগীকেই প্রচারে চায় বিজেপি, সমর্থকদের স্লোগান, ২০২৪ সালের প্রধানমন্ত্রী >> এবার গ্রাহকদের আধার ভেরিফিকেশন  শুরু করবে টেলিকম সংস্থাগুলি >> জিডিপি বাড়লেও চাকরির সুরক্ষা কমছে কর্মীদের >> সৌন্দর্য হারিয়ে সূর্য এখন কলঙ্কহীন, ছবি পেল নাসা >>

রবিবার | রেসিপি | আমরা মেয়েরা | দিনপঞ্জিকা | শেয়ার | রঙ্গভূমি | সিনেমা | নানারকম | টিভি | পাত্র-পাত্রী | জমি-বাড়ি | ম্যাগাজিন

 


শনিবার অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে বোল্ড করার পর
উমেশ যাদবের কোলে কুলদীপ যাদব। ছবি: এএফপি

তিস্তা নিয়ে মমতার সঙ্গে কথা
বলে সিদ্ধান্ত, আশ্বাস কেন্দ্রের
সমৃদ্ধ দত্ত  নয়াদিল্লি, ২৫ মার্চ: তিস্তা জলচুক্তি নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগে মমতা সহ সংশ্লিষ্ট সব মহলের সঙ্গে কথা বলা হবে বলে কেন্দ্রীয় সরকার আশ্বাস দিয়েছে। গতকাল কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র গোপাল বাগলে জানিয়েছিলেন, রাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা না বলে কোনও সিদ্ধান্তই নেওয়া হবে না। কারণ ভারত সরকার যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর রীতি মেনে কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্কের প্রটোকল অনুসরণ করেই এগতে চায়। বিদেশমন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী মাসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরের পর যখন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশে যাবেন তার আগেই রাজ্য সরকারের সঙ্গে তিস্তা নিয়ে দীর্ঘ ও বিস্তারিত কথা বলবে কেন্দ্র। শুধু কথাই বলবে না, জানা যাচ্ছে গোটা চুক্তির খসড়া প্ল্যানটির প্রতিপাদ্যও রাজ্যকে পাঠানো হবে।

কয়েক মিনিটের ঘূর্ণিঝড়ে লন্ডভন্ড মালদহে মৃত দুই

বাংলা নিউজ এজেন্সি: শনিবার ভোরে মাত্র ১০ মিনিটের ঘূর্ণিঝড়ে লন্ডভন্ড হল মালদহের বিস্তীর্ণ এলাকা। ঘরের দেওয়াল চাপা পড়ে এক শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। জখম হয়েছেন অন্তত ৩০ জন। তাঁদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঝড়ের দাপটে বহু কাঁচা বাড়ি, চাষের জমি ও আমবাগান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গৃহহীন হয়ে পড়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। বহু গ্রামে গাছের ডাল ভেঙে পড়ার পাশাপাশি বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে গিয়েছে। এদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত বহু গ্রামে বিদ্যুৎ আসেনি। এদিন ভোরে আচমকা জেলার কিছু এলাকায় ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডব শুরু হয়। সেই সঙ্গে চলে বৃষ্টি। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ঝড়ের সময় চাঁচল-২ ব্লকে ঘরের দেওয়াল চাপা পড়ে সাত বছরের শিশু মনিরুল ইসলামের মৃত্যু হয়েছে। ঝড় শুরু হতেই পরিবারের অন্য সদস্যরা হুড়মুড়িয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে গেলেও সে ঘরে থেকে যায়।

রাজ্যে রাজ্যে যোগীকেই প্রচারে চায় বিজেপি, সমর্থকদের স্লোগান, ২০২৪ সালের প্রধানমন্ত্রী
নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ২৫ মার্চ: গত রবিবার তিনি শপথ নিয়েছিলেন। তার সাতদিনের মধ্যেই গোরক্ষপুর আজ বুঝিয়ে দিল, এমপি থেকে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার মধ্যেই তাঁদের প্রিয় যোগী মহারাজের রাজনৈতিক দৌড় সমাপ্ত হবেনা। তাই মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর এই প্রথম যোগী আদিত্যনাথ নিজের শহরে পা দিয়েই স্লোগান শুনতে পেলেন ‘আজকের মুখ্যমন্ত্রী, ২০২৪ সালের প্রধানমন্ত্রী যোগী...যোগী..!’ হাজার হাজার বিজেপি সমর্থক আর যোগী ভক্তদের হাতে প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল ‘গোরক্ষপুর সে লখনউ, লখনউ সে দিল্লি...।’ অর্থাৎ যোগী আদিত্যনাথকেই নতুন নায়কের স্বীকৃতি দিতে শুরু করে দিয়েছে সাধারণ বিজেপি নেতাকর্মীরা। সাম্প্রতিককালের মধ্যে এহেন উন্মাদনা কোনও মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়েই হয়নি।

এবার গ্রাহকদের আধার ভেরিফিকেশন
শুরু করবে টেলিকম সংস্থাগুলি
নয়াদিল্লি, ২৫ মার্চ: খুব তাড়াতাড়ি গ্রাহকদের আধার ভেরিফিকেশন শুরু করবে টেলিকম অপারেটররা। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের প্রেক্ষিতেই এই কাজ শুরু করবে তারা। গত ৬ ফেব্রুয়ারি শীর্ষ আদালত নির্দেশ দিয়েছিল, ঠিক একবছর অর্থাৎ ২০১৮ সালের ৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এই কাজ শেষ করতে হবে। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের এক মাসের মধ্যেই টেলিকমমন্ত্রক এক বিজ্ঞপ্তিতে কোম্পানিগুলিকে জানিয়েছে, এসএমএস ও বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে গ্রাহকদের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের বিষয়টি অবহিত করাতে হবে। পাশাপাশি ওয়েবসাইটে তাঁদের কাজের বিস্তারিত বিবরণ দিতে হবে। বছর খানেক আগে একইভাবে গ্রাহকদের কাছ থেকে পরিচিতিপত্র ও ঠিকানার প্রমাণাদি চেয়েছিল টেলিকম কোম্পানিগুলি।

জিডিপি বাড়লেও চাকরির সুরক্ষা কমছে কর্মীদের

নয়াদিল্লি, ২৫ মার্চ: দেশে জিডিপি’র হার বাড়লেও, শ্রমিক-কর্মচারীদের হাল মোটেও ভালো নয়। সম্প্রতি এক সমীক্ষায় এই তথ্য উঠে এসেছে। শ্রমিক-কর্মচারীদের নিয়োগের সংখ্যাও যেমন দিন-দিন কমছে, তেমনি তাঁদের কর্মসংস্থানের সুরক্ষাও এখন আর থাকছে না। সংস্কার কর্মসূচি এই পরিস্থিতিকে আরও ঘোরালো করে তুলেছে বলেই রিপোর্টে বলা হয়েছে। দেশের মাত্র সাড়ে ১৬ শতাংশ মানুষ নিয়মিত মজুরি বা বেতন পেয়ে থাকেন। বার্ষিক কর্মসংস্থান ও বেকারত্ব রিপোর্টে এমন তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২৮ শতাংশ পরিবারের কোনও নিয়মিত মজুরি বা বেতন নেই।

সৌন্দর্য হারিয়ে সূর্য এখন কলঙ্কহীন, ছবি পেল নাসা
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সূর্যের সৌরকলঙ্কের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে তার সৌন্দর্য। কিন্তু সেই সৌন্দর্যই এখন উধাও। কলঙ্কমুক্ত সূর্যের খোঁজ পেল নাসা। আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসার সোলার ডায়নামিকস অবজারভেটারি (এসডিও) চলতি মাসে ধারাবাহিকভাবে নজরদারি রেখে সূর্যের একটি ছবি তুলেছে। সূর্যের যে অংশের ছবি তোলা হয়েছে, তাতে কলঙ্কের নামগন্ধ নেই। নাসার পক্ষ থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ২০১০ সালের এপ্রিল মাসে সূর্যে সর্বাধিক কম কলঙ্ক দেখা গিয়েছিল। কিন্তু সেবার একেবারে কলঙ্কহীন সূর্য দেখা যায়নি।  গত ২০ মার্চ এসডিও থেকে সূর্যের ছবি তোলা হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, সূর্যের বৃহৎ অংশে কোনও কলঙ্ক নেই। বিজ্ঞানীদের কথায়, সূর্য একটি গ্যাসীয় বস্তু। সূর্যের পৃষ্ঠের গড় তাপমাত্রা ছ’হাজার ডিগ্রি সেলসিয়াস। সূর্য পৃষ্ঠের একাধিক চুম্বকীয় ক্ষেত্রে অনেক উত্তর ও দক্ষিণ মেরু ক্রমান্বয়ে সৃষ্টি হয়। এই চুম্বক ক্ষেত্রে গড় তাপমাত্রা থাকে চার থেকে সাড়ে হাজার ডিগ্রি সেলসিয়াস। সূর্যের পৃষ্ঠ থেকে এই চুম্বকীয় ক্ষেত্রের তাপমাত্রা কম হওয়ায়, একে কালো ছোপের মতো দেখতে লাগে।

 কিন্তু একময় শোনা যাচ্ছিল আপনাকে ফোন করলে আপনি বলেন, হিরো হিরণ বলছি...
 মিথ্যো কথা বললে কী যায় আসে। সস্তা প্রচারের জন্য অনেকে মিথ্যা বলে। আপনি আমাকে এতদিন চেনেন। ফোন করেন। কখনও শুনেছেন এই কথা বলতে। আলো থাকলেই অন্ধকার থাকবে। এসব কথায় পাত্তা না দিয়ে নিজের কাজ করে গেলেই যথেষ্ট।
 কিন্তু এটা তো মানবেন আপনার সমসাময়িক দেব বা পরবর্তীকালে অঙ্কুশদের সঙ্গে সমানতালে শুরু করেও আপনি অনেকটা পিছিয়ে পড়েছেন?
 এগিয়ে পড়া, পিছিয়ে পড়া কিন্তু আপেক্ষিক ব্যাপার। এটা মাপার কোনও যন্ত্র নেই। আমি ভুলভাল ছবি করতে চাইনি। খুব অল্প ছবি করি। লোকে কিন্তু এখনও নবাব নন্দিনী, ভালোবাসা ভালোবাসা, মন যে করে উড়ু উড়ু’র কথা বলে। এমন কাজ করতে হবে যাতে লোকের মনে থাকে। ক্রিয়েটিভ ওয়ার্ল্ডে কিন্তু নম্বর দিয়ে চলে না। মানুষের হৃদয় ছুঁতে পারাই আসল। আপনি যাদের নাম করলেন তাঁরা আমার থেকে অনেক প্রতিভাবান। তাঁরা যা করেছেন সেটাও অতুলনীয়। ওঁদের প্রতি আমার শ্রদ্ধা আছে।


এক নজরে

আজ বাগডোগরা-মুম্বই সরাসরি
বিমান পরিষেবা চালু হচ্ছে

সংবাদদদাতা, শিলিগুড়ি: বাগডোগরা বিমান বন্দর থেকে আজ রবিবার বাগডোগরা-মুম্বই সরাসরি বিমান পরিষেবা চালু হচ্ছে। এতদিন এই বিমানবন্দর থেকে গুয়াহাটি, দিল্লি অথবা কলকাতা হয়ে মুম্বই যেত। এবার মুম্বইয়ের সঙ্গে সরাসরি বিমান যোগাযোগ চালু হওয়ায় বাগডোগরা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ, ব্যবসায়ী মহল ও পর্যটন সংস্থাগুলি খুশি। বাগডোগরা বিমানবন্দরের ডিরেক্টর রাকেশ সহায় বলেন, রবিবার থেকে একটি বিমান সংস্থা ১৮০ আসন বিশিষ্ট বাগডোগরা-মুম্বই সরাসরি বিমান চালাবে। মুম্বই থেকে দুপুর ১টায় বিমানটি বাগডোগরায় পৌঁছাবে। ইস্টার্ন হিমালয়া ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশনের কার্যকরী সভাপতি সম্রাট স্যান্যাল বলেন, আগে মুম্বই থেকে বাগডোগরা আসতে এবং বাগডোগরা থেকে মুম্বই বিমানে যেতে অনেক ঝঞ্ঝাট পোহাতে হত এবং সময় ও টাকা বেশি লাগত। ফলে পশ্চিম ভারত থেকে আমাদের উত্তরবঙ্গে পর্যটক আসার সংখ্যাটা খুবই কম ছিল। এছাড়া ব্যাবসা ও চিকিৎসা সূত্রে যাঁরা এখান থেকে মুম্বই যেতেন তাঁরাও অসুবিধায় পড়তেন। এবার সেসব সমস্যার সমাধান হল।

সিবিইসি’র নাম বদলে হচ্ছে সিবিআইসি

নয়াদিল্লি, ২৫ মার্চ (পিটিআই): নাম পালটাচ্ছে সেন্ট্রাল বোর্ড অব এক্সাইজ অ্যান্ড কাস্টমস বা সিবিইসি’র। জিএসটি জমানায় পরোক্ষ করের বিষয়ে এই শীর্ষ সংস্থার নতুন নাম হবে সেন্ট্রাল বোর্ড অব ইনডিরেক্ট ট্যাক্স অ্যান্ড কাস্টমস বা সিবিআইসি। অর্থমন্ত্রকের তরফে এই তথ্য জানানো হয়েছে। অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জিএসটি জমানায় সর্বোচ্চ সংস্থার এই নামকরণে সিলমোহর দিয়েছেন। কেন্দ্রের আশা ১ জুলাই থেকে জিএসটি চালু হয়ে যাবে। জিএসটি চালু হলে কর ফাঁকির পরিমাণ কমবে বলে মনে করছে অর্থমন্ত্রক। সিবিআইসি সেই উদ্যোগ কার্যকরী করার ক্ষেত্রে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ হাত হয়ে উঠবে বলে মনে করা হচ্ছে।

২০২২ সালে মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে ‘গঙ্গাজল’
ছিটাবে দমকল, যোগীকে খোঁচা অখিলেশের

ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর ইতিমধ্যেই ৫ কালীদাস মার্গে মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ত্যাগ করেছেন অখিলেশ যাদব। আগামী সপ্তাহে ‘নবরাত্রি’র উৎসবের মধ্যে এই বাংলোয় পা রাখবেন নয়া মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সেজন্য ক’দিন আগে রীতিমতো পুরোহিত ডেকে বাংলোর ‘শুদ্ধিকরণ’ করিয়েছিলেন তিনি।

(বিস্তারিত দেশের পাতায়)

সিলেটে সেনা-জঙ্গি লড়াই চলছেই
পরপর বিস্ফোরণে হত ৩, জখম ৩১

‘আতিয়া মহল’-এর নীচের তলায় ঘাঁটি গেড়েছে জঙ্গি দম্পতি। গোপন খবর পাওয়ার পর বাংলাদেশের সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ি এলাকায় একটি পাঁচতলা সবুজ রঙের বাড়ি ঘিরে ফেলেছিল র্যাব। শিববাড়ি পাঠানপাড়া এলাকায় পাঁচতলা ও চারতলা পাশাপাশি দুটি ভবন ঘিরে বৃহস্পতিবার রাত ৩টে থেকে এই অভিযানের সূচনা।

(বিস্তারিত বিদেশের পাতায়)



  • ১৮১৪: গিলেটিনের আবিষ্কর্তা জোসেফ ইননেস গিলেটিনের মৃত্যু

  • ১৮৯৩: চিত্র পরিচালক ধীরেন্দ্রনাথ গঙ্গোপাধ্যায়ের জন্ম।

  • ১৯৭১: স্বাধীনতা ঘোষণা করল বাংলাদেশ, শুরু হল মুক্তিযুদ্ধ

  • ১৯৯৯: সুরকার আনন্দশংকরের মৃত্যু

  • ২০০৬: সি পি এম নেতা অনিল বিশ্বাসের মৃত্যু

 
ক্রয়মূল্য

বিক্রয়মূল্য

ডলার

৬৪.৬৮

৬৬.৩৬

পাউন্ড

৮০.৫৩

৮৩.২৮

ইউরো

৬৯.৩৭

৭১.৮৩

পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,২২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ গ্রাম) ২৭,৭২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,১৪০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪১,৬০০ টাকা
ওই খুচরো (প্রতি কেজি) ৪১,৭০০ টাকা

 

 



বিশেষ নিবন্ধ


নারদকাণ্ডে দুর্নীতির তত্ত্বতালাশের চেয়ে রাজনীতির লড়াইটাই
কি বড় হয়ে উঠছে?
শুভা দত্ত


দুর্নীতির জিরো
টলারেন্স ও কিছু প্রশ্ন
সৌম্য বন্দ্যোপাধ্যায়


কলকাতা থাক না কলকাতাতেই
গৌরী বন্দ্যোপাধ্যায়


জলাশয় সংরক্ষণ— অত্যন্ত জরুরি বিষয়
বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায়


যোগী আদিত্যনাথ:
নতুন নায়ক

সমৃদ্ধ দত্ত


মোদিজির ম্যাজিক কি
মমতার বাংলায় খাটবে
মেরুনীল দাশগুপ্ত


উত্তরপ্রদেশের এবারের তাৎপর্যপূর্ণ জনাদেশই
হল ভারতীয়
রাজনীতির অভিমুখ

প্রণবকুমার চট্টোপাধ্যায়


‘গাছেরও খাব, তলারও কুড়াব’ মানসিকতার
ডাক্তারদের দিকেও নজর দেওয়া যায় না কি?
মোশারফ হোসেন



?Copyright Bartaman Pvt Ltd. All rights reserved
6, J.B.S. Haldane Avenue, Kolkata 700 105
 
Editor: Subha Dutta