কলকাতা, সোমবার ২৩ জানুয়ারি ২০১৭, ৯ মাঘ ১৪২৩

 

রবিবার | রেসিপি | আমরা মেয়েরা | দিনপঞ্জিকা | শেয়ার | রঙ্গভূমি | সিনেমা | নানারকম | টিভি | পাত্র-পাত্রী | জমি-বাড়ি | ম্যাগাজিন

ইকো পার্কে এবার জাপানি রেস্তরাঁ
আসছে, চাখতে পারবেন ‘সুশি’

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এবার ইকো পার্কে বসেই পাওয়া যাবে জাপানি খাবারের স্বাদ। খুব শীঘ্রই জাপানি রেস্তরাঁ খুলতে চলেছে হিডকো। সেখানে মিলবে সমস্ত রকম জাপানি খাবার। জাপানি রেস্তরাঁয় কাজ করা রাঁধুনি দিয়েই এখানে রান্না করানো হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে। হিডকো সূত্রে জানা গিয়েছে, বহু বিদেশি পর্যটক এখন ইকো পার্কে আসছেন। ফলে বিদেশি খাবারের চাহিদাও বাড়ছে দিন দিন। তাছাড়া এখন নিউটাউনে বেশ কিছু আন্তর্জাতিক মানের আলোচনাসভা ও বৈঠক হচ্ছে। সেখানে উপস্থিত থাকছেন বিদেশি পর্যটক ও বিশেষজ্ঞরা। সেজন্যও বিদেশি খাবারের চাহিদা বাড়ছে। সেই দিকে লক্ষ্য রেখেই ইকো পার্কে জাপানি রেস্তরাঁ খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে হিডকো। তাছাড়া কলকাতায় খুব বেশি জাপানি রেস্তরাঁ নেই। তাই এই রেস্তরাঁ খুললে স্থানীয় পর্যটকদের কাছেও তা আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে। ইতিমধ্যেই একটি কোরিয়ার রেস্তরাঁ খোলার সিদ্ধান্তও হয়েছে। খুব শীঘ্রই তা চালুও হয়ে যাবে।

হিডকো সূত্রের খবর, কয়েকদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হিডকোর চেয়ারম্যান দেবাশিস সেনকে ইকো পার্ককে আরও সুন্দর করে সাজিয়ে তোলার পরামর্শ দেন। তখনই মুখ্যমন্ত্রীকে এই রেস্তরাঁর কথা জানানো হয়। তিনিও এই নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন। তারপরই হিডকোর চেয়ারম্যান এই ব্যাপারে সাহায্য করার জন্য ভারতে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ইকো পার্কে বিশ্ব বঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলন উপলক্ষে মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া নৈশভোজে হাজির ছিলেন। তখন তাঁর সঙ্গে এই নিয়ে হিডকোর চেয়ারম্যান কথা বলেন। তিনি সব রকমভাবে সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন। আপাতত সিদ্ধান্ত হয়েছে, জাপানি রেস্তরাঁয় দীর্ঘদিন কাজ করেছেন, এমন রাঁধুনিকেই এখানে আনা হবে। কথা প্রসঙ্গেই হিডকোর চেয়ারম্যানকে জাপানের রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, এই মূহূর্তে জাপানি খাবার ‘সুশি’ গোটা বিশ্বেই খুব জনপ্রিয়। বিভিন্ন দেশের জাপানি রেস্তরাঁয় এই খাবারের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। এমন জনপ্রিয় খবারের ডালি নিয়ে জাপানি রেস্তরাঁ সাজানো হবে।

তবে, এই নিয়ে জাপানের রাষ্ট্রদূত কিছু সাবধানবাণীও শুনিয়ে রেখেছেন। কেননা, এই খাবারের জন্য ব্যবহৃত কাঁচামাল খুবই টাটকা হতে হয়। এই খাবারটিতে আসলে কলা পাতার মধ্যে ভাতের একটি আস্তারণ থাকবে। তার ভিতরে থাকবে কাঁচা মাছ ও তার ভিতরে সবজি। মাছ ও সবজি কার্যত কাঁচা থাকবে। তাই মাছ ও সবজির গুণগত মানে কিছু খামতি হলেই তা খেলে শরীরের ক্ষতি হবে। তাই কাঁচামাল একদম টাটকা ও ভালো হবে, এই আশ্বাস পাওয়া গেলেই ‘সুশি’ তৈরি করা যাবে। হিডকোর চেয়ারম্যান এই নিয়ে তাঁকে আশ্বস্ত করেছেন। অনেকেই বলেছেন, ইকো পার্কে এখন জাপানি পার্ক তৈরি হয়েছে। তার পাশেই এই রেস্তরাঁ খোলা হলে তা দর্শকদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে দাঁড়াবে। প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাপানের রাষ্ট্রদূত ওই জাপানি পার্কও ঘুরে দেখেন।

হিডকো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নিউটাউন-কলকাতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ নিউটাউনে একটি রুফ টপ গার্ডেন তৈরি করেছে। পাঁচ হাজার বর্গফুটের ওই বাগানে প্রচুর পরিমাণে সবজি চাষ হচ্ছে। সম্পূর্ণ ঩জৈব সার ব্যবহার করে এই সবজি ফলানো হচ্ছে। এই বাগানে কোনও রকম রাসায়নিক সার ব্যবহার করা হয়নি। ওই বাগানের উৎপাদিত সবজি এই রেস্তরাঁগুলিতে বিক্রি করা হবে। ইতিমধ্যেই তিনটি নামী শপিং মলের সবজি বাজার ঘুরে দর সংগ্রহ করেছেন এনকেডিএ-র অফিসাররা। ওই দরের চেয়ে কম দামেই হিডকো ওই সবজিগুলি এই সমস্ত রেস্তরাঁয় বিক্রি করবে।






?Copyright Bartaman Pvt Ltd. All rights reserved
6, J.B.S. Haldane Avenue, Kolkata 700 105
 
Editor: Subha Dutta