কলকাতা, সোমবার ২৩ জানুয়ারি ২০১৭, ৯ মাঘ ১৪২৩

 

রবিবার | রেসিপি | আমরা মেয়েরা | দিনপঞ্জিকা | শেয়ার | রঙ্গভূমি | সিনেমা | নানারকম | টিভি | পাত্র-পাত্রী | জমি-বাড়ি | ম্যাগাজিন

আশা বিশ্বব্যাংকের
নোট বাতিলের জেরে ভারত
দীর্ঘমেয়াদি সুফল পেতে পারে

ওয়াশিংটন, ১১ জানুয়ারি (পিটিআই): নোট বাতিলের জেরে ভারতীয় অর্থনীতিতে যে ‘প্রতিকূল প্রভাব’ পড়েছে, কিছুদিন পরেই তা কেটে যাবে। মঙ্গলবার বিশ্বব্যাংকের তরফে এমনই আশা প্রকাশ করা হয়েছে। বিশ্বব্যাংকের মত, যে কোনও সংস্কারের ক্ষেত্রেই প্রথম কিছুদিনের জন্য নানা ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হয়। কিন্তু পরে তা কেটে যায়। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায়, ওই নির্দিষ্ট সংস্কারের জন্য দীর্ঘমেয়াদি সুফল ভোগ করছেন মানুষ। তেমনই ভারতে পুরানো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল করে যে কঠোর পদক্ষেপ করেছে মোদি সরকার, আশা করা হচ্ছে, এখানকার মানুষও দীর্ঘমেয়াদি সুফল ভোগ করবেন।
বিশ্বব্যাংকে এক সম্মেলনে ডেভেলপমেন্ট প্রসপেক্ট গ্রুপের ডিরেক্টর আইহান কোসে বলেন, গত আর্থিক বছরে ভারতে বৃদ্ধির হার ছিল ৭.৬। কিন্তু নোট বাতিলের ধাক্কায় চলতি আর্থিক বছর অর্থাৎ ২০১৬-’১৭-তে বৃদ্ধির হার হয়তো ৭-এ নেমে আসতে পারে। কিন্তু বিশ্বব্যাংক আশা করছে, এই নোট বাতিলের যাবতীয় সুফল ২০১৭-’১৮ ও ২০১৮-’১৯ আর্থিক বছরে পাওয়া যাবে। ভারতের বাজারে বিনিয়োগ বাড়বে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেছেন।
প্ল্যাস্টিক মানি অর্থাৎ নগদহীন অর্থনীতি নিয়ে নরেন্দ্র মোদি যে প্রচার চালাচ্ছেন, সে বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে আইহান কোসে বলেন, আমরা সবাই জানি, ভারতের অর্থনীতি নগদ নির্ভরশীল। এ দেশের ৮০ শতাংশ লেনদেন নগদের মাধ্যমেই হয়। যা মোট লেনদেনের তিন ভাগের দু’ভাগ। তাই শহরের দরিদ্র মানুষজন ও দেশের গ্রাম্য এলাকার জন্য রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া পুরানো নোট বদলে যথেষ্ট পরিমাণ নতুন নোট ছাপাবে বলে আশা যায়। এদিকে, বিশ্ব অর্থনীতি নিয়ে আলোচনার সময় বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম এদিন বলেন, ২০১৭ সালে আন্তর্জাতিক বৃদ্ধির হার ২.৭ শতাংশ হবে। ২০১৬ আর্থিক বছরে আতর্জাতিক বৃদ্ধির হার ছিল ২.৩ শতাংশ।

 






?Copyright Bartaman Pvt Ltd. All rights reserved
6, J.B.S. Haldane Avenue, Kolkata 700 105
 
Editor: Subha Dutta