রাজ্য
 

চালু হয়েছে বিশেষ হেল্পলাইন নম্বর
দক্ষিণ-পূর্ব রেলে মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থায়
অসংরক্ষিত টিকিট বিক্রির জনপ্রিয়তা বাড়ছে

প্রসেনজিৎ কোলে, কলকাতা: একদিকে অতিরিক্ত রিচার্জ ভ্যালুর বাড়তি সুবিধা প্রদান, অন্যদিকে এই ব্যবস্থায় জোনের একেবারে প্রান্তিক জায়গাগুলিকেও যুক্ত করায় দক্ষিণ-পূর্ব রেলে অসংরক্ষিত টিকিট বিক্রির ক্ষেত্রে মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার জনপ্রিয়তা ক্রমশ বাড়ছে। প্রতি মাসে বহু যাত্রী অসংরক্ষিত টিকিট কাটার জন্য মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার সুযোগ নিচ্ছেন বলে খবর। এই পদ্ধতিতে টিকিট বিক্রি বৃদ্ধি পাওয়ায় টাকার অঙ্কও ক্রমবর্ধমান। অসংরক্ষিত কামরায় টিকিট কাটার জন্য মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার সুযোগ নিলে যে বাড়তি আর্থিক সুবিধা দেওয়া হচ্ছে, তা আগামী ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল মন্ত্রক। ফলে এই পদ্ধতির জনপ্রিয়তা আরও বাড়বে বলে আশা করছেন দক্ষিণ-পূর্ব রেলের কর্তারা।
কেন্দ্রীয় সরকার গত কয়েক বছর ধরেই ডিজিটাল ইন্ডিয়া প্রকল্প রূপায়ণে নানা কর্মসূচি নিচ্ছে। অনলাইনে সরকারি কাজকর্ম, আর্থিক লেনদেন সহ নানা ব্যাপারে উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে। অন্যান্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের সঙ্গে রেলও ডিজিটাল ইন্ডিয়া রূপায়ণে সমানভাবে সচেষ্ট। সেই মতোই নগদহীন লেনদেনকে জনপ্রিয় করতে ও কাউন্টারের সামনে যাত্রীদের ভিড় কমাতে মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থা চালু করেছে রেলের বিভিন্ন জোন। গোটা দেশেই এই ব্যবস্থা ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে গত ১ নভেম্বর থেকে। যা ক্রমশ জনপ্রিয় হচ্ছে।
দক্ষিণ-পূর্ব রেল সূত্রের খবর, ট্রেনের অসংরক্ষিত কামরার টিকিট কাটার জন্য এই জোনের খড়্গপুর বিভাগে প্রথম মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থা চালু হয়েছিল ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে। তারপর গত ৪ জুলাই মাস থেকে গোটা জোনেই এই ব্যবস্থা সম্প্রসারণ করা হয়েছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে বিশেষ আর্থিক সুবিধা প্রদানের ব্যবস্থা। মোবাইলে টিকিট কাটার জন্য যখন আর-ওয়ালেট রিচার্জ করছেন যাত্রীরা, তখন পাঁচ শতাংশ হারে বোনাস হিসেবে অতিরিক্ত রিচার্জ ভ্যালু যুক্ত করে দেওয়া হচ্ছে। অর্থাৎ, কেউ ১০০ টাকার রিচার্জ করলে, তিনি মোট ১০৫ টাকার রিচার্জ ভ্যালু পাবেন। এই জোনের এক কর্তার কথায়, বিশেষ এই অ্যাপটি তৈরি করেছে ‘সেন্টার ফর রেলওয়ে ইনফরমেশন সিস্টেম’ (ক্রিস)। অ্যাপের মাধ্যমে অসংরক্ষিত কামরার টিকিট কাটা যাচ্ছে। প্ল্যাটফর্ম টিকিট কিংবা মান্থলি টিকিটও এই অ্যাপের মাধ্যমে কাটতে পারছেন যাত্রীরা।
এই বিশেষ ব্যবস্থার সুবিধা নিচ্ছেন কত যাত্রী? দক্ষিণ-পূর্ব রেল সূত্রের খবর, গত সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এই ব্যবস্থায় ৩৯,০৬৮ জন যাত্রী টিকিট কেটেছেন। টাকার অঙ্কে টিকিটের মোট মূল্য ছিল ৪,২৫,৪৪৫ টাকা। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে এই ব্যবস্থার সুযোগ নিয়েছেন ৩৮,৫৬৫ জন। কিন্তু টাকার অঙ্কে টিকিটের মোট মূল্য সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহকে ছাপিয়ে গিয়েছে। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে এই ব্যবস্থায় মোট ৪,৪৯,৯২৩ টাকার টিকিট ইস্যু করা হয়েছে। নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এই ব্যবস্থার মাধ্যমে আরও বেশি যাত্রী টিকিট কেটেছেন। জোন সূত্রের খবর, প্রথম সপ্তাহে মোট ৪৩,০১৮ জন যাত্রী টিকিট কেটেছেন। টিকিটের মোট অঙ্ক ৬,৩৭,৮৪৩ টাকা। বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে ছ’ থেকে সাত হাজার যাত্রী এই ব্যবস্থায় টিকিট কাটছেন। তা থেকে দৈনিক আয় হচ্ছে গড়ে ৮০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা। এ নিয়ে জানতে চাওয়া হলে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক সঞ্জয় ঘোষ বলেন, অসংরক্ষিত টিকিট কাটার জন্য মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার জনপ্রিয়তা আরও বাড়াতে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। চালু করা হয়েছে বিশেষ হেল্পলাইন নম্বরও। তার নম্বর ০৩৩-২২১০৭৪৩৫। এই ব্যবস্থায় যাত্রীদের অযথা লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কাটতে হচ্ছে না। বাঁচছে সময়।
09th  November, 2018
১২৫টির বেশি আসন পাবে
না বিজেপি, হুঙ্কার মমতার

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আসন্ন লোকসভা ভোটের পর দেশের রাজনীতিতে নির্ণায়ক শক্তি হবে আঞ্চলিক দলগুলি। আগামী শনিবারের সভাস্থলের প্রস্তুতি দেখতে গিয়ে ব্রিগেডে দাড়িয়ে এমনই প্রত্যয়ী ঘোষণা শোনা গেল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গলায়।
বিশদ

আইএস জঙ্গির খোঁজে যোগীর
রাজ্যে জোর তল্লাশি
দেশজুড়ে হামলার ছক ফাঁস, পাঞ্জাবেও হানা এনআইএর

নয়াদিল্লি, ১৭ জানুয়ারি: বহু কুখ্যাত আইএস জঙ্গি লুকিয়ে আছে উত্তর ভারতে। লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে তারা রাজধানী দিল্লিসহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ শহরে বড় আত্মঘাতী হামলার ছক কষছে। এরকম একটি খবর পেয়েই জোর তল্লাশিতে নামল ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেটিং এজেন্সি (এনআইএ)। ঘটনার তদন্তে নেমে বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশ ও পাঞ্জাবের আটটি জায়গায় দিনভর হানা দিল এনআইএ। সকাল থেকে চলা এই ধরপাকড়ে জনৈক মাদ্রাসা শিক্ষকসহ বেশ কয়েকজনকে আটক করল তদন্তকারী সংস্থাটি। পেছনে আর কারা কারা রয়েছে, মডিউলের মূল উৎস কোথায় তা খুঁজে বার করতে আটক ব্যক্তিদের রাত পর্যন্ত ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।
বিশদ

উত্তুরে হাওয়া ফের সক্রিয়
হওয়ায় শীতে জবুথবু শহর

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উত্তুরে হাওয়া ফের সক্রিয় হওয়ায় কলকাতা সহ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ আবারও শীতে জবুথবু হয়ে পড়ল। বৃহস্পতিবার কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কমে দাঁড়াল ১১.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
বিশদ

অমিত শাহের আসা নিয়ে জল্পনা, বদলে
যোগী আদিত্যনাথকে চায় রাজ্য বিজেপি

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী ২০ জানুয়ারি অসুস্থ অমিত শাহ মালদহের সভায় আদৌ হাজির থাকবেন কি না, তা নিয়ে দিনভর জল্পনার মধ্যে রাজ্য বিজেপি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, প্রস্তাবিত পাঁচটি সভাই হবে। এক্ষেত্রে অমিত শাহ না আসতে পারলেও, যোগী আদিত্যনাথের মতো হেভিওয়েট কেন্দ্রীয় নেতা-মন্ত্রীদের নিয়ে আসা হবে।
বিশদ

জঙ্গলমহলের পড়ুয়াদের জন্য বিনামূল্যে বাস

 প্রসেনজিৎ কোলে ও সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: পরিবর্তনের জমানায় জঙ্গলমহল বরাবরই রাজ্যর অগ্রাধিকারের তালিকায়। রাজ্যে নতুন সরকার তৈরির পর থেকেই ওই এলাকার সার্বিক উন্নয়নের সঙ্গে পরিবহণ পরিকাঠামো তৈরির কাজও নয়া উদ্যমে শুরু হয়।
বিশদ

প্রেম, দাম্পত্য কলহ মেটাতে বসিরহাট
থেকে বীরভূম চলছে ভূত বিক্রির চক্র

অলকাভ নিয়োগী, বারাসত, বিএনএ: প্রেমে ব্যর্থ? দাম্পত্য কলহ? চাকরিজীবী পাত্র চাই? ব্যবসায় লাভ হচ্ছে না? ম্যাজিকের মতো মাত্র এক সেকেন্ডের মধ্যেই এই সব সমস্যার সমাধান করে দিতে পারে পোষ্য ‘ভূত’! আরব্য রজনীর গল্পের মতো শুনতে লাগলেও, এমনই টোপ দিয়ে গুণিনের হাত ধরে রমরমিয়ে চলছে ‘ভূত’ বিক্রি।
বিশদ

পুলিসের কথা বলতেই ঠগবাজ নাগা
সন্ন্যাসীর মুখ দিয়ে বেরল সোনার আংটি

বিমল বন্দ্যোপাধ্যায়, সাগর থেকে ফিরে : পুণ্য, রোজগার ও সেবা তিনটির পাশাপাশি সহাবস্থান। সাগরমেলায় শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সেই চিত্র প্রতিমুহূর্তে দেখা যায়। একদল দূর-দূরান্ত থেকে পদে পদে কষ্ট সয়ে পকেটের টাকা খরচ করে গঙ্গাসাগরে আসেন। তাঁদের একটাই লক্ষ্য, স্নানের মধ্যে দিয়ে পুণ্য ও মোক্ষলাভ করা। এর উল্টো দিকও রয়েছে।
বিশদ

শুরু হয়েছে সাগরতট পরিষ্কারের কাজ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: সাগরমেলার পর কপিলমুনি মন্দির। স্নানে যাওয়ার পাঁচটি ঘাটের রাস্তা সহ বিস্তৃত কয়েক কিলোমিটার তটরেখা ঝকঝকে রাখতে জেলা প্রশাসন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন বিভাগের কয়েকশো অফিসার ও স্বেচ্ছসেবী সংস্থার সদস্যদের নিয়ে রাস্তায় নামল।
বিশদ

কেন্দ্রের মতে শারীরশিক্ষায় পিছিয়ে রাজ্য, সঠিক চিত্র নয় বলে জানাল শিক্ষা দপ্তর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: স্কুলে খেলাধুলোর গুরুত্ব বাড়াতে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সরঞ্জাম দেওয়ার ঘোষণা আগেই করা হয়েছিল। খোদ সিবিএসই বোর্ড একাধিক পদক্ষেপ নিয়ে শারীরশিক্ষার প্রতি বাড়তি জোর দিচ্ছে। কিন্তু খেলাধুলো কিংবা শারীরশিক্ষা নিয়ে চর্চায় বেশ পিছিয়ে রাজ্যের স্কুলগুলি।
বিশদ

‘আয়ুষ্মান ভারত’ থেকে পশ্চিমবঙ্গ বেরিয়ে গেলেও রাজ্যে যথারীতি প্রচার চালিয়ে যাবে কেন্দ্র

 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১৭ জানুয়ারি: ‘আয়ুষ্মান ভারত’ নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য বিতর্ক বজায়ই থাকছে। গরিবদের জন্য বছরে পাঁচ লক্ষ টাকার স্বাস্থ্যবিমার এই প্রকল্প থেকে গত ১০ জানুয়ারি রাজ্য তার অংশীদারি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিলেও পশ্চিমবঙ্গে আয়ুষ্মান ভারত তথা ‘প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনা’র প্রচার চালিয়ে যাবে বলেই ঠিক করেছে কেন্দ্র।
বিশদ

  সুন্দরবনে অভিযানে গিয়ে পোশাক পাচারকারীদের সঙ্গে গুলির লড়াই শুল্ককর্তাদের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: সুন্দরবনের গভীর জঙ্গলে পোশাক পাচারকারীদের ধরতে গিয়ে শুল্কদপ্তরের গোয়েন্দাদের সঙ্গে গুলি বিনিময় হল। বৃহস্পতিবার ভোরে পাথরপ্রতিমার রামগঙ্গা নদীর দক্ষিণ দিকে জঙ্গলের মধ্যে ঘটনাটি ঘটে।
বিশদ

ইন্টার্ন শিক্ষকের সিদ্ধান্ত বাতিলের
দাবিতে পথে বাম ছাত্র-যুব সংগঠন

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শিক্ষক সমস্যা মেটাতে কলেজের পড়াশোনা শেষ করা সদ্য স্নাতকদের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলে পড়ানোর নামে ইন্টার্নশিপ করার সুযোগ দিতে চান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
বিশদ

  স্কুল বাসে হামলা: রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশনের
কৈফিয়তের কড়া জবাব পাঠাচ্ছেন সুজন-সুভাষ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দিন কয়েক আগে সাধারণ ধর্মঘটের সময় স্কুল পড়ুয়াদের একটি গাড়ির উপর হামলার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সিপিএমের শীর্ষস্থানীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী এবং সিটুর রাজ্য সভাপতি সুভাষ মুখোপাধ্যায়কে কাঠগড়ায় তুলে কৈফিয়ৎ তলব করেছিল রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশন।
বিশদ

মুখ্যমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীকে স্মারকলিপি শিক্ষক সংগঠনগুলির

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এনআইওএস-এর বিরুদ্ধে তোপ দেগে শিক্ষামন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিল পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল এসএসকে-এমএসকে শিক্ষক ও এএস ঐক্য মঞ্চ। সংগঠনের তরফে কার্যনির্বাহী সভাপতি ইসমাইল গায়েন এবং সাধারণ সম্পাদক আনারুল ইসলাম জানিয়েছেন, প্রায় ৫৫ হাজার এমএসকে এবং এসএসকে শিক্ষক সমস্যায় পড়েছেন।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
শুভ্র চট্টোপাধ্যায়,কলকাতা: অধিকাংশ রাজ্যই ধর্ষণের মতো ঘটনার তদন্ত দু’মাসে শেষ করছে না। এনিয়ে রীতিমতো বিরক্ত কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। ইতিমধ্যেই দিল্লি থেকে সতর্ক করে পশ্চিমবঙ্গ সহ আরও ছয় রাজ্যকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। তথ্য ও পরিসংখ্যান তুলে ধরে ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, ...

 নয়াদিল্লি, ১৭ জানুয়ারি: জঙ্গিহানায় মৃত্যু লেখা ছিল ভাগ্যে। তাই নিউ ইয়র্কে বেঁচে গেলেও সুদূর নাইরোবি গিয়ে প্রাণ হারাতে হল মার্কিন ব্যবসায়ীকে। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে বিমান হামলায় বেঁচে গিয়েছিলেন জেসন স্পিন্ডলার। ...

 বিএনএ, চুঁচুড়া: প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যয়ে সিঙ্গুরের তাপসী মালিক কৃষক বাজারে সৌরশক্তি চালিত সব্জি সংরক্ষণ কক্ষ চালু করছে কৃষি বিপনণ দপ্তর। দেশের মধ্যে এমন ...

 নয়াদিল্লি, ১৭ জানুয়ারি (পিটিআই): মুকেশ আম্বানির আচ্ছে দিন। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে শেষ হওয়া ত্রৈমাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) রিলায়েন্স জিও’র নিট মুনাফা বাড়ল ৬৫ শতাংশ। ফলে নিট মুনাফার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮৩১ কোটি টাকা। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রে নতুন সুযোগ কাজে লাগানো উচিত। কর্মস্থানে সহকর্মীর ঈর্ষার শিকার। গুরুজনের স্বাস্থ্যোন্নতি। পুলিসি ঝামেলা। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৪৭: সঙ্গীতশিল্পী কে এল সায়গলের মৃত্যু
১৯৭২: ক্রিকেটার বিনোদ কাম্বলির জন্ম
১৯৯৬: রাজনীতিক ও অভিনেতা এন টি রামারাওয়ের মৃত্যু
২০০৩: কবি হরিবংশ রাই বচ্চনের মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৩৯ টাকা ৭২.০৯ টাকা
পাউন্ড ৯০.১০ টাকা ৯৩.৩৬ টাকা
ইউরো ৭৯.৭২ টাকা ৮২.৭২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৯৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,২৯০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৭৬০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৪৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৫৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৪ মাঘ ১৪২৫, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার, দ্বাদশী ৩৪/৫৮ রাত্রি ৮/২২। নক্ষত্র- রোহিণী ১৫/৪ দিবা ১২/২৫, সূ উ ৬/২৩/২, অ ৫/১০/৪৪, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৯ মধ্যে পুনঃ ৮/৩২ গতে ১০/৪১ মধ্যে পুনঃ ১২/৫০ গতে ২/১৭ মধ্যে পুনঃ ৩/৪৪ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/৫৫ গতে ৮/৪১ মধ্যে পুনঃ ৩/৪৩ গতে ৪/৩৬ মধ্যে। বারবেলা ঘ ৯/৪ গতে ১১/৪৫ মধ্যে, কালরাত্রি ঘ ৮/২৮ গতে ১০/৭ মধ্যে।
৩ মাঘ ১৪২৫, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার, দ্বাদশী সন্ধ্যা ৫/১৬/৩৯। রোহিণীনক্ষত্র ৯/৩৮/১৮। সূ উ ৬/২৪/৪৭, অ ৫/৮/২৯, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৫০/৩৭ মধ্যে ও ঘ ৮/৩৩/৩১ থেকে ১০/৪২/১৬ মধ্যে ও ১২/৫১/০ থেকে ২/৩৬/৫০ মধ্যে ও ৩/৪২/৩৯ থেকে ৫/৮/২৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৫৪/৩৯ থেকে ৮/৪০/৫০ মধ্যে ও ৩/৪৫/৩১ থেকে ৪/৩৮/৩৬ মধ্যে। বারবেলা ৯/৫/৪৩ থেকে ১০/২৬/১০ মধ্যে, কালবেলা ১০/২৬/১০ থেকে ঘ ১১/৪৬/৩৮ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/২৭/৩৪ থেকে ঘ ১০/৭/৬ মধ্যে।
 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
তৃতীয় ওয়ান ডে: ৫ উইকেট নিল চাহাল, অস্ট্রেলিয়া ২১৯/৮ (৪৬ ওভার) 

11:38:23 AM

জলপাইগুড়ির হাকিমপাড়ার কাছে দুর্বল সেতু ভাঙা শুরু হল 

11:34:00 AM

আজ শুভমুক্তি
শাহজাহান রিজেন্সি: সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে আইনক্স, পিভিআর, ...বিশদ

11:33:13 AM

কড়েয়ায় খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার নৌশাদ 

11:25:00 AM

তৃতীয় ওয়ান ডে: অস্ট্রেলিয়া ৪০ ওভারে ১৯০/৬ 

11:22:00 AM

তৃতীয় ওয়ান ডে: অস্ট্রেলিয়া ৩০ ওভারে ১২৪/৫ 

10:34:31 AM