রাজ্য
 
 

মধুর টানে মৌটুসি। নদীয়ার বগুলায় তোলা নিজস্ব চিত্র

আদালতের রায়ে সঙ্কটে বিজেপি
আজ শুনানির উপর নির্ভর করছে অমিত শাহদের রথযাত্রা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শুরুর মুখেই হাইকোর্টে জোর ধাক্কা খেল বিজেপি। আজ শুক্রবারই কোচবিহার থেকে বহুচর্চিত রথযাত্রার সূচনা হওয়ার কথা ছিল। দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহই তা উদ্বোধন করবেন, এমনটাও ঠিক ছিল। কিন্তু মাত্র একদিন আগে, বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট তাদের সেই রথযাত্রায় অনুমতি দিল না। মূলত নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই আদালত রথযাত্রা আপাতত স্থগিত রাখতে বলেছে। একইসঙ্গে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর বক্তব্য, এই উদ্যোগ পিছিয়ে দিতে হবে। ৯ জানুয়ারি মামলার পরবর্তী শুনানি। অন্যদিকে, এই অন্তর্বর্তী নির্দেশ জারি হতেই চরম বেকায়দায় পড়ে যায় বিজেপি। সঙ্গে সঙ্গে মামলাকারীদের তরফে প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ চাওয়া হয়। কিন্তু তিনি আজ, শুক্রবার বিষয়টি শুনবেন বলে জানিয়েছেন। ফলে বৃহস্পতিবার সবার নজর যেভাবে দিনভর পড়েছিল হাইকোর্টের রায়ের দিকে, আজও তেমনটাই হবে বলে মনে করা হচ্ছে।
যে কোচবিহার থেকে ওই যাত্রা শুরু হওয়ার কথা ছিল, এদিন সেখানকার জেলাশাসক ও পুলিস সুপারের রিপোর্ট আদালতে পেশ করা হয়। একইসঙ্গে রাজ্য গোয়েন্দা দপ্তরের আলাদা একটি রিপোর্ট মুখবন্ধ খামে বিচারপতিকে দেওয়া হয়। প্রথম দুই রিপোর্টের বক্তব্য অনুযায়ী, রথযাত্রা হলে ‘সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলা’ দেখা দিতে পারে। কেন এমন পরিস্থিতি হতে পারে, তার উত্তর আছে ওই মুখবন্ধ খামে। যা মামলাকারীদেরও দেখতে দেওয়া হয়নি। যে কারণে মামলাকারীদের তরফে অন্যতম আইনজীবী সপ্তাংশু বসু দাবি করেন, অন্তত কোন তারিখে ওই গোয়েন্দা রিপোর্ট তৈরি হয়েছে, তা জানানো হোক। তিনি দাবি করেন, এটি স্রেফ ঘরে বসে বানানো। কারণ, কয়েকদিন আগে ওই কোচবিহারেই সিপিএম তাদের সর্বভারতীয় নেতাদের এনে রাজনৈতিক সমাবেশ করেছে। তারপরে তৃণমূল কংগ্রেসও বিশাল জনসভা করেছে। তখন কোনও সমস্যা না হলে কেন বিজেপি’র জনসমাবেশকে কেন্দ্র করে এমন প্রশ্ন তোলা হচ্ছে?
রাজ্য সরকারের তরফে অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত আদালতকে জানান, শুধু কোচবিহার থেকেই রিপোর্টটি এসেছে। রাজ্যে মোট জেলার সংখ্যা ২৪টি। ৪০টি লোকসভা আসনের মিশ্র জনজাতি এলাকা দিয়ে রথযাত্রা হওয়ার কথা। ফলে প্রাসঙ্গিক সিদ্ধান্ত নিতে সময় লাগবেই।
শুনানির শুরুতে এদিন বিচারপতি বলেন, রথযাত্রার জন্য অনুমতি চাওয়া হয়েছিল ২৯ অক্টোবর। তারপর অন্তত চার বার উদ্যোক্তারা প্রশাসনকে স্মারকলিপি দিয়েছে। তাঁর প্রশ্ন, এতদিন কেন প্রশাসন কোনও সিদ্ধান্ত নিল না? কোথায় আটকাচ্ছিল? সরকারি অফিসাররাই কি এই পরিস্থিতি তৈরি করেননি? জবাবে বলা হয়, গোয়েন্দা রিপোর্টের জন্যই অপেক্ষা করা হচ্ছিল। কারণ, কোনও অনভিপ্রেত ঘটনা ঘটলে কে তার দায়িত্ব নেবে? পুলিসের তরফে আইনজীবী আনন্দ গ্রোভার দাবি করেন, গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুযায়ী সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলা হওয়ার যে সম্ভাবনার কথা বলা হয়েছে, তা ভুল বলে মামলাকারীদের তরফে দাবি করা হয়নি। এমনকী এই উদ্যোক্তাদের তরফেই আয়োজিত রামনবমীর সমাবেশ থেকেও অশান্তি হয়েছিল বলে তিনি আদালতে দাবি করেন।
বিজেপি’র তরফে আইনজীবী অনিন্দ্য মিত্র শুনানির শেষ পর্বে বলেন, ভারতীয় সংবিধান তৈরি হওয়ার আগে ১৮৬১ সালের পুলিস আইন অনুযায়ী অনুমতি দেওয়ার প্রার্থনা খারিজ করার আগে আবেদনকারীকে ‘শো-কজ’ বা কারণ দর্শানোর নোটিস দিতে হয়। তা না করে সিদ্ধান্ত নিলে তা বাতিল হওয়া উচিত। তিনি জানান, মিছিল-সমাবেশ করার জন্য বারংবার আবেদনকারীকে আদালতের দ্বারস্থ হতে হচ্ছে। অথচ, এটি প্রতিটি রাজনৈতিক দলের গণতান্ত্রিক অধিকার। এই প্রশাসন তা মানতে চাইছে না।
এই প্রেক্ষাপটে আদালত বলেছে, র্যা লির জন্য কেউ মারা গেলে, সম্পত্তি নষ্ট হলে দলটির রাজনৈতিক নেতারা কি তার দায়িত্ব নেবেন? প্রায় ৫১ দিন ধরে যে র্যা লি চলবে, তার সিদ্ধান্ত আরও অনেক আগে নেওয়া যেতে পারত। আজ যদি র্যা লির অনুমতি দেওয়া হয়, তাহলে অল্প সময়ের মধ্যে যাবতীয় পুলিসি নিরাপত্তা ব্যবস্থার আয়োজন করা কীভাবে সম্ভব! এই অভিমত দিয়ে আদালত জানিয়েছে, সব জেলা থেকে উদ্যোক্তাদের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে এই প্রসঙ্গে প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে। মামলাকারী তার জবাব দিলে ৯ জানুয়ারি হবে মামলার পরবর্তী শুনানি।
07th  December, 2018
মৃত ব্যক্তির নামে রেশন, রাজ্যে সাড়ে ৬ লক্ষ কার্ডে

কৌশিক ঘোষ, কলকাতা : মৃত রেশন গ্রাহকদের চিহ্ণিত করতে কয়েক মাস আগে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছিল খাদ্য দপ্তর। সেই অনুসারে বিভিন্ন জেলা থেকে বিডিওদের পাঠানো তথ্য থেকে প্রায় সাড়ে ৬ লক্ষ মৃত রেশন গ্রাহককে চিহ্ণিত করা হয়েছে। তাঁদের কার্ডগুলি বাতিল করবে দপ্তর। তবে খাদ্য দপ্তর এতেই সন্তুষ্ট নয়। খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানিয়েছেন, মৃত রেশন গ্রাহকের সংখ্যা এর থেকে অনেক বেশি।
বিশদ

আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসব
মোবাইল-ট্যাবে নয়, বাচ্চারা ছবি দেখুক বড় পর্দায়, মত পরিচালক সন্দীপ রায়ের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাচ্চারা এখন মোবাইল, ট্যাবেই ছবি দেখতে অভ্যস্ত হয়ে পড়ছে। শিশু কিশোর অ্যাকাডেমির বাচ্চাদের জন্য এই চলচ্চিত্র উৎসব তাদের সঠিক জায়গায় ছবি দেখার সুযোগ তৈরি করে দিচ্ছে। মন্তব্য করলেন বিশিষ্ট চিত্র পরিচালক সন্দীপ রায়। রবিবার অষ্টম কলকাতা শিশু চলচ্চিত্র উৎসবের সূচনা অনুষ্ঠানে।
বিশদ

মহাজোটের পরের সভা দিল্লিতে, চাইছেন মমতা
ব্রিগেডের সাফল্যে জোটের পথে আরও বহু দল

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শনিবারের ব্রিগেড সমাবেশ থেকে আক্রমণের অভিমুখ নির্দিষ্ট করে দিয়েছেন সারা দেশের নানা অংশ থেকে আসা শীর্ষনেতারা। হয় একের বিরুদ্ধে এক ফর্মুলা, অথবা অন্য যেভাবে সম্ভব বিজেপি-বিরোধী ভোট ভাগাভাগি ঠেকানো- গেরুয়া শিবিরকে পর্যুদস্ত করাই এখন মহাজোটের পাখির চোখ।
বিশদ

পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তের কাছে নতুন গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণের কাজে এগিয়ে গিয়েছে ওড়িশা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের সীমান্তের কাছেই ওড়িশায় একটি নতুন গভীর সমুদ্র বন্দর তৈরির কাজ শুরুর প্রক্রিয়া অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে। ওড়িশার বালেশ্বর জেলার এই সুবর্ণরেখা বন্দরটি প্রস্তাবিত তাজপুর বন্দরের প্রতিযোগী হয়ে উঠবে বলে মনে করছেন কলকাতা বন্দরের আধিকারিকরা।
বিশদ

বাংলা ফসল বিমা যোজনায় নাম নথিভুক্ত করার সময়সীমা বাড়ল ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত 

বিশ্বজিৎ মাইতি, তমলুক, বিএনএ: বাংলা ফসল বিমা যোজনা প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করার জন্য সময়সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। যেসব অঋণী চাষি এখনও ফসল বিমা যোজনায় নাম নথিভুক্ত করতে পারেননি, আগামী ৩১জানুয়ারি পর্যন্ত তাঁরা নাম নথিভুক্ত করার সুযোগ পাবেন।  বিশদ

স্কুলে ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগের বিরুদ্ধে আন্দোলনে বিজেপি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলে ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তের সর্বাত্মক বিরোধিতায় পথে নামল বিজেপি। রবিবার দলের যুব মোর্চার তরফে প্রতিবাদ মিছিল বের করা হয়। লোকসভা ভোটের আগে এই ইস্যু নিয়ে রাজ্যজুড়ে আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে গেরুয়া শিবির।
বিশদ

৩ ফেব্রুয়ারি বামেদের ব্রিগেডে দ্বিগুণ ভিড় হবে, দাবি সূর্যকান্তের

বিএনএ, চুঁচুড়া: কৃষকের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য দাম, বেকারদের চাকরির ব্যবস্থা ও সাম্প্রদায়িক দলগুলিকে রুখতে ৩ ফেব্রুয়ারি ব্রিগেড সমাবেশে কর্মীদের অংশগ্রহণের আহ্বানে রবিবার তারকেশ্বরের জয়কৃষ্ণবাজার থেকে কামারপুকুর পর্যন্ত দু’দিনের পদযাত্রার সূচনা করলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র।
বিশদ

প্রধান শিক্ষক নিয়োগের স্কুলের তালিকা প্রকাশ করল এসএসসি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রধান শিক্ষক নিয়োগের মেধা তালিকা আগেই প্রকাশ করেছিল স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি)। রবিবার স্কুলের তালিকা প্রকাশ করল তারা। মোট ২২৪৫টি শূন্যপদের জন্য প্রথম দফায় কাউন্সেলিংয়ের জন্য ডাক পেয়েছেন ১৮৬৪ জন। 
বিশদ

জানুয়ারিতে শীতের আমেজ থাকবে, আশা করছেন আবহাওয়াবিদরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জানুয়ারি মাসের বাকি দিনগুলিতে কলকাতা সহ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে শীতের আমেজ থাকবে বলে আশা করছেন আবহাওয়াবিদরা। তবে এখনই আরও জাঁকিয়ে শীত পড়ার মতো পরিস্থিতি ঩নেই। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে তাপমাত্রার কিছুটা ওঠা-নামা চলবে। আবহাওয়াগত বিচারে শীত বলতে যা বোঝায়, তা ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত থাকে।
বিশদ

হোমিওপ্যাথি ব্যবহারের দিশা নির্ধারণে আন্তর্জাতিক সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ২০ জানুয়ারি: বিশ্বজুড়ে চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে হোমিওপ্যাথির। তাই এর ব্যবহারের সঠিক দিশা নির্ধারণে এবার উদ্যোগী হচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই লক্ষ্যে আগামী ২৩ থেকে ২৫ জানুয়ারি গোয়ায় একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজন করা হচ্ছে।
বিশদ

 ফড়েরা বিহার থেকে ধান কিনে বিক্রি করছে রাজ্যে, ঠেকাতে অভিযানে ইবি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিহারের কৃষকদের কাছ থেকে কম পয়সায় ধান কিনে এনে তা বেশি দামে এই রাজ্যে সরকারকে বিক্রি করছে ফড়েরা। এক্ষেত্রে কৃষকদের একাংশকে ব্যবহার করা হচ্ছে। বিহার লাগোয়া উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলা দিয়েই এভাবে ধান নিয়ে আসা হচ্ছে এই রাজ্যে।
বিশদ

শ্রমিক পরিবারের পড়ুয়াদের জন্য স্কলারশিপ শ্রমিক কল্যাণ পর্যদের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শ্রমিক পরিবারের পড়ুয়াদের জন্য বিশেষ স্কলারশিপ ব্যবস্থা চালু করল পশ্চিমবঙ্গ শ্রমিক কল্যাণ পর্যদ। উচ্চ মাধ্যমিক থেকে স্নাতকোত্তর পর্যায় এবং মেডিক্যাল, ইঞ্জিনিয়ারিং, পর্যদ অনুমোদিত অন্যান্য কারিগরি শিক্ষাক্রমের ক্ষেত্রে এই স্কলারশিপ কিংবা স্টাইপেন্ড দেওয়া হবে।
বিশদ

চোর ধরতে ব্যর্থ পুলিসের পরামর্শ গাড়িতে জিপিএস, গোপন ইঞ্জিন সুইচ বসানোর
প্রতি মাসে ২০০-র বেশি বাইক চুরি

শুভ্র চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা: রাজ্য জুড়েই বেড়েছে মোটরবাইক চুরির হিড়িক। যেভাবে এই দু’চাকা চোরদের দাপট বাড়ছে, তাতে রীতিমতো ঘুম ছুটেছে পুলিসকর্তাদের। চুরি আটকাতে কার্যত ব্যর্থ জেলার থানাগুলি। রীতিমতো দিশেহারা তারা। উদ্ধার হচ্ছে না সিংহভাগ বাইকই।
বিশদ

খাতা দেখতে গরহাজির শিক্ষকরা, ক্ষুব্ধ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চিঠি কলেজগুলিকে

সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: পরীক্ষার খাতা দেখার জন্য নাম পাঠানো হলেও, সেই দায়িত্ব পালনে অনীহা দেখাচ্ছেন শিক্ষকরা। এমনই অভিযোগ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের। এ নিয়ে বেজায় ক্ষুব্ধ তারা। কলেজগুলি যাতে পরীক্ষকদের খাতা দেখার জন্য চাপ দেয়, সেজন্য চিঠি পাঠিয়েছে তারা। 
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী, কলকাতা: উচ্চবর্ণের চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছেন প্রধানমমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শোনা যাচ্ছে, মধ্যবিত্তের মন রাখতে আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা আড়াই লক্ষ থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা করা হবে। কিন্তু ভোটের আগে আরও কল্পতরু হতে চান মোদি। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যের শিল্প সম্মেলন শুরু হতে চলেছে আগামী মাসেই। ফেব্রুয়ারির সাত এবং আট তারিখে বিশ্ববাংলা কনভেনশন সেন্টারে ওই সম্মেলন বসবে। বিনিয়োগ টানার ওই সামিটে এবার রাজ্য সরকার অন্যান্য সেক্টরের পাশাপাশি কৃষিজ শিল্পের উপরও বিশেষ গুরুত্ব দিতে চায়। ...

 দুবাই, ২০ জানুয়ারি (পিটিআই): মানবপাচার রুখতে ১৯৮৩ সালের অভিবাসন আইনে বদল আনতে চলেছে কেন্দ্র। নতুন খসড়া অভিবাসন বিল নিয়ে সাধারণ মানুষের মতামত চাওয়া হয়েছিল। তার সময়সীমা শেষ হওয়ার পর টনক নড়ল সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে বসবাসকারী অনাবাসী ভারতীয়দের। ...

বিএনএ, বহরমপুর: চার মাসে ১০০০জন পুরুষ ভোটারের হিসেবে মহিলার সংখ্যা ১৭জন বাড়িয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে মুর্শিদাবাদ জেলা। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, এতদিন পর্যন্ত জেলায় ১০০০ পুরুষ ভোটারের হিসেবে মহিলা ছিল ৯৪১জন।   ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মক্ষেত্রে অতিরিক্ত পরিশ্রমে শারীরিক ও মানসিক কষ্ট। দূর ভ্রমণের সুযোগ। অর্থপ্রাপ্তির যোগ। যে কোনও শুভকর্মের ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৪৫- স্বাধীনতা সংগ্রামী রাসবিহারী বসুর মৃত্যু
১৯৫০- ইংরেজ সাহিত্যিক জর্জ অরওয়েলের মৃত্যু
১৯৬৮- চারটি হাইড্রোজেন বোমা সহ গ্রিনল্যান্ডে ভেঙে পড়ল আমেরিকার বি-৫২ যুদ্ধবিমান
১৯৮৬- অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্ম 

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৩৪ টাকা ৭২.০৪ টাকা
পাউন্ড ৯০.৭৪ টাকা ৯৪.০১ টাকা
ইউরো ৭৯.৬৬ টাকা ৮২.৬৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  January, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২, ৮১৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১, ১৩৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১, ৬০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯, ২০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯, ৩০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
20th  January, 2019

দিন পঞ্জিকা

৭ মাঘ ১৪২৫, ২১ জানুয়ারি ২০১৯, সোমবার, পূর্ণিমা ১০/৫৮ দিবা ১০/৪৬। নক্ষত্র- পুষ্যা ৫০/১১ রাত্রি ২/২৭, সূ উ ৬/২২/৪৪, অ ৫/১২/৫২, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৯ মধ্যে পুনঃ ১০/৪৩ গতে ১২/৫২ মধ্যে। রাত্রি ৬/৫ গতে ৮/৪৩ মধ্যে পুনঃ ১১/২১ গতে ২/৫২ মধ্যে। বারবেলা ঘ ৭/৪৪ গতে ৯/৫ মধ্যে পুনঃ ২/২৯ গতে ৩/৫০ মধ্যে, কালরাত্রি ঘ ১০/৯ গতে ১১/৪৮ মধ্যে।
৬ মাঘ ১৪২৫, ২১ জানুয়ারি ২০১৯, সোমবার, পূর্ণিমা ১১/৩৩/৪২। পুষ্যানক্ষত্র রাত্রিশেষ ৪/৩৪/৪৬। সূ উ ৬/২৫/০, অ ৫/১০/৬, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৫১/৭ মধ্যে ও ঘ ১০/৪৩/১৬ থেকে ১২/৫২/২৪ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৩/৩৬ থেকে ৮/৪২/২৮ মধ্যে ও ১২/২১/২১ থেকে ২/৫৩/১২ মধ্যে। বারবেলা ২/২৮/৫১ থেকে ৩/৪৯/২৯ মধ্যে, কালবেলা ৭/৪৫/৩৮ থেকে ৯/৬/১৭ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/৮/১৩ থেকে ঘ ১১/৪৭/৩৪ মধ্যে।
 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
সোদপুর শ্যুটআউট কাণ্ড: ঘটনার পুনর্নির্মাণ করল পুলিস 

03:21:00 PM

মুর্শিদাবাদের বড়ঞায় বোমা ফেটে জখম স্কুলছাত্র  
পুকুরপাড়ে গোরু চড়াতে গিয়ে বোমা ফেটে জখম এক স্কুলছাত্র। ঘটনাটি ...বিশদ

02:49:57 PM

কার্শিয়াংয়ের কাছে খাদে যাত্রী বোঝাই গাড়ি 
কার্শিয়ায়ের অদূরে রোহিনী রোডে খাদে পড়ল যাত্রীবাহী গাড়ি। ঘটনায় ন'জন ...বিশদ

02:42:13 PM

লোহার গার্ডার পড়ে শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় খড়্গপুর আইআইটিতে কাজ বন্ধ করে বিক্ষোভ ঠিকা শ্রমিকদের 

12:52:00 PM

ডোভার টেরেসে গোলমাল, প্রহৃত পুলিস 
গড়িয়াহাট থানা এলাকার ডোভার টেরেসে দু'পক্ষের গোলমাল থামাতে গিয়ে প্রহৃত ...বিশদ

12:45:46 PM

পিএনবি প্রতারণা: ভারতের নাগরিকত্ব ছাড়লেন মেহুল চোকসি 
১৩,৫০০ কোটি টাকার পিএনবি ঋণ প্রতারণা কাণ্ডে প্রত্যর্পণ এড়াতে ভারতের ...বিশদ

11:40:14 AM