রাজ্য
 

নারদে অভিযুক্তদের সম্পত্তির
তালিকা তৈরি করছে সিবিআই

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নারদ স্টিংকাণ্ডে এফআইআরে নাম থাকা অভিযুক্তদের ‘প্রপার্টি ম্যাপিং’-এর কাজ শুরু করল সিবিআই। অভিযুক্ত হিসাবে যে ১৩ জনের নাম রয়েছে, তাঁদের সম্পত্তির বহর বেড়ে থাকলে কতটা বেড়েছে, তা জানা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। এক্ষেত্রে স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির সবটাই দেখা হচ্ছে। যদি কোনও নেতা-মন্ত্রী বা এমপি’র অস্বাভাবিক কিছু নজরে আসে, তখন খুঁজে দেখা হবে, এই বাড়বাড়ন্ত কী করে হল। তালিকা তৈরির ক্ষেত্রে গুরুত্ব পাচ্ছে তাঁদের সম্পত্তির হিসাব। সেই সম্পত্তি কোথা থেকে ও কীভাবে এল, নতুন সম্পত্তি তাঁরা কিনেছেন কি না, ইত্যাদি বিষয় প্রাধান্য পাবে। যে সম্পত্তির মালিক হিসাবে খাতায়-কলমে অভিযুক্তদের নাম রয়েছে, তা তাঁদের আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ কি না, তাও দেখা হবে।
এদিকে কোন পথে তদন্ত এগচ্ছে এবং কী কী তথ্যপ্রমাণ পাওয়া গিয়েছে, সেই নথি ও এফআইআরের কপি কলকাতার বিচারভবনে সিবিআইয়ের ১নং কোর্টের বিচারক চিন্ময় চট্টোপাধ্যায়ের এজলাসে বুধবার জমা পড়েছে। আগামী ১৭ মে মামলাটি ফের আদালতে উঠবে। ওইদিনই তদন্তকারী অফিসারের কাছে ফৌজদারি কার্যবিধি ১৭৩ ধারা মোতাবেক ওই রিপোর্ট তলব করেছে আদালত। এদিকে, আদালত সূত্রের খবর, এক অভিযুক্তের আইনজীবী ইতিমধ্যেই এফআইআরের সার্টিফায়েড কপি তুলে নিয়েছেন। তবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার জমা দেওয়া নথি থেকেই স্পষ্ট, তথ্য সংগ্রহের কাজ অনেকটাই সেরে ফেলেছে তারা।
প্রকাশিত ভিডিওতে মন্ত্রী-এমপি বা নেতাদের ঘুষ নিতে দেখা গিয়েছে। কিন্তু তার সঙ্গে তাঁদের সম্পত্তির সম্পর্ক কী? সিবিআইয়ের এক তদন্তকারী অফিসারের কথায়, প্রতিটি ঘুষ মামলাতেই তাঁরা সম্পত্তির পরিসংখ্যান নেন। তার তালিকা তৈরি করেন। যাতে জানা যায়, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি উৎকোচ নিয়ে থাকলে সেই টাকায় তিনি কী কী করেছেন। এটা ধরে নেওয়া হয় যে, যাঁর বিরুদ্ধে ঘুষের অভিযোগ, তিনি এর আগেও এমন কাজ করেছেন। অতীত অভিজ্ঞতা সেকথাই বলে। শুধু তাই নয়, সম্পত্তির হিসাব থেকেই বেরিয়ে আসে, অভিযুক্তের আয়ের সঙ্গে সম্পত্তির সঙ্গতি রয়েছে কি না। তাই নারদ স্টিংকাণ্ডে অভিযুক্তদের এই ধরনের তালিকা তৈরির পিছনে কোনও অস্বাভাবিকতা দেখতে পাচ্ছেন না সিবিআই আধিকারিকরা।
এক্ষেত্রে কী দেখা হচ্ছে? অভিযুক্তদের জমা দেওয়া হলফনামাকে ভিত্তি করেই এগচ্ছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। তাঁরা জেনেছেন, পুলিশকর্তা এস এন এইচ মির্জাকে বাদ দিলে বাকি ১২ জন অভিযুক্ত বিভিন্ন নির্বাচনে দাঁড়িয়েছেন। ফলে নির্বাচন কমিশনের কাছে সম্পত্তির তালিকা পেশ করেছিলেন তাঁরা। তাঁদের পেশা কী, তাও বলা হয়েছে ওই হলফনামায়। এর কপি ইতিমধ্যেই আধিকারিকরা সংগ্রহ করেছেন বলে খবর। যে পরিমাণ সম্পত্তির কথা হলফনামায় উল্লেখ করেছিলেন অভিযুক্তরা, তার বাস্তবতাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই সম্পত্তির মালিক তাঁরা কীভাবে হলেন, তার জন্য জমির কাগজপত্রও যাচাই করা শুরু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই কিছু কপি তাঁরা হাতে পেয়েছেন। যদি অভিযুক্তরা উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পত্তি পেয়ে থাকেন, তাহলে পরবর্তীকালে সেই বাড়িতে তাঁরা কোনও নতুন তল করেছেন কি না, তা’ও দেখা হচ্ছে। এমনকী পরে বাড়ির ইন্টিরিয়র ডিজাইন থেকে শুরু করে অন্য কাজ করিয়ে থাকলে, তার জন্য কত টাকা খরচ করেছেন, কোন সংস্থা সেই কাজ করেছে, সেই সংক্রান্ত বিষয়েও খোঁজখবর নিচ্ছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। আর যদি সম্পত্তি কিনে থাকেন, তাহলে তার জন্য কত টাকা খরচ হল, সেই টাকার উৎস কী, তা বের করা হবে। বিশেষত যে পরিমাণ টাকার কথা বলা হচ্ছে, তা অভিযুক্তদের আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ কি না, তা জানার চেষ্টা হচ্ছে। সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা মনে করছেন, বাড়তি কিছু সম্পত্তি থেকে যাওয়াটা আশ্চর্যের কিছু নয়। যা তাঁরা গোপন করে থাকতে পারেন। সম্পত্তির তালিকা তৈরি করতে গিয়ে সেই গোপন তথ্য বেরিয়ে আসার সম্ভাবনা রয়েছে বলে সিবিআইয়ের বক্তব্য।
21st  April, 2017
  জিএসটি: ওষুধ সরবরাহে ব্যাঘাতের আশঙ্কায় স্বাস্থ্যভবনে জরুরি বৈঠক

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জিএসটি’র জন্য ১ জুলাই থেকে ওষুধ সরবরাহ ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কায়, মঙ্গলবার জরুরি বৈঠকে বসল রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর। এদিন সংবাদমাধ্যমে এ খবর প্রকাশিত হওয়ার পর রাজ্যের স্বাস্থ্যসচিব আর এস শুক্লা ডেকে পাঠান ড্রাগ কন্ট্রোলার ডঃ চিন্তামণি ঘোষ, বিশেষ সচিব (টি ডি ই) সুবীর চট্টোপাধ্যায় এবং আরও একাধিক কর্তাকে।
বিশদ

 জিএসটি দু’মাস পিছানোর দাবিতে ফের সরব অমিত

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জিএসটি চালু হচ্ছে ১ জুলাই। কিন্তু ছোট ব্যবসায়ীরা এখনও এই কর কাঠামোর জন্য প্রস্তুত নন। ফের তা নিয়ে সরব হলেন রাজ্যের অর্থ এবং শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র।
বিশদ

কন্যাশ্রীর সাফল্য নিয়ে যাত্রাপালা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: চিৎপুরের যাত্রাপাড়াতেও এবার ঢুকে পড়ল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাধের ‘কন্যাশ্রী’। বিশ্বসেরা হওয়ার সাফল্য নিয়ে পালাকাররা বাঁধতে শুরু করেছেন চোখা চোখা সংলাপ। এনিয়ে যাত্রাজগতের কলাকুশলীদের মধ্যেও দেখা দিয়েছে উন্মাদনা। মঙ্গলবার উত্তর কলকাতার চিৎপুরের যাত্রাপাড়াতেও সেই উত্তাপ মিলল। অনেকেরই বক্তব্য, চলতি বছরে গ্রামবাংলায় কন্যাশ্রীর পাশাপাশি বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পকে সামনে রেখে তৈরি যাত্রাপালা সাধারণ মানুষের মধ্যে ঝড় তুলবেই। বিশদ

জয়েন্টের প্রথম রাউন্ড কাউন্সেলিং
ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে পড়তে নথিভুক্ত হল ৪১ হাজার নাম

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জয়েন্ট এন্ট্রান্সের প্রথম রাউন্ডের কাউন্সেলিংয়ের পর প্রায় ৪১ হাজার পড়ুয়া বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ভরতির জন্য নাম নথিভুক্ত করলেন। বোর্ড সূত্রে এমনটাই জানা গিয়েছে। গতবারও কম-বেশি এই সংখ্যক পড়ুয়াই নাম নথিভুক্ত করেছিলেন।
বিশদ

মুখ্যসচিব মলয়, জল্পনা স্বরাষ্ট্রসচিব নিয়ে

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী শুক্রবার বিকাল সাড়ে পাঁচটায় মুখ্যসচিব হিসাবে দায়িত্বভার নেবেন বর্তমান স্বরাষ্ট্রসচিব মলয় দে। সেদিনই বর্তমান মুখ্যসচিব বাসুদেব বন্দ্যোপাধ্যায় অবসর নেবেন। ওইদিনই তিনি ইনফরমেশন কমিশনার হিসাবে দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন।
বিশদ

 গোর্খাল্যান্ডের বিরুদ্ধে এবার আসরে ছাত্ররা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে মোর্চার আন্দোলনে পালটা চাপ দিতে এবার ছাত্রদেরও আসরে নামাচ্ছে রাজ্য প্রশাসন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের তরফে ফ্যাক্সের মাধ্যমে পাঠানো চিঠিতে পাহাড়ে শান্তি ফেরানোর আহ্বান করা হবে।
বিশদ

চাপের মুখে বয়স্কদের ঢাল বানিয়ে
হাঙ্গামা বাধাতে চাইছে গুরুং বাহিনী

শুভ্র চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা: পাহাড়ে গুরুং বাহিনীর উপর চাপ ক্রমশ বাড়ছে। মোর্চা সমর্থকরা পাহাড়বাসীকে ভয় দেখিয়ে ঘর থেকে বাইরে টেনে এনে মিছিল করছে। প্রশাসনকে চাপে ফেলতেই তারা ‘বিপুল মানুষের সমাগম’ করছে। তবে পুলিশ-প্রশাসনের সৃদৃঢ় পদক্ষেপের কারণে মোর্চা কিছুটা হলেও পিছু হটতে শুরু করেছে। এই অবস্থায় জোর করে হিংসা ছড়ানো ছাড়া আর কোনও পথ খোলা নেই গুরুং বাহিনীর সামনে। উদ্দেশ্য, প্রশাসনকে ফাঁদে ফেলা, যাতে তারা ভুল করতে বাধ্য হয়। তারই প্রথম পদক্ষেপ হিসাবে পাহাড়ের প্রবীণ নাগরিকদের রাস্তায় নামানোর উদ্যোগ নিয়েছে মোর্চার শীর্ষ নেতৃত্ব। তাঁদের সামনে রেখে ‘মানব ঢাল’ গড়ার পরিকল্পনা নিয়েছে মোর্চা। আসলে আন্দোলন করতে গিয়ে তাঁরা কোনওভাবে আহত হলে তাকে ইস্যু করে অশান্তি পাকানোই মোর্চার লক্ষ্য।
বিশদ

  পাহাড় ঠান্ডা করতে মমতা বাছাই পুলিশকর্তাদের দায়িত্ব দিচ্ছেন

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নেদারল্যান্ডস থেকে কন্যাশ্রীর বিশ্বসেরা শিরোপা নিয়ে ফেরার পর মঙ্গলবারই প্রথম নবান্নে আসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এসেই পাহাড় পরিস্থিতি নিয়ে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকে পাহাড়ের বর্তমান অবস্থা নিয়ে রিপোর্ট পেশ করেন রাজ্য পুলিশের ডিজি সুরজিৎ করপুরকায়স্থ।
বিশদ

  মোটর ট্রেনিং স্কুলে এবার চলবে আইআইটির ৩ মাসের পাঠক্রম

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পথ নিরাপত্তায় বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’ কর্মসূচি ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মতো রাজ্যজুড়ে নানা কর্মকান্ড চলছে। পথ দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণে যা অনেকটাই কাজে এসেছে বলে জানাচ্ছেন রাজ্য পরিবহণের কর্তারা।
বিশদ

Pages: 12345




একনজরে
নয়াদিল্লি, ২৭ জুন (পিটিআই): বিভিন্ন সমাজকল্যাণ মূলক পরিষেবা পেতে আধার কার্ড ব্যবহার বাধ্যতামূলক সংক্রান্ত কেন্দ্রীয় সরকারের বিজ্ঞপ্তির বিরুদ্ধে কোনও অন্তর্বর্তী আদেশ দিতে অস্বীকার করল সুপ্রিম ...

নয়াদিল্লি, ২৭ জুন (পিটিআই): রাজ্যগুলি করের ভাগ ছাড়তে চায়নি বলেই পেট্রপণ্য ও পানীয়যোগ্য অ্যালকোহলকে জিএসটিভুক্ত করা হয়নি। এক অনুষ্ঠানে স্পষ্টভাষাতেই একথা জানিয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী ...

কাজান, ২৭ জুন: বুধবার কাজান এরিনায় কনফেডারেশনস কাপের প্রথম সেমি-ফাইনালে চিলির মুখোমুখি পর্তুগাল। হাই-ভোল্টেজ এই ম্যাচের প্রায় সব টিকিট বিক্রি হয়ে গিয়েছে। তিন ম্যাচে সাত ...

 সংবাদদাতা, দিনহাটা: সাবেক ছিটবাসীদের অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করতে আগামী ৩০ তারিখ কর্মশালা করবে দিনহাটা মহকুমা প্রশাসন। কর্মশালায় সাবেক ছিটবাসীদের চাহিদা অনুযায়ী তাঁদের হাঁস, মুরগি পালন, গাড়ি চালানো, কম্পিউটার সহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চবিদ্যার ক্ষেত্রে সাফল্য আসবে। হিসেব করে চললে তেমন আর্থিক সমস্যায় পড়তে হবে না। ব্যাবসায় উন্নতি ... বিশদ



ইতিহাসে আজকের দিন

১৯২১- ভারতের নবম প্রধানমন্ত্রী নরসিমা রাওয়ের জন্ম
১৯৪০- নোবেলজয়ী বাংলাদেশের অর্থনীতিবিদ মহম্মদ ইউনুসের জন্ম
১৯৭২- বিজ্ঞানী ও পরিসংখ্যানবিদ প্রশান্তচন্দ্র মহলানবিশের জন্ম




ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.৬৫ টাকা ৬৫.৩৩ টাকা
পাউন্ড ৮০.৬৮ টাকা ৮৩.৪৬ টাকা
ইউরো ৭০.৯৭ টাকা ৭৩.৩৩ টাকা
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,১৯০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৭,৬৯৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,১১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,০০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,১০০ টাকা

দিন পঞ্জিকা

১৩ আষাঢ়, ২৮ জুন, বুধবার, পঞ্চমী রাত্রি ৬/৩৩, মঘানক্ষত্র রাত্রি ৭/১৭, সূ উ ৪/৫৮/২৫, অ ৬/২০/৫৯, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৯-১১/১২ পুনঃ ১/৫৩-৫/২৭ রাত্রি ৯/৫৩ পুনঃ ১২/১-১/২৬, বারবেলা ৮/১৯-৯/৫৯ পুনঃ ১১/৩৯-১/২০, কালরাত্রি ২/১৯-৩/৩৮।

১৩ আষাঢ়, ২৮ জুন, বুধবার, পঞ্চমী রাত্রি ১১/১৩/১২, মঘানক্ষত্র রাত্রি ১২/১৬/৩৩, সূ উ ৪/৫৬/২৩, অ ৬/২২/২৫, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৭/৩৫-১১/১২/৩, ১/৫৩/৪৪-৫/২৮/৪০ রাত্রি ৯/৫৩/৪৪, ১২/০/৩২-১/২৫/৪, বারবেলা ১১/৩৯/২৪-১/২০/৯, কালবেলা ৮/১৭/৫৩-৯/৫৮/৩৯, কালরাত্রি ২/১৭/৫৪-৩/৩৭/৯।
৩ শওয়াল

ছবি সংবাদ


এই মুহূর্তে
জিটিএ-র ২ প্রাক্তন সদস্য আটক, দার্জিলিং থানা ঘেরাও মোর্চার 
জিটিএ-র দুই প্রাক্তন সদস্যকে আটক করার জেরে ফের উত্তপ্ত পাহাড়। এদিন দার্জিলিং থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় মোর্চা। লোকসাং লামা ও আরবি ভূজল নামে জিটিএ-র দুই প্রাক্তন সদস্যর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে তারা। এছাড়া সকালে চকবাজারে শিশুদের দিয়ে একটি মিছিলও করা হয়। 

12:31:47 PM

বিকল লরি, এজেসি বসু রোড ফ্লাইওভারে যানজট 
কলকাতা পুরসভার একটি লরি বিকল হয়ে যাওয়ার জন্য এজেসি বসু রোড ফ্লাইওভারের পশ্চিম অভিমুখে ব্যাপক যানজট রয়েছে। 

12:08:03 PM

সিবিআই দপ্তরে হাজিরা দিলেন ম্যাথু স্যামুয়েল 
কলকাতায় সিবিআই দপ্তরে হাজিরা দিলেন নারদ কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েল। এদিন সকালে সিবিআই দপ্তরে আসেন তিনি। ম্যাথু জানান, সিবিআই তাঁকে ডেকেছিল। তাই হাজিরা দিতে এসেছেন। একটি তোলাবাজির মামলায় তাঁকে এদিন ফের মুচিপাড়া থানায় যেতে হবে বলেও সিবিআইকে জানিয়েছেন তিনি। এদিনই পরে কলকাতা হাইকোর্টেও যাবেন তিনি। 

11:58:44 AM

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন জমা দিলেন মীরা কুমার 

11:27:52 AM

কুলটিতে বাসের ধাক্কায় বাইক চালকের মৃত্যু, পথ অবরোধ 

11:20:00 AM

দার্জিলিংয়ে রাতের অন্ধকারে জিটিএ-র ইঞ্জিনিয়ারিং অফিসে আগুন মোর্চার 

11:11:49 AM