রাজ্য
 
 

 ভাইফোঁটা উপলক্ষে শুক্রবার সন্ধ্যা থেকেই মিষ্টির দোকানগুলিতে বোনেদের ভিড়। কলকাতায় তোলা অতূণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি

 ৩৮০টি কর্মী সংগঠনের সঙ্গে কথা
পুজোর পরই দপ্তরের প্রধানদের সঙ্গে
বৈঠক, গতি পেয়েছে বেতন কমিশন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বেতন কাঠামো ঠিক করতে ২০১৭ সালের ২৭ নভেম্বর ষষ্ঠ বেতন কমিশন গঠন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই কমিশনের দপ্তরে সরকারি কর্মচারী ও কর্মচারীদের সংগঠন মিলিয়ে এক হাজারের বেশি আবেদনপত্র জমা পড়ে। যা নিয়ে শুনানি করতে গিয়ে হিমশিম অবস্থা হয় কমিশনের কর্তাদের। সোমবার পর্যন্ত ৩৮০টি কর্মী সংগঠনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলেছেন বেতন কমিশনের কর্তারা। আরও কিছু কর্মী সংগঠনের সঙ্গে কথা বলা এখনও বাকি। এবার রাজ্যের ৫২টি দপ্তরের প্রধানকে চিঠি পাঠিয়ে দপ্তরের কর্মীসংখ্যা থেকে শূণ্যপদ এবং বেতন কাঠামোসহ বিস্তারিত তথ্য চেয়ে পাঠানো হল। আগামী মাসের মধ্যে তা এসে গেলে পুজোর পর দপ্তরের প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন বেতন কমিশনের চেয়ারম্যান অভিরূপ সরকারসহ অন্য কর্তারা। এরপরই বেতন কমিশন তার রিপোর্ট পেশ করবে বলে জানা গিয়েছে। তবে আগামী ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত বেতন কমিশনের মেয়াদ রয়েছে।
এদিন কমিশনের অফিসারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গিয়েছে, বহু কর্মী লিখিতভাবে তাঁদের অভাব-অভিযোগ জানিয়েছেন বেতন কমিশনকে। তার মধ্যে অন্যতম ছিল কেন্দ্রীয় হারে মহার্ঘভাতা বা ডিএ না পাওয়া। কার্যত কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের সঙ্গে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বৈষম্যের বিষয়টি চিঠিতে স্থান পেয়েছিল। কিন্তু সব কর্মীকে ডাকা সম্ভব নয় বলে কমিশন সিদ্ধান্ত নেয়। কমিশন ঠিক করে, প্রথমে কর্মচারী সংগঠনকে ডাকা হবে। তারপর বেছে বেছে কিছু ব্যক্তিকে শুনানির জন্য ডাকা হবে। বিশেষ করে পুলিশের কোনও সংগঠন না থাকায় তাদের হয়ে বলার কেউ নেই। রাজ্যে পুলিশের কোনও স্তরেই সংগঠন নেই। তাই কয়েকজন পুলিশ কর্মীকে ডাকার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিছুদিন পরে তাঁদের ডাকা হবে। সেই তালিকা তৈরির কাজ চলছে।
আগে শুনানির সময় কম থাকায় বিভিন্ন কর্মচারী সংগঠনের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছিল। তারা শুনানির সময় বাড়ানোর দাবি জানায়। বর্তমানে সময় বাড়িয়ে সপ্তাহে চারটি কাজের দিনে শুনানি চলছে। কমপক্ষে তিনটি কর্মচারী সংগঠনকে একদিনে শুনানির জন্য ডাকা হয়। শুনানির জন্য দুটি টিম তৈরি করা হয়েছে। একটি টিমে চারজন এবং অন্য টিমে পাঁচজন করে কমিশনের সদস্য রয়েছেন। চেয়ারম্যান অভিরূপ সরকারকে নিয়ে কমিশনের সদস্য সংখ্যা আট। আবেদনের সংখ্যা এত বেশি যে, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে রিপোর্ট প্রকাশ করা যায়নি বলে কমিশনের তরফে বলা হচ্ছে।
কমিশনের এক অফিসার বলেন, আবেদনপত্রগুলি বাছাই করে শুনানির জন্য ডাকতে সময় লেগেছে। এখন দ্রুত শুনানি চলছে। গোটা রাজ্য থেকেই অধিকাংশ কর্মচারী সংগঠনকে ডাকা হয়েছে। তাদের বক্তব্য শোনা হয়েছে। শুনানির কাজ শেষ না হওয়ায় বেতন কমিশনের মেয়াদ দু’বার বৃদ্ধি করা হয়েছে। প্রায় দু’বছর ধরে কাজ করছে কমিশন। এবার আর কয়েকজনের বক্তব্য শোনার পর রাজ্য সরকারের প্রতিটি দপ্তরের বক্তব্য শোনা হবে। শূণ্যপদ, কর্মীসংখ্যা, তাঁদের বেতন কাঠামো, বিভিন্ন দপ্তরের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ এসেছে, তা খতিয়ে দেখতে দপ্তরের প্রধানদের ডাকা হয়েছে। তাঁদের কাছেও রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে। সেই রিপোর্ট পাওয়ার পরই আলোচনা করে চূড়ান্ত রিপোর্ট পেশ করা হবে। আগামী বছরের শুরুতেই বেতন কমিশনের রিপোর্ট প্রকাশ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে।
18th  July, 2017
ভাইফোঁটার দিনেও বৃষ্টির ছাড় নেই, উত্তরে ভারী বর্ষণ, বিকালের পর থেকে দক্ষিণে উন্নতি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাঙালির কোনও উৎসবকেই ছাড় দিচ্ছে না বৃষ্টি। এবার দুর্গাপুজোর পর বৃহস্পতিবার কালীপুজোর দিনও বৃষ্টি কম-বেশি ভুগিয়েছে। উৎসবের এই মরশুমে বাঙালির শেষ উৎসব, আজ শনিবার ভাইফোঁটার দিনও নিম্নচাপের জেরে রাজ্যজুড়ে বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। তুলনামূলকভাবে বেশি বৃষ্টি হবে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে।
বিশদ

 হোমিওপ্যাথিক ওষুধে ঠেকানো যাচ্ছে ডেঙ্গু, দাবি চিকিৎসকদের

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: ডেঙ্গুতে ভালো কাজ দিচ্ছে হোমিওপ্যাথি। এমনই দাবি করছেন রাজ্যের খ্যাতনামা হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকরা। বিশেষত, যেসব জায়গা ডেঙ্গুপ্রবণ বা যেখানে কাতারে কাতারে মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন, আশপাশের বাড়ি ও এলাকায় ডেঙ্গু রোগীর ভিড়—সেখানে হোমিওপ্যাথিক ওষুধ ‘ইউপেটোরিয়াম পারফোলিয়েটাম’ প্রতিরোধক হিসাবে অসম্ভব ভালো কাজ করছে।
বিশদ

কলকাতায় দূষণের মাত্রা বাড়ল পাঁচগুণ
দেওয়ালির রাতে বাজির দাপট

  রাহুল দত্ত, কলকাতা : বৃষ্টির দৌলতে এবার কালীপুজোয় বায়ুদূষণ অনেকটাই কমবে, এমনটাই আশা করেছিলেন দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের কর্তারা। সন্ধ্যা পর্যন্ত শহর ও শহরতলিতে বাজির তেমন দাপট না থাকায় আশা করা হয়েছিল, এবার গতবারের কালীপুজোর তুলনায় দূষণ কমবে। কিন্তু সেই আশা সেভাবে পূরণ হল না। কারণ, শুক্রবার তথ্য সংগ্রহের পর দেখা গেল, রাত যত গড়িয়েছে, বাজি তত বেশি ফেটেছে। বায়ুদূষণের মাত্রাও ততই লাফিয়ে বেড়েছে।
বিশদ

ক্ষতিগ্রস্ত মণ্ডপ  ভেঙে পড়ল প্রতিমা
ঝড়-বৃষ্টিতে কলকাতাসহ
রাজ্যেই বিপর্যস্ত দীপাবলী

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা এবং বিএনএ: নিম্নচাপের জেরে প্রবল বৃষ্টিতে কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে কালীপুজো-দীপাবলীর উৎসবের আনন্দ অনেকটাই মাটি হয়ে গেল। শুক্রবার কালীপুজোর দিন হালকা থেকে মাঝারি মাত্রায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে অসুবিধার মধ্যেও উৎসবের আনন্দে মেতেছিল মানুষ। কিন্তু রাত বাড়তেই বৃষ্টির মাত্রা বাড়তে থাকে। ম্লান হতে থাকে উৎসবের আনন্দ। শুক্রবার সকাল থেকে দফায় দফায় প্রবল বৃষ্টিতে জনজীবন অনেকটাই বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে।
বিশদ

প্রবল বর্ষণে দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ অংশ জলমগ্ন, খোলা হল কন্ট্রোল রুম

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নিম্নচাপের ফলে প্রবল বষর্ণের জন্য কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ অংশ জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। দুই মেদিনীপুর, বর্ধমান, হাওড়া, হুগলি, কলকাতা, দুই দক্ষিণ ২৪ পরগনায় প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে। পরিস্থিতির উপর নজর রাখতে ২৪ ঘণ্টা কন্ট্রোল রুম খুলতে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
বিশদ

দফায় দফায় বৃষ্টির জন্য পুরো নভেম্বর মাসই রাজ্যবাসীকে ভোগাতে পারে ডেঙ্গু
সতর্ক করলেন স্বাস্থ্য অধিকর্তা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দফায় দফায় বৃষ্টির জন্য নভেম্বর মাসজুড়ে রাজ্যবাসীকে ভোগাতে পারে ডেঙ্গু। শুক্রবার এ কথা জানালেন রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডাঃ বিশ্বরঞ্জন শতপথী। এদিন সন্ধ্যায় তিনি বলেন, এখনও পর্যন্ত ডেঙ্গুর যা অবস্থা, ধারণা করা হচ্ছিল, হয়তো বা নভেম্বরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত ভোগাবে এই রোগ। কিন্তু, দফায় দফায় বৃষ্টি সেই ধারণা ওলটপালট করে দিয়েছে। আমার আশঙ্কা, নভেম্বরের শেষ পর্যন্ত দাপটের সঙ্গে ডেঙ্গু চলতে থাকলেও আশ্চর্য হব না।
বিশদ

 মশার লার্ভা মারতে পোড়া মোবিলের দাওয়াই, গাড়ির গ্যারাজে চাহিদা তুঙ্গে

 দীপ্তিমান মুখোপাধ্যায়, কলকাতা: গাড়ির গ্যারাজে লোকজনের ভিড় ক্রমশ বাড়ছে। না গাড়ি মেরামতের জন্য নয়। পোড়া মোবিলের খোঁজে এখন দমদম থেকে সল্টলেক—সর্বত্রই চষে বেড়াচ্ছেন লোকজন। ব্যতিক্রম নয় বিরাটি, নিমতা এলাকাও।  পুরসভার স্বাস্থ্য দপ্তরের অফিসাররা বলেছেন, পোড়া মোবিল নর্দমা বা জমা জলে দিলে মশার লার্ভা খুব দ্রুত মরে যায়।
বিশদ

পাহাড়ে উন্নয়নের কাজ শেষ হলেই দিতে হবে ইউসি, জিটিএ’কে বলল নবান্ন

সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: পাহাড়ে যে কোনও উন্নয়নমূলক কাজের শেষে ইউটিলাইজেশন সার্টিফিকেট (ইউসি) জমা দিতে বলা হল জিটিএ’কে। নবান্ন থেকে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, যে কোনও কাজের শেষে ইউটিলাইজেশন সার্টিফিকেট সঠিক সময়ে জমা দিলে অডিটের ক্ষেত্রে কোনও অসুবিধা হয় না।
বিশদ

শ্রমিক বিক্ষোভের জেরে নভেম্বরে রাজধানীর রাজনীতি সরগরম হবে
বিরোধীদের পালের হাওয়া কাড়তে মোদিবিরোধী অভিযানের ডাক আরএসএসপন্থী বিএমএস-এর

 জীবানন্দ বসু, কলকাতা: দেশের শ্রমিক সমাজের মধ্যে নানা কারণে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ ধূমায়িত হচ্ছে। নোটবন্দির ফলে কর্মচ্যুত হওয়ার ঘটনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের শ্রম আইন তুলে দেওয়া বা সংশোধন করার প্রস্তাব ঘিরে তাদের মধ্যে এই কেন্দ্রবিরোধী অসন্তোষ তৈরি হয়েছে।
বিশদ

শূন্যপদের সংখ্যা কত, জানাল না কমিশন
অধ্যক্ষ নিয়োগ: আবেদনের শেষ দিন ১৫ নভেম্বর

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নতুন করে অধ্যক্ষ নিয়োগের জন্য আবেদন গ্রহণ শুরু করল রাজ্য কলেজ শিক্ষক কমিশন। ১৫ নভেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করা যাবে। আর ২৪ নভেম্বর বিকাল চারটের মধ্যে আবেদনপত্রের প্রিন্ট আউট এপিআই ফরম্যাট পূরণ করে জমা দিতে হবে।
বিশদ

এবার লাল-সবুজ আলোই দিশা দেখাবে বেসরকারি বাসের যাত্রীদের, জানতে পারবেন হাল-হকিকৎ

 প্রসেনজিৎ কোলে, কলকাতা: দূরে থাকা কোনও বেসরকারি বাসে ভিড় রয়েছে কি না, তা এবার স্টপেজে দাঁড়িয়েই জানতে পারবেন যাত্রীরা! পরিবহণ দপ্তর এবং বাস মালিক সংগঠন সূত্রের খবর এমনটাই। কিছুদিনের মধ্যেই এই নয়া ব্যবস্থা চালু হয়ে যাবে কলকাতার একাংশে।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
 ইসলামাবাদ, ২০ অক্টোবর (পিটিআই): দুর্নীতি সংক্রান্ত তৃতীয় মামলাতেও ধাক্কা খেলেন পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। বিদেশে এবং অন্যান্য সংস্থায় বিনিয়োগ নিয়ে নওয়াজকে অভিযুক্ত করেছে আদালত। এই মামলায় নওয়াজ দোষী সাব্যস্ত হলে তাঁর কারাদণ্ড হতে পারে। ...

সমৃদ্ধ দত্ত,নয়াদিল্লি, ২০ অক্টোবর: নোট বাতিল ও জিএসটি। এই দুটি ইস্যুই আগামী নির্বাচনে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা করছে বিজেপি ও সরকার। গুজরাত থেকে ...

বিএনএ, আরামবাগ: শুক্রবার গোঘাটের ভিকদাস এলাকায় একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে সিলিং ফ্যান মাথায় পড়ে গিয়ে এক কর্মী জখম হয়েছেন। সুনীল বাগ নামে ওই কর্মীকে আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাত বাড়তেই বেড়েছিল শব্দবাজির দৌরাত্ম্য। সেই দাপটকে নিয়ন্ত্রণে এনে কলকাতা পুলিশ কালীপুজোর দিনেই গ্রেপ্তার করল ৩৬৯ জনকে। আটক করা হয়েছে ৭৬৩ কেজি ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

নিকটবন্ধু দ্বারা বিশ্বাসঘাতকতা। গুরুজনদের স্বাস্থ্যহানি। মামলা-মোকদ্দমায় পরিস্থিতি নিজের অনুকূলে থাকবে। দাম্পত্যজীবনে ভুল বোঝাবুঝিতে সমস্যা বৃদ্ধি।প্রতিকার: ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮০৫: ত্রাফালগারের যুদ্ধে ভাইস অ্যাডমিরাল লর্ড নেলসনের নেতৃত্বে ব্রিটিশ নৌবাহিনীর কাছে পরাজিত হয় নেপোলিয়ানের বাহিনী
১৮৩৩: ডিনামাইট ও নোবেল পুরস্কারের প্রবর্তক সুইডিশ আলফ্রেড নোবেলের জন্ম
১৮৫৪: ক্রিমিয়ার যুদ্ধে পাঠানো হয় ফ্লোরেন্স নাইটেঙ্গলের নেতৃত্বে ৩৮ জন নার্সের একটি দল
১৯৩১: অভিনেতা শাম্মি কাপুরের জন্ম
১৯৪০: আর্নেস্ট হেমিংওয়ের প্রথম উপন্যাস ফর হুম দ্য বেল টোলস-এর প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয়
১৯৪৩: সিঙ্গাপুরে আজাদ হিন্দ ফৌজ গঠন করলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু
১৯৬৭: ভিয়েতনামের যুদ্ধের প্রতিবাদে আমেরিকার ওয়াশিংটনে এক লক্ষ মানুষের বিক্ষোভ হয়
২০১২: পরিচালক ও প্রযোজক যশ চোপড়ার মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৪.২০ টাকা ৬৫.৮৮ টাকা
পাউন্ড ৮৩.৭৮ টাকা ৮৬.৬৩ টাকা
ইউরো ৭৫.৬০ টাকা ৭৮.২৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,১৩৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৫৯০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৯,০২০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
20th  October, 2017

দিন পঞ্জিকা

৪ কার্তিক, ২১ অক্টোবর, শনিবার, দ্বিতীয়া রাত্রি ৩/১, নক্ষত্র-স্বাতী, সূ উ ৫/৩৯/১৭, অ ৫/৩/২৯, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/২৫ মধ্যে পুনঃ ৭/১০ গতে ৯/২৭ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৪ গতে ২/৪৬ মধ্যে পুনঃ ৩/৩২ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ঘ ১২/৩৮ গতে ২/১৮ মধ্যে, বারবেলা ঘ ৭/৫ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৭ গতে ২/১২ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৭ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ঘ ৬/৩৮ মধ্যে পুনঃ ৪/৬ গতে উদয়াবধি।
৪ কার্তিক, ২১ অক্টোবর, শনিবার, দ্বিতীয়া রাত্রি ১/৩০/৪৬, স্বাতীনক্ষত্র, সূ উ ৫/৩৯/৪, অ ৫/৩/১৫, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/২৪/৪১ মধ্যে ও ৭/১০/১৭-৯/২৭/৮ মধ্যে ও ১১/৪৩/৫৮-২/৪৬/২৫ মধ্যে ও ৩/৩২/১-৫/৩/১৫ মধ্যে। রাত্রি ঘ ১২/৩৬/৪৫-২/১৭/৩১ মধ্যে, বারবেলা ১২/৪৬/৪১-২/১২/১২, কালবেলা ৭/৪/৩৫ মধ্যে, ৩/৩৭/৪৩-৫/৩/১৫, কালরাত্রি ৬/৩৭/৪৪ মধ্যে, ৪/৩/৩-৫/৩৭/৩২ মধ্যে।
৩০ মহরম 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
উচ্চরক্তচাপের সমস্যা, হাসপাতালে উপ-রাষ্ট্রপতি 
উচ্চরক্তচাপ ও সুগারের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভরতি হলেন ...বিশদ

20-10-2017 - 08:59:00 PM

প্রায় ৭০০টি ট্রেনের গতি বাড়তে চলেছে 

নভেম্বরে ভারতীয় রেল প্রায় ৭০০টি-র মতো দুরপাল্লার ট্রেনের গতি বাড়াতে ...বিশদ

20-10-2017 - 07:47:47 PM

নির্বাসন না তুললে অন্য দেশের হয়ে খেলার ইঙ্গিত দিলেন নির্বাসিত শ্রীসন্থ

20-10-2017 - 06:55:00 PM

 প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের দাদা পীযূষ মুখোপাধ্যায় প্রয়াত

20-10-2017 - 06:05:00 PM

প্রবল বৃষ্টি, সেচ দপ্তরে চালু কন্ট্রোল রুম

প্রবল বৃষ্টিতে নজর রাখতে সেচ দপ্তরে চালু কন্ট্রোল রুম। মনিটরিং ...বিশদ

20-10-2017 - 04:28:40 PM

কানপুরে প্ল্যাস্টিকের গোডাউনে আগুন, ঘটনাস্থলে দমকলের ৬টি ইঞ্জিন

20-10-2017 - 04:08:00 PM

দুপুরের পর থেকে আলিপুরদুয়ারে শুরু বৃষ্টি

20-10-2017 - 03:52:00 PM