রাজ্য
 

‘বিকল্প শক্তি হয়ে উঠছে বিজেপি’
বাংলায় সরকার বিরোধিতার হাওয়া
উঠতে শুরু করেছে: অমিত শাহ

জয়ন্ত চৌধুরী, কলকাতা: কলকাতায় তিনদিন সাংগঠনিক কাজে নিজেকে ব্যস্ত রেখেছিলেন বিজেপি’র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তারই ফাঁকে পোর্ট ট্রাস্টের গেস্ট হাউসে বর্তমানের মুখোমুখি হন তিনি। রাজ্যে তাঁদের প্রধান প্রতিপক্ষ তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই, সাংগঠনিক প্রস্তুতি, আন্দোলনের অভিমুখ, দল ভাঙানো, সিবিআই তদন্ত ইত্যাদি নিয়ে একান্ত সাক্ষাৎকারে মুখ খুললেন অমিত শাহ।

প্রশ্ন: বাংলায় আপনারা ক্ষমতা দখলের স্বপ্ন দেখছেন। মানুষকেও তা দেখাচ্ছেন। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনপ্রিয়তায় ভাটার লক্ষণ নেই। তা সত্ত্বেও ...
অমিত শাহ: বাংলার মানুষ বামপন্থীদের হটিয়েছিল। এখন তারা দেখছে তৃণমূল কীভাবে হিংস্র হয়ে উঠেছে। তাই সরকার বিরোধিতার (অ্যান্টি ইনকামবেন্সি) হাওয়া উঠতে শুরু করেছে। বাংলার মানুষ বিকল্প খুঁজছে। ভারতীয় জনতা পার্টি সেই বিকল্প শক্তি হয়ে উঠছে। অত্যাচারের বিরুদ্ধে মানুষ এক হচ্ছে। তারা পরিবর্তন চাইছে।
প্রশ্ন: মানুষ জাগছে, কীসের ভিত্তিতে আপনার এমন ধারণা হল?
অমিত শাহ: দেখুন একদিকে দুর্নীতি বেড়ে চলেছে। তার উপরে অনুপ্রবেশ একটা বড় ব্যাপার। চলছে তোষণের রাজনীতি। এরাজ্যে শাসকদল যে তোষণের রাজনীতি করছে, তা রাজ্য সরকারের নানা কাজেই স্পষ্ট। মানুষ এই তুষ্টিকরণের রাজনীতি ধরে ফেলেছে। তারা একে ভালো চোখে দেখছে না। এর সঙ্গে মানুষের, দেশের নিরাপত্তার প্রশ্ন রয়েছে। বোমা তৈরির কারখানা হচ্ছে, অথচ শিল্প-কারখানা নেই। আবার এই সরকার তার কর্মীদের ডিএ দিচ্ছে না। সরকারি কর্মীদের সঙ্গে কীরকম ব্যবহার করা হচ্ছে, সেটাও দেখতে পাচ্ছে মানুষ। অথচ কেন্দ্রের পাঠানো উন্নয়নের টাকা নয়ছয় হচ্ছে। উন্নয়ন থমকে যাচ্ছে। গতি পাচ্ছে না। এসব নিয়ে বলতে গেলে সন্ত্রাস হচ্ছে।
প্রশ্ন: কিন্তু উন্নয়ন হচ্ছে বলেই তো তৃণমূলের প্রতি মানুষের সমর্থন বেড়েছে, তাই নয় কি?
অমিত শাহ: আপনি নিশ্চয়ই লক্ষ্য করেছেন, সাম্প্রতিক অতীতে যে যে স্তরে ভোট হয়েছে, সেখানেই বিজেপি’র ভোট বেড়েছে। দ্রুত দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসছে বিজেপি। তার মানে, মানুষ অন্য কাউকে নয়, তৃণমূলের বিকল্প হিসাবে বিজেপিকেই ভাবছে। খেয়াল করেছেন তো, কীভাবে অন্য বিরোধীদের সমর্থন আলগা হচ্ছে। তার উপরে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জনপ্রিয়তা, যা সহায়ক ভূমিকা নিচ্ছে।
প্রশ্ন: আপনি কি বলতে চাইছেন, পরিবর্তনের পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে?
অমিত শাহ: অবশ্যই। মানুষের এই আশাকেই কাজে লাগাচ্ছি আমরা। এই পরিস্থিতিকে ‘এনক্যাশ’ করতে পারলে পরিবর্তন হবেই।
প্রশ্ন: কিন্তু সেই কাজ করতে হলে সংগঠিত দলের প্রয়োজন। আপনাদের দলে তো তপন শিকদারের পর তেমন কোনও জনপ্রিয় মুখ তৈরি হয়নি। এখন যাঁরা রয়েছেন, তাঁদের রাজনৈতিক বা সাংগঠনিক অভিজ্ঞতা কম। তাহলে এই সংগঠন কীভাবে এই পরিস্থিতিকে ‘এনক্যাশ’ করতে পারবে?
অমিত শাহ: আমি তিনদিন ধরে সংগঠনের কাজে এই শহরে রয়েছি। কার্যকর্তাদের সঙ্গে সংগঠন নিয়ে চর্চা করেছি। জোর দিয়েছি, বুথ কমিটির উপর। সংগঠনকে বুথ স্তর থেকে শক্তিশালী করাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। মনে রাখবেন, নেতা পরিস্থিতি তৈরি করে দেয়। উত্তরপ্রদেশে যখন নেমেছিলাম, তখন কে নেতা ছিল, কেউ জানে না। কিন্তু সরকার বিরোধী ঢেউ যখন উঠল, তখন মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে লড়াই করেছে বিজেপি। আন্দোলনের মধ্যে দিয়েই নেতা উঠে এসেছে। ভোটের আগে কেউ জানত না নেতা কে হবেন? এখানেও সরকার বিরোধী হাওয়া উঠেছে। এখানে আমরা বুথ স্তরের সংগঠনকেই অগ্রাধিকার দিয়েছি। বিভিন্ন স্তরের কার্যকর্তার সঙ্গে এসব নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে।
প্রশ্ন: আপনি এত কিছু বললেও মানুষের মধ্যে মমতার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে...
অমিত শাহ: আবার দুর্নীতি যে কী পর্যায়ে হতে পারে, তাও দিদির সরকার দেখিয়েছে (হাসতে হাসতে)। আপনি কী বলছেন! টিভিতে মানুষ দেখেছে, কীভাবে তৃণমূল নেতারা টাকা নিচ্ছেন। সব তো স্পষ্ট দেখা গিয়েছে। মানুষ সেটাও বুঝতে পারছে। এদিকে কেন্দ্র যে টাকা দিচ্ছে রাজ্যকে, তা নয়ছয় হচ্ছে। এসব মানুষ দেখছে। এটাকে কাজে লাগাতে হবে। তাই বুথে সংগঠন দরকার। সাধারণ নির্বাচনে কেউ রিগিং করতে গেলে বুথের মানুষই তা রুখবে। আবারও বলছি, সরকার বিরোধী হাওয়া উঠলে রিগিং করেও লাভ হবে না তৃণমূলের।
প্রশ্ন: দুর্নীতির তদন্তের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়েও তো প্রশ্ন উঠেছে। মমতা বলেছেন, রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে না পেরে বিজেপি সিবিআই, ইডি, ইনকাম ট্যাক্স এসব সংস্থাকে কাজে লাগাচ্ছে, প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে বিজেপি...
অমিত শাহ: দেখুন, সিবিআই বা ইডি কী করবে, কী করবে না, তা সম্পূর্ণ তাদের ব্যাপার। আমার জানার কথা নয়। ওরা স্বাধীন অর্গানাইজেশন...
প্রশ্ন: কিন্তু কেন্দ্রের শাসক দল আপনারা। আপনাদের কোনও ভূমিকা নেই, এটা কি হতে পারে? সারদা বা নারদ তদন্ত নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে বলে অভিযোগ। কী বলবেন?
অমিত শাহ: তদন্ত যেমন হওয়ার হচ্ছে। আমরা কংগ্রেসের মতো সিবিআইকে গাইড করি না। তবে আমি এটুকু বলতে পারি, তদন্তের পরিণতি যা হওয়ার হবে। দেখতে পাবেন। কেউ তা রুখতে পারবে না।
প্রশ্ন: আপনারা অসমে দল ভাঙিয়েছেন, সরকারও গড়েছেন। এরাজ্যে শাসকদল তৃণমূলকেও কি ভাঙতে চাইছেন?
অমিত শাহ: কে বলেছে? অসমে মুখ্যমন্ত্রী বিজেপি’র। আমাদের দলে কেউ আসতে চাইলে সেটা আলাদা ব্যাপার। আমি চাই না তৃণমূল ভেঙে যাক। আমরা আমাদের দলকে শক্তিশালী করার কাজে ব্যস্ত রয়েছি। তৃণমূলকে ভাঙানোর কোনও পরিকল্পনা আমাদের নেই। কিন্তু এটাও মনে রাখা দরকার, তৃণমূলকে অটুট রাখার দায়িত্ব দিদির। এ বিষয়ে আমাদের কিছু করার নেই।
14th  September, 2017
২ মোর্চা নেতা নবান্নে, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক
গোপনে পাহাড় ছেড়ে কলকাতায় বিনয়রা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পাহাড়ের বন্ধ চা-বাগান শ্রমিকদের বকেয়া বোনাস উৎসব পর্ব শুরু হওয়ার আগেই মিটিয়ে দেওয়ার জন্য বাগান মালিকদের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আচমকাই পাহাড় ছেড়ে নবান্নে এসে সোমবার বোনাসের দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছিলেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার চিফ কোঅর্ডিনেটর বিনয় তামাং ও অনীত থাপা। একই বিষয়ে মুখ্যসচিব মলয় দে আহুত একটি জরুরি বৈঠকেও অংশ নেন মোর্চার দুই নেতা। বৈঠক শেষে মোর্চার দুই নেতা এবং মুখ্যসচিবকে সঙ্গে নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন, টানা বন্‌ধের জেরে দুর্দশার মধ্যে রয়েছেন চা-বাগান শ্রমিকরা। ১৬-১৭ আর্থিক বছরের বোনাস তাঁরা পাননি। মালিকদের বলছি, বোনাস দিন। তা না হলে অন্য ব্যবস্থা করতে হবে। অসহনীয় অবস্থায় পড়া শ্রমিকদের প্রতি মালিকরা যে সহমর্মিতা জানাবেন, তারও ভরসা রেখেছেন মমতা। 
বিশদ

ফের বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে
উদ্বেগ উদ্যোক্তাদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পুজোয় কী হবে তা এখনও অনিশ্চিত। কিন্তু প্রাক পুজোয় বৃষ্টি থাকছে। জোড়া ঘূর্ণাবর্তর প্রভাবে আজ, মঙ্গলবার মহালয়ার দিন দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির অনুকূল পরিস্থিতি রয়েছে। কাল, বুধবারও বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। 
বিশদ

বিশ্ব ব্যাংকের ৩৫০০ কোটি ঋণে জলপথে বিরাট পরিকল্পনা
বেআইনি ভুটভুটির পরিবর্তে উন্নত জলযানের নকশা প্রকাশ শুভেন্দুর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিশ্ব ব্যাংকের সহায়তায় জলপথ পরিবহণ নিয়ে বিরাট পরিকল্পনা করেছে রাজ্য। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্পে অত্যাধুনিক জলযান নামানো থেকে শুরু করে গঙ্গায় গাড়ি পারাপারে রোরো পরিষেবা চালু, জলপথে পর্যটন পরিকাঠামো তৈরি, সুন্দরবনের মতো প্রান্তিক এলাকায় হাসপাতাল থেকে রোগী নিয়ে যাওয়া-আসার ব্যবস্থা করা হবে।
বিশদ

বিসর্জন নিয়ে রায় স্থগিত,
কাল হাইকোর্টে ফের শুনানি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দুর্গাপুজোর বিসর্জন নিয়ে রায় ঘোষণা হল না সোমবার। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এদিন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিশীথা মাত্রে ও বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর ডিভিশন বেঞ্চকে জানানো হয়, দশমীর দিন রাত ১০টার মধ্যে প্রতিমা নিয়ে ঘাটে পৌঁছাতে হবে। এই সময়সীমা বৃদ্ধি করা সম্ভব নয়। এই অবস্থায় আরেকটি মামলার সওয়াল সূত্রে এদিন রায়দান স্থগিত করে দেওয়া হয়।
বিশদ

দক্ষিণ-পূর্ব রেল
ভিড় এড়াতে উৎসবের মাসে প্ল্যাটফর্ম টিকিটের দাম দ্বিগুণ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উৎসবের দিনগুলিতে ভিড় নিয়ন্ত্রণে এবার প্ল্যাটফর্ম টিকিটের দাম দ্বিগুণ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব রেল। এই সিদ্ধান্তের খবর চাউড় হতেই নানা মহলে চর্চা শুরু হয়েছে। সাধারণত ভাড়া সংক্রান্ত ব্যাপারে ঘোষণা করা হয় দিল্লি থেকে।
বিশদ

কেন্দ্র টাকা পাঠায়নি, পুজোর আগে বেতন অনিশ্চিত এসএসকে-এমএসকে শিক্ষকদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসবের আর সপ্তাহখানিক মাত্র বাকি। আর পাঁচজন যখন শেষ মুহূর্তের মার্কেটিং করতে ব্যস্ত, তখন মাসের বেতন কবে হবে তা নিয়ে হা পিত্যেশ করে বসে রয়েছেন রাজ্যের ৫৪ হাজার এমএসকে-এসএসকে শিক্ষক।
বিশদ

ভারপ্রাপ্ত হিসাবে কেন? অবসরের আগে ক্ষোভ বিচারপতি মাত্রের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভারতের প্রাচীনতম হাইকোর্ট তার অতীত গরিমা হারিয়েছে। তা পুনরুদ্ধারে বিচারপতি-আইনজীবীদের সক্রিয় ভূমিকা নিতে হবে। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসাবে অবসর গ্রহণের প্রাক্কালে তাঁর সম্মানে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এমনই আবেদন জানালেন নিশীথা মাত্রে।
বিশদ

স্টুডেন্টস কাউন্সিল
শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক ব্যর্থ, বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি যাদবপুরের পড়ুয়াদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: স্টুডেন্টস কাউন্সিল নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের বৈঠক নিষ্ফলা হল। আর তার জেরে পুজোর পর বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে রাখলেন তাঁরা। তবে আন্দোলনের রূপরেখা ঠিক করতে আগামীকাল, বুধবার ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে ছাত্র প্রতিনিধিরা জানান।
বিশদ

উৎসবে কেউ হাঙ্গামা বাধালে রুখব: মমতা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উৎসবের মরশুমে হাঙ্গামা বাধানোর চেষ্টা হলে যে কোনও মূল্যে রুখব। সোমবার শ্রীভূমিতে পুজোর উদ্বোধনে এসে সতর্ক করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, পুজোর সময় মহরম পড়লে আমি কী করব? আমি কী পাঁজি তৈরি করি? দশমীতে সিঁদুর খেলা বা বিসর্জন—যা হয়, তা সবই হবে, উৎসবের সঙ্গে হবে।
বিশদ

বিধায়কদের দৈনিক ভাতা দ্বিগুণ করার উদ্যোগ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যের বিধায়কদের জন্য ফের সুখবর আসতে চলেছে। অর্থ দপ্তর সবুজ সংকেত দিলে তাঁদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ এক হাজার থেকে বেড়ে দু’হাজার টাকা হতে চলেছে।
বিশদ

 সিবিআইয়ে হাজিরা ফিরহাদের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নারদ স্টিংকাণ্ডে সিবিআইয়ের কাছে হাজিরা দিলেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সোমবার বেলা দশটা নাগাদ তিনি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার অফিসে আসেন। তাঁর সঙ্গে দীর্ঘ সময় কথা হয় তদন্তকারী অফিসারদের। প্রকাশিত ভিডিও ফুটেজ তাঁকে দেখানো হয়।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
সংবাদদাতা, বালুরঘাট: দর্শনার্থী টানতে থিমের উপর জোর দিয়েছেন বালুরঘাট শহরের বিগবাজেটের পুজো উদ্যোক্তারা। কোথাও বরফের দেশে রাখালরূপে কৃষ্ণ, কোথাও আবার হোগলা পাতায় তৈরি জমিদার বাড়ির দুর্গাপুজো থিমে জায়গা পেয়েছে, আবার কোথাও হারিয়ে যাওয়া বাঙালি সাংস্কৃতির অন্যতম অনুষ্ঠানে দেওয়া সিদুঁরের গাছকৌটার ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রথমে সাদা, তারপর হলুদ, হলুদ-১, ধাপে ধাপে সবুজ, সবুজ-১, নীল, নীল-১, শেষের দিকে লাল, লাল-কালো ও শেষে কালো বেল্ট। আমজনতার কাছে যা ...

লন্ডন, ১৮ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): লন্ডনের টিউব রেলে বিস্ফোরণের ঘটনায় দুই সন্দেহভাজনকে জেরা করল স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড। এখনও দুই সন্দেহভাজন সম্পর্কে কোনও তথ্য সরকারিভাবে প্রকাশ করা হয়নি। তবে সূত্রের খবর, সন্দেহভাজনদের একজনের বয়স ১৯। ...

হরিহর ঘোষাল, বারাকপুর, বিএনএ: ভারতীয়দের খাবারে আলুর কোনও বিকল্প নেই। এমন কোনও প্রদেশ নেই, প্রায় এমন কোনও খাবার নেই, যেখানে উপকরণ হিসাবে আলু লাগে না। সেই হিসাবে দামে সস্তা হওয়ায় বাজারে জ্যোতি আলুর কদর বেশি। কিন্তু, দিনদিন সেই জ্যোতির উৎপাদন ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

শারীরিক কারণে কর্মে বাধা দেখা দেবে। সন্তানরা আপনার কথা মেনে না চলায় মন ভারাক্রান্ত হবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

 ১৯১৯- অভিনেতা জহর রায়ের জন্ম
১৯২১- সাহিত্যিক বিমল করের জন্ম
১৯২৪- গায়িকা সুচিত্রা মিত্রের জন্ম
১৯৬৫- মহাকাশচারী সুনীতা উইলিয়ামসের জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.২৫ টাকা ৬৪.৯৩ টাকা
পাউন্ড ৮৫.৭০ টাকা ৮৮.৬৩ টাকা
ইউরো ৭৫.২৭ টাকা ৭৭.৯২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,২৩০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৬৮০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৯,১১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২ আশ্বিন, ১৯ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, চতুর্দ্দশী, পূর্ব ফল্গুনী দং ৪৩/৫২ রাত্রি ঘ ১১/১, সূ উ ৫/২৭/৫৭, অ ৫/৩৩/১১, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/১৫ মধ্যে পুনঃ ৭/৪ গতে ১১/৭ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/৫৭ গতে ৮/৪৫ মধ্যে পুনঃ ৯/৩২ গতে ১১/৫৪ মধ্যে পুনঃ ১/৩০ গতে ৩/৫ মধ্যে পুনঃ ৪/৪০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৬/৫৮ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ১/১ গতে ২/৩১ মধ্যে। কালরাত্রি ৭/৩ গতে ৮/৩২ মধ্যে।
২ আশ্বিন, ১৯ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, চতুর্দ্দশী, পূর্বফল্গুনীনক্ষত্র ১১/৩৮/৪৭, সূ উ ৫/২৬/২৮, অ ৫/৩৪/২৮, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৫/০ মধ্যে, ৭/৩/৩২- ১১/৬/১২, রাত্রি ৭/৫৬/৫২-৮/৪৪/২০, ৯/৩১/৪৮-১১/৫৪/১২, ১/২৯/৮-৩/৪/৪, ৪/৩৯/০-৫/২৬/২৮, বারবেলা ৬/৫৭/২৮-৮/২৮/২৮, কালবেলা ১/১/২৮-২/৩২/২৮, কালরাত্রি ৭/৩/২৮-৮/৩২/২৮। 
২৭ জেলহজ্জ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
অনূর্দ্ধ ১৭ ভারতীয় ফুটবল দলের খেলোয়াড়দের সর্বসম্মতিক্রমে অমরজিৎ সিং’কে ক্যাপ্টেন নির্বাচিত করা হল

05:13:00 PM

টালিগঞ্জ অগ্রগামীর বিরুদ্ধে ৫-০ গোলে জিতল ইস্ট বেঙ্গল
কলকাতা ফুটবল লিগে টালিগঞ্জ অগ্রগামীর বিরুদ্ধে ৫-০ ...বিশদ

05:03:00 PM

ত্রাণ নিয়ে যাওয়ার পথে দার্জিলিংয়ের জওবাড়িতে খাদে পড়ল ট্রাক, মৃত ৩, জখম ২
দার্জিলিংয়ের সান্দাকফুর কাছে একটি গ্রামে ত্রাণ নিয়ে যাওয়ার ...বিশদ

04:27:00 PM

দিল্লিতে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের রূপরেখা তৈরি করে ফিরলেন বিনয় তামাং
আজ দিল্লিতে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের রূপরেখা তৈরি করে ফিরলেন ...বিশদ

04:25:00 PM

আসানসোলের বরাকরে স্ত্রীকে শিলনোড়া দিয়ে থেঁতলে খুনের অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

03:55:23 PM

তর্পণ করতে গিয়ে দামোদর নদে তলিয়ে গেলেন মন্ত্রী মলয় ঘটকের দাদা অসীম ঘটক, নদীতে ডুবুরি নামিয়ে তল্লাশি চালানো হচ্ছে

03:48:00 PM

তোলাবাজির অপরাধে দাউদ ইব্রাহিমের ভাই ইকবাল কাসকার-সহ দু’জনকে ৮ দিনের পুলিশ হেপাজতের নির্দেশ দিল থানে আদালত

03:42:27 PM