রাজ্য
 

‘বিকল্প শক্তি হয়ে উঠছে বিজেপি’
বাংলায় সরকার বিরোধিতার হাওয়া
উঠতে শুরু করেছে: অমিত শাহ

জয়ন্ত চৌধুরী, কলকাতা: কলকাতায় তিনদিন সাংগঠনিক কাজে নিজেকে ব্যস্ত রেখেছিলেন বিজেপি’র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তারই ফাঁকে পোর্ট ট্রাস্টের গেস্ট হাউসে বর্তমানের মুখোমুখি হন তিনি। রাজ্যে তাঁদের প্রধান প্রতিপক্ষ তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই, সাংগঠনিক প্রস্তুতি, আন্দোলনের অভিমুখ, দল ভাঙানো, সিবিআই তদন্ত ইত্যাদি নিয়ে একান্ত সাক্ষাৎকারে মুখ খুললেন অমিত শাহ।

প্রশ্ন: বাংলায় আপনারা ক্ষমতা দখলের স্বপ্ন দেখছেন। মানুষকেও তা দেখাচ্ছেন। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনপ্রিয়তায় ভাটার লক্ষণ নেই। তা সত্ত্বেও ...
অমিত শাহ: বাংলার মানুষ বামপন্থীদের হটিয়েছিল। এখন তারা দেখছে তৃণমূল কীভাবে হিংস্র হয়ে উঠেছে। তাই সরকার বিরোধিতার (অ্যান্টি ইনকামবেন্সি) হাওয়া উঠতে শুরু করেছে। বাংলার মানুষ বিকল্প খুঁজছে। ভারতীয় জনতা পার্টি সেই বিকল্প শক্তি হয়ে উঠছে। অত্যাচারের বিরুদ্ধে মানুষ এক হচ্ছে। তারা পরিবর্তন চাইছে।
প্রশ্ন: মানুষ জাগছে, কীসের ভিত্তিতে আপনার এমন ধারণা হল?
অমিত শাহ: দেখুন একদিকে দুর্নীতি বেড়ে চলেছে। তার উপরে অনুপ্রবেশ একটা বড় ব্যাপার। চলছে তোষণের রাজনীতি। এরাজ্যে শাসকদল যে তোষণের রাজনীতি করছে, তা রাজ্য সরকারের নানা কাজেই স্পষ্ট। মানুষ এই তুষ্টিকরণের রাজনীতি ধরে ফেলেছে। তারা একে ভালো চোখে দেখছে না। এর সঙ্গে মানুষের, দেশের নিরাপত্তার প্রশ্ন রয়েছে। বোমা তৈরির কারখানা হচ্ছে, অথচ শিল্প-কারখানা নেই। আবার এই সরকার তার কর্মীদের ডিএ দিচ্ছে না। সরকারি কর্মীদের সঙ্গে কীরকম ব্যবহার করা হচ্ছে, সেটাও দেখতে পাচ্ছে মানুষ। অথচ কেন্দ্রের পাঠানো উন্নয়নের টাকা নয়ছয় হচ্ছে। উন্নয়ন থমকে যাচ্ছে। গতি পাচ্ছে না। এসব নিয়ে বলতে গেলে সন্ত্রাস হচ্ছে।
প্রশ্ন: কিন্তু উন্নয়ন হচ্ছে বলেই তো তৃণমূলের প্রতি মানুষের সমর্থন বেড়েছে, তাই নয় কি?
অমিত শাহ: আপনি নিশ্চয়ই লক্ষ্য করেছেন, সাম্প্রতিক অতীতে যে যে স্তরে ভোট হয়েছে, সেখানেই বিজেপি’র ভোট বেড়েছে। দ্রুত দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসছে বিজেপি। তার মানে, মানুষ অন্য কাউকে নয়, তৃণমূলের বিকল্প হিসাবে বিজেপিকেই ভাবছে। খেয়াল করেছেন তো, কীভাবে অন্য বিরোধীদের সমর্থন আলগা হচ্ছে। তার উপরে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জনপ্রিয়তা, যা সহায়ক ভূমিকা নিচ্ছে।
প্রশ্ন: আপনি কি বলতে চাইছেন, পরিবর্তনের পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে?
অমিত শাহ: অবশ্যই। মানুষের এই আশাকেই কাজে লাগাচ্ছি আমরা। এই পরিস্থিতিকে ‘এনক্যাশ’ করতে পারলে পরিবর্তন হবেই।
প্রশ্ন: কিন্তু সেই কাজ করতে হলে সংগঠিত দলের প্রয়োজন। আপনাদের দলে তো তপন শিকদারের পর তেমন কোনও জনপ্রিয় মুখ তৈরি হয়নি। এখন যাঁরা রয়েছেন, তাঁদের রাজনৈতিক বা সাংগঠনিক অভিজ্ঞতা কম। তাহলে এই সংগঠন কীভাবে এই পরিস্থিতিকে ‘এনক্যাশ’ করতে পারবে?
অমিত শাহ: আমি তিনদিন ধরে সংগঠনের কাজে এই শহরে রয়েছি। কার্যকর্তাদের সঙ্গে সংগঠন নিয়ে চর্চা করেছি। জোর দিয়েছি, বুথ কমিটির উপর। সংগঠনকে বুথ স্তর থেকে শক্তিশালী করাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। মনে রাখবেন, নেতা পরিস্থিতি তৈরি করে দেয়। উত্তরপ্রদেশে যখন নেমেছিলাম, তখন কে নেতা ছিল, কেউ জানে না। কিন্তু সরকার বিরোধী ঢেউ যখন উঠল, তখন মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে লড়াই করেছে বিজেপি। আন্দোলনের মধ্যে দিয়েই নেতা উঠে এসেছে। ভোটের আগে কেউ জানত না নেতা কে হবেন? এখানেও সরকার বিরোধী হাওয়া উঠেছে। এখানে আমরা বুথ স্তরের সংগঠনকেই অগ্রাধিকার দিয়েছি। বিভিন্ন স্তরের কার্যকর্তার সঙ্গে এসব নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে।
প্রশ্ন: আপনি এত কিছু বললেও মানুষের মধ্যে মমতার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে...
অমিত শাহ: আবার দুর্নীতি যে কী পর্যায়ে হতে পারে, তাও দিদির সরকার দেখিয়েছে (হাসতে হাসতে)। আপনি কী বলছেন! টিভিতে মানুষ দেখেছে, কীভাবে তৃণমূল নেতারা টাকা নিচ্ছেন। সব তো স্পষ্ট দেখা গিয়েছে। মানুষ সেটাও বুঝতে পারছে। এদিকে কেন্দ্র যে টাকা দিচ্ছে রাজ্যকে, তা নয়ছয় হচ্ছে। এসব মানুষ দেখছে। এটাকে কাজে লাগাতে হবে। তাই বুথে সংগঠন দরকার। সাধারণ নির্বাচনে কেউ রিগিং করতে গেলে বুথের মানুষই তা রুখবে। আবারও বলছি, সরকার বিরোধী হাওয়া উঠলে রিগিং করেও লাভ হবে না তৃণমূলের।
প্রশ্ন: দুর্নীতির তদন্তের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়েও তো প্রশ্ন উঠেছে। মমতা বলেছেন, রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে না পেরে বিজেপি সিবিআই, ইডি, ইনকাম ট্যাক্স এসব সংস্থাকে কাজে লাগাচ্ছে, প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে বিজেপি...
অমিত শাহ: দেখুন, সিবিআই বা ইডি কী করবে, কী করবে না, তা সম্পূর্ণ তাদের ব্যাপার। আমার জানার কথা নয়। ওরা স্বাধীন অর্গানাইজেশন...
প্রশ্ন: কিন্তু কেন্দ্রের শাসক দল আপনারা। আপনাদের কোনও ভূমিকা নেই, এটা কি হতে পারে? সারদা বা নারদ তদন্ত নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে বলে অভিযোগ। কী বলবেন?
অমিত শাহ: তদন্ত যেমন হওয়ার হচ্ছে। আমরা কংগ্রেসের মতো সিবিআইকে গাইড করি না। তবে আমি এটুকু বলতে পারি, তদন্তের পরিণতি যা হওয়ার হবে। দেখতে পাবেন। কেউ তা রুখতে পারবে না।
প্রশ্ন: আপনারা অসমে দল ভাঙিয়েছেন, সরকারও গড়েছেন। এরাজ্যে শাসকদল তৃণমূলকেও কি ভাঙতে চাইছেন?
অমিত শাহ: কে বলেছে? অসমে মুখ্যমন্ত্রী বিজেপি’র। আমাদের দলে কেউ আসতে চাইলে সেটা আলাদা ব্যাপার। আমি চাই না তৃণমূল ভেঙে যাক। আমরা আমাদের দলকে শক্তিশালী করার কাজে ব্যস্ত রয়েছি। তৃণমূলকে ভাঙানোর কোনও পরিকল্পনা আমাদের নেই। কিন্তু এটাও মনে রাখা দরকার, তৃণমূলকে অটুট রাখার দায়িত্ব দিদির। এ বিষয়ে আমাদের কিছু করার নেই।
14th  September, 2017
ইন্দিরার জন্মশতবর্ষ পালনে কেন্দ্রের অনাগ্রহকে কটাক্ষে বিঁধলেন প্রণব

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর জন্মশতবর্ষ পালনে কেন্দ্রের আগ্রহ না দেখানোকে পরোক্ষে সমালোচনায় বিঁধলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। ধর্মান্ধতার প্রশ্নে ইন্দিরার আপসহীনতার দৃষ্টান্ত তুলে হিন্দুত্ববাদী কেন্দ্রীয় শাসক দলকেও খোঁচা দিতে ছাড়লেন না তিনি।
বিশদ

অভিনেত্রী রীতা কয়রাল প্রয়াত

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রয়াত হলেন বাংলা সিনেমা ও সিরিয়ালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রীতা কয়রাল। বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর। তাঁর এক কন্যা রয়েছেন। গত কয়েক মাস ধরে তিনি লিভারের ক্যান্সারে ভুগছিলেন। রবিবার সকালে তাঁকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে, চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। তাঁর মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ টালিগঞ্জের স্টুডিওপাড়া।
বিশদ

হোটেল ম্যানেজমেন্ট পাঠ দিতে হবে মিড ডে মিল রাঁধুনিদের, নির্দেশ জারি কেন্দ্রের

সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: মিড ডে মিলের খাবারের মান নিয়ে বেশ কড়া মনোভাব দেখিয়েছে কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক। মানের সঙ্গে আপস করা কিংবা রান্নায় অপরিচ্ছন্নতা— কোনওটাই বরদাস্ত করা হবে না বলে বারেবারে বলে এসেছে তারা। তাই খুদে পড়ুয়াদের পাতে সুস্বাদু এবং পুষ্টিকর খাবার দিতে এবার রাঁধুনিদের হোটেল ম্যানেজমেন্টের মাধ্যমে প্রশিক্ষিত করার নির্দেশ দিল কেন্দ্র।
বিশদ

নিম্নচাপ দুর্বল হতেই নামবে
তাপমাত্রা, কুয়াশার সম্ভাবনা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপটি দুর্বল হয়ে সরে যাওয়ার পর এবার তাপমাত্রা নামতে শুরু করবে। কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে হালকা শীতের আমেজ পাওয়া যাবে। কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় রবিবার জানিয়েছেন, তাপমাত্রা এবার ধীরে ধীরে কমবে।
বিশদ

আগামী বছরেই কাজ শুরুতে আশাবাদী কর্তারা
জলপথ পরিবহণ প্রকল্প জমা পড়ল, রাজ্যে পা বিশ্বব্যাঙ্কের প্রতিনিধিদের

প্রসেনজিৎ কোলে  কলকাতা: বিশ্বব্যাঙ্কের সহায়তায় জলপথে পরিবহণ পরিকাঠামো ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনায় এবার আশার আলো দেখতে পাচ্ছেন পরিবহণ দপ্তরের কর্তারা। দপ্তর সূত্রের খবর, রাজ্যের প্রস্তাব অনুমোদন করে কেন্দ্রের ‘ডিপার্টমেন্ট অব ইকনমিক অ্যাফেয়ার্স’ সেটি বিশ্বব্যাঙ্কের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছে।
বিশদ

 অসমের বাঙালিদের নিয়ে আলোচনাসভা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অসমে বাঙালিদের অবস্থা একদিন রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের মতোই হবে। এখনই যদি বাঙালিরা তাদের নিজস্ব জাতিসত্তা সম্পর্কে অবগত না হয়, তাহলে রোহিঙ্গাদের যেমন মায়ানমারের সরকার উৎখাত করেছে, সেভাবেই অদূর ভবিষ্যতে কোনও সরকার অসমের বাঙালিদের সমস্ত অধিকার থেকে উৎখাত করবে।
বিশদ

ব্যাঙ্ক প্রতারণার টাকা কোথায় ঢেলেছেন পিনকনকর্তা, খোঁজ করছেন গোয়েন্দারা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ব্যাঙ্কের সঙ্গে প্রতারণা করা টাকাতেই চিটফান্ড ব্যবসা শুরু করেছিলেন পিনকনকর্তা মনোরঞ্জন রায়। ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেপ্তারও হয়েছিলেন তিনি। কম্পিউটার অ্যাসেম্বলিংয়ের নামে ঋণ নিয়ে ব্যবসা শুরু করার পর অল্পদিনের মধ্যেই গণেশ উল্টে দেন তিনি। নেমে পড়েন প্রতারণার ব্যবসায়।
বিশদ

‘ভবিষ্যতের জন্য বাঁচিয়ে রাখুন অ্যান্টিবায়োটিক’

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভবিষ্যতের জন্য বাঁচিয়ে রাখুন অ্যান্টিবায়োটিক। যখনতখন ব্যবহার করে মডার্ন মেডিসিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্রটি নষ্ট করে দেবেন না। ইচ্ছাখুশিমতো অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার, যখন তখন যা কোনও ডোজে ব্যবহার—অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স ডেকে আনছে।
বিশদ

সরকারি চাকরি থেকে পদত্যাগ করলেন তৃণমূলের ডাক্তার সংগঠনের ঘুম কেড়ে নেওয়া ফোরামের শীর্ষনেতা

বিশ্বজিৎ দাস  কলকাতা: আর সরকারি চাকরি করবেন না। এই মর্মে রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তার (শিক্ষা) কাছে ই-মেল করে পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দিলেন ডাক্তার সংগঠন ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টর্স ফোরামের সভাপতি ডাঃ রেজাউল করিম। তিনি কামারহাটি সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের রেডিওলজি’র অধ্যাপক তথা ২৫ বছরের সরকারি চাকুরে।
বিশদ

উত্তরবঙ্গের জঙ্গি ঘাঁটি ভাঙতে শিলিগুড়ি পুলিস সাহায্য চাইল ভারতীয় বায়ুসেনার

শুভ্র চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা: নিরাপত্তার দিক থেকে ক্রমেই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে শিলিগুড়ি করিডর। এই রুটকেই বারবার ব্যবহার করছে বিভিন্ন জঙ্গি গোষ্ঠীর সদস্য থেকে শুরু করে আন্তর্জাতির চোরাকারবারিরা। বিশেষত এই পথে অরুণাচল হয়ে চীন বা নেপালের মতো দেশের আন্তর্জাতিক সীমানায় পৌঁছে যাওয়া সম্ভব। এ জন্য এই পথের গুরুত্ব অত্যন্ত বেশি।
বিশদ

ধান কেনা নিয়েও কেন্দ্র বঞ্চনা করছে, অভিযোগ করল রাজ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনা নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের প্রতি বঞ্চনা করা হচ্ছে বলে সোচ্চার হয়েছে রাজ্য সরকার। ধান মজুত করার জন্য শ্রমিক ও পরিবহণ খাতে অন্য রাজ্যগুলির তুলনায় পশ্চিমবঙ্গকে অনেক কম টাকা দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ রাজ্যের।
বিশদ

যৌথ উদ্যোগের, নিজস্ব সংস্থার মূল্যায়নে ৬ এজেন্সিকে নথিভুক্ত করতে চায় রাজ্য

কৌশিক ঘোষ  কলকাতা: যৌথ উদ্যোগের (জয়েন্ট ভেঞ্চার) সংস্থাগুলির মূল্যায়নের ব্যাপারে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য সরকার। এই কাজের জন্য বিশেষ সংস্থা বা ‘ভ্যালুয়েশন এজেন্সি’দের নথিভুক্ত করতে চাইছে সরকার। ইচ্ছুক সংস্থাগুলির কাছ থেকে আগ্রহপত্র আহ্বান করা হয়েছে। অর্থদপ্তর এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে।
বিশদ

 অনলাইনে ভিডিওর মাধ্যমে শিক্ষকদের নতুন পাঠ্যক্রম শেখাচ্ছে আইসিএসই বোর্ড

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিজ্ঞানে এবছর নতুন পাঠ্যক্রম চালু হয়েছে আইসিএসই স্কুলগুলিতে। কিন্তু সেখানে নতুন বিষয়গুলি শিক্ষকরা কীভাবে পড়াবেন, তার জন্য প্রশিক্ষণ বা কর্মশালার প্রয়োজন রয়েছে। তবে সময়ের মধ্যে তা হয়ে ওঠেনি। তাই প্রযুক্তির মাধ্যমে সেই কাজ সেরে ফেলতে চাইছে কাউন্সিল।
বিশদ

রাজ্যকে মাত্র চার মাসে
সাড়ে ছ’লাখ ইউনিট রক্ত সংগ্রহের লক্ষ্য দিল কেন্দ্র

 বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: রক্ত পরিষেবায় পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের সবক’টি রাজ্যের জন্য লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। ১৫ নভেম্বর দেশের সবক’টি রাজ্যকে চিঠি লিখে এই লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দিয়েছেন জাতীয় এইডস নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের (ন্যাকো) ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল ডাঃ এস ভেঙ্কটেশ। ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষের মধ্যে এই লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে বলা হয়েছে সেই চিঠিতে। অর্থাৎ কেন্দ্রের বেঁধে দেওয়া লক্ষ্য পূরণের জন্য বাকি মাত্র চার মাস।
বিশদ

19th  November, 2017

Pages: 12345

একনজরে
বিএনএ, শিলিগুড়ি: শনিবার গভীর রাতে ভক্তিনগর থানার সেভক রোডের একটি গুদামে দুষ্কৃতী হামলায় এক নিরাপত্তা রক্ষী খুন হন। পুলিস জানিয়েছে, নিহত নিরাপত্তারক্ষীর নাম রঘুনাথ রায়(৬২)। অভিযুক্তের খোঁজে পুলিস তল্লাশি শুরু করেছে।  ...

সংবাদদাতা, কান্দি: কান্দি মহকুমা এলাকায় অযত্নে শুকিয়ে নষ্ট হচ্ছে সবুজমালা প্রকল্পের বহু মূল্যবান গাছ। বছরখানেক আগে কান্দি মহকুমা এলাকার বিভিন্ন রাস্তার দু’পাশে ওই গাছগুলি লাগানো হয়েছিল। কিন্তু বছর পেরনোর আগেই অর্ধেক গাছ শুকিয়ে নষ্ট হয়ে গিয়েছে যত্নের অভাবে। গাছের চারদিকের ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ডিমের দাম আকাশছোঁয়া। কমার নামগন্ধ নেই। সাত থেকে সাড়ে সাত টাকায় শহর ও শহরতলির বাজারে বিক্রি হচ্ছে পোলট্রির ডিম। এমন অবস্থায় রাজ্য ...

সুকান্ত বেরা: সকালটা যদি হয় মহম্মদ সামির, তাহলে বিকেলের নায়ক অবশ্যই শিখর ধাওয়ান। তবুও রবিবাসরীয় ইডেনে ভারতীয় ক্রিকেটারদের সাফল্যের পাশাপাশি চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছিল দিলরুবান ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

প্রেম-প্রণয়ে নতুনত্ব থাকবে। নতুন বন্ধু লাভ, ভ্রমণ ও মানসিক প্রফুল্লতা বজায় থাকবে। কোনও কোনও ক্ষেত্রে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৫০- মহীশূরের শাসক টিপু সুলতানের জন্ম।
১৯১০- রুশ সাহিত্যিক লিও তলস্তয়ের মৃত্যু।
১৯১৭- কলকাতায় প্রতিষ্ঠা হল বোস রিসার্চ ইনস্টিটিউট।
১৯৫৫- নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের পক্ষে টেস্টে প্রথম দ্বিশতরান করলেন উমরিগড় (২২৩)।  

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৪.০০ টাকা ৬৫.৬৮ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৩২ টাকা ৮৭.১৯ টাকা
ইউরো ৭৫.২০ টাকা ৭৭.৮৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
18th  November, 2017
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,১৯৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৬৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৯,০৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,২০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৩০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
19th  November, 2017

দিন পঞ্জিকা

৪ অগ্রহায়ণ, ২০ নভেম্বর, সোমবার, দ্বিতীয়া রাত্রি ৯/৩৬, নক্ষত্র-জ্যেষ্ঠা রাত্রি ১২/৪৮, সূ উ ৫/৫৬/২৫, অ ৪/৪৮/৪, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/২৩ মধ্যে পুনঃ ৮/৫০ গতে ১১/০ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/২৬ গতে ১০/৬ মধ্যে পুনঃ ২/২৭ গতে ৩/১৯ মধ্যে, বারবেলা ঘ ৭/১৮ গতে ৮/৪০ মধ্যে পুনঃ ২/৫ গতে ৩/২৬ মধ্যে, কালরাত্রি ৯/৪৪ গতে ১১/২২ মধ্যে।
৩ অগ্রহায়ণ, ২০ নভেম্বর, সোমবার, দ্বিতীয়া রাত্রি ৭/৪২/২৮, জ্যেষ্ঠানক্ষত্র ১১/৫৫/৩৬, সূ উ ৫/৫৬/৫৮, অ ৪/৪৬/৫৮, অমৃতযোগ দিবা ৭/২৩/৩৮, ৮/৫০/১৮-১১/০/১৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৪/৫৮-১০/৫৫/১৮, ২/২৫/৩৭-৩/১৮/১৮, বারবেলা ২/৪/২৮-৩/২৬/৪৩, কালবেলা ৭/১৮/১৩-৮/৩৯/২৮, কালরাত্রি ৯/৪৩/১৩-১১/২১/৫৮। 
৩০ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বারুইপুর স্টেশনে অবরোধ উঠল, শিয়ালদহ বিভাগের প্রতিটি শাখায় ৮টা ৩৪ মিনিট থেকে ফের শুরু ট্রেন চলাচল

09:07:41 PM

রেল অবরোধ ঘিরে ধুন্ধুমার বারুইপুর স্টেশন

 বেআইনি উচ্ছেদ অভিযানের প্রতিবাদে রেল অবরোধকে কেন্দ্র করে ...বিশদ

08:40:29 PM

লুধিয়ানায় প্লাস্টিক কারখানায় আগুন, মৃত ৩
লুধিয়ানায় একটি প্লাস্টিকের ব্যাগ তৈরির কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ...বিশদ

08:13:00 PM

ফের দালাল চক্রের অভিযোগ এসএসকেএম হাসপাতালে

 ফের দালাল চক্রের অভিযোগ উঠল এসএসকেএম হাসপাতালে। টাকা নিতে গিয়ে ...বিশদ

07:10:02 PM

 বিহারের গোপালগঞ্জে হাইটেনশন লাইনের বিদ্যুৎস্পৃশ্য হয়ে মৃত ৫, গুরুতর আহত ৩

06:22:00 PM