রাজ্য
 

বাবা-মায়ের মৃত্যুতে সরকারি
চাকরির যোগ্য বিবাহিত মেয়ে
ঐতিহাসিক রায় কলকাতা হাইকোর্টের বিশেষ বেঞ্চের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রয়াত সরকারি কর্মীর বিবাহিত এবং বিবাহবিচ্ছিন্না কন্যাও চাকরি পাবেন। যাবতীয় বিতর্কের অবসান ঘটিয়ে বুধবার কলকাতা হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিশীথা মাত্রে, বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত ও তপোব্রত চক্রবর্তীর ডিভিশন বেঞ্চ একথা জানিয়ে দিল। বৈষম্যের অবসান ঘটানো এই রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে বিবেচনাধীন বা বাতিল আবেদনগুলিও ফের বিবেচনার মধ্যে আনতে হবে সরকার ও সরকার পোষিত সংস্থাগুলিকে। উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্ট এই প্রসঙ্গে বলেছিল, বয়সের কারণে কিংবা অশিক্ষিত বা অর্ধশিক্ষিত বিধবার বেঁচে থাকার স্বার্থেই বিবাহিত কন্যাদের চাকরি পাওয়া উচিত। এদিনের এই ঐতিহাসিক রায়ে বিষয়টি অনেক পরিষ্কার হল বলেই মত আইনজীবী মহলের।
যে চার কন্যার আবেদনের ভিত্তিতে এই রায়, তাঁরা হলেন পূর্ণিমা দাস, অর্পিতা সরকার, কাকলি চক্রবর্তী এবং পুতুল রবিদাস। পূর্ণিমার বাবা ছিলেন বীরভূমের নলহাটির বরা ২নং গ্রাম পঞ্চায়েতের চৌকিদার। ২০১১ সালের ১১ মার্চ তিনি মারা যান। স্ত্রী বয়স ও শিক্ষাগত যোগ্যতার অভাবে নিজের জন্য চাকরি চাননি। তিনি ও তাঁর অন্য দুই বিবাহিত কন্যা হলফনামা দিয়ে জানান, বিবাহিত ছোট বোনকে চাকরি দিলে তাঁদের আপত্তি নেই। সেই আবেদন খারিজ হয়। হাইকোর্ট আবেদন বিবেচনা করতে বললেও পঞ্চায়েত দপ্তর বলে, ২০০৯ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারির বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী বিবাহিত কন্যারা চাকরি পাবেন না। পূর্ণিমা ফের হাইকোর্টে আবেদন করেন। আদালত জানায়, সংবিধান অনুযায়ী বিবাহিত ছেলে ও মেয়ের মধ্যে ফারাক করা যায় না। তাই তেমনভাবে যেন নির্দেশিকা জারি হয়। কিন্তু, রাজ্য সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে। প্রধান বিচারপতি তিন বিচারপতির বেঞ্চ গঠন করে। মামলাকারীর আইনজীবী অঞ্জন ভট্টাচার্য জানান, বেঞ্চ বলেছে, পঞ্চায়েত ও শ্রম দপ্তরকে অবিলম্বে এ সংক্রান্ত নির্দেশিকা থেকে ‘বিবাহিত বা অবিবাহিত’ শব্দ বাদ দিতে হবে। বিবাহিতদেরও অনুকম্পাজনিত চাকরি দিতে হবে। অতীতে এই নিয়মের বেড়াজালে যেসব আবেদন বাতিল করা হয়েছিল, সেগুলিও পুনর্বিবেচনা করতে হবে।
রাজ্য প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনাল (স্যাট) থেকে কিছুটা একই রকম দু’টি মামলা আসে এই বেঞ্চে। অন্যতম আবেদনকারী অর্পিতা সরকারের আইনজীবী ইন্দ্রনাথ মিত্র জানান, শ্রম দপ্তরের ২০০৮ সালের আইনে বলা আছে, বিবাহিত এবং বিবাহবিচ্ছিন্না কন্যারা অনুকম্পাজনিত চাকরি পাবেন না। আবেদনকারীর বাবা ছিলেন কনস্টেবল। মৃতের স্ত্রী চাকরির আবেদনে জানান, ৪৮ বছর বয়সে এসে হৃদরোগের সমস্যা নিয়ে তাঁর পক্ষে চাকরি করা সম্ভব নয়। মেয়ে বিবাহিত। কিন্তু, শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে তাঁর কাছেই থাকে। ২০০৯ সালে বাবার মৃত্যুর পর ২০১০ সালে অর্পিতার আইনমাফিক বিবাহবিচ্ছেদ হয়। কিন্তু, চাকরি মেলেনি। তাই ২০১১ সালে মৃতের স্ত্রী ফের মেয়ের হয়ে আবেদন জানান। নদীয়ার পুলিশ সুপার যাবতীয় নথি পাঠিয়ে দেন ইনসপেক্টর জেনারেলের কাছে। সেই আবেদনটিও খারিজ হয়েছিল। তবে ওই রায়কে তিনি স্যাটে চ্যালেঞ্জ করেন। সেখানেও আইনের বিচার পাননি। বাধ্য হয়েই আসেন হাইকোর্টে। তাঁর আইনজীবী জানিয়েছেন, বেঞ্চের বক্তব্য, বিবাহিত কন্যাকে চাকরি পাওয়ার অধিকার থেকে বঞ্চিত করার বিধান অসাংবিধানিক। তাই রাজ্যের আবেদন খারিজ হল।
পুতুল রবিদাসের মা কর্মরত অবস্থায় মারা যান। তার আগেই পুতুলের বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু, ইস্টার্ন কোলফিল্ডস লিমিটেড জানিয়ে দেয়, আইনত অবিবাহিত কন্যাকেই তারা চাকরি দিতে পারে। আদালত দু’টি প্রশ্ন তোলে। এক, বিবাহিত, বিবাহবিচ্ছিন্ন মহিলারা কেন চাকরি পাবে না? দুই, বিবাহিত ছেলে যদি চাকরি পায়, তাহলে মেয়েরা পাবে না কেন? আদালত ইসিএলকে মামলাকারীর আবেদন বিবেচনা করতে বলে। কিন্তু, ইসিএল জানায়, ন্যাশনাল কোল ওয়েজেস চুক্তি অনুযায়ী, কেবলমাত্র অবিবাহিত মেয়েকেই তারা চাকরি দিতে পারে। কিন্তু, পুতুলের আবেদন একক বিচারপতির বেঞ্চে খারিজ হলে তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তিনি হাইকোর্টে আসেন। তাঁর আইনজীবী চিরঞ্জীব সিনহা জানান, বেঞ্চের বক্তব্য, বিবাহিত, অবিবাহিত, বিবাহবিচ্ছিন্না—সবাইকেই এমন চাকরির সুযোগ দিতে হবে। যদি শূন্যপদ না থাকে, দিতে হবে ক্ষতিপূরণ।
14th  September, 2017
২ মোর্চা নেতা নবান্নে, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক
গোপনে পাহাড় ছেড়ে কলকাতায় বিনয়রা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পাহাড়ের বন্ধ চা-বাগান শ্রমিকদের বকেয়া বোনাস উৎসব পর্ব শুরু হওয়ার আগেই মিটিয়ে দেওয়ার জন্য বাগান মালিকদের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আচমকাই পাহাড় ছেড়ে নবান্নে এসে সোমবার বোনাসের দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছিলেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার চিফ কোঅর্ডিনেটর বিনয় তামাং ও অনীত থাপা। একই বিষয়ে মুখ্যসচিব মলয় দে আহুত একটি জরুরি বৈঠকেও অংশ নেন মোর্চার দুই নেতা। বৈঠক শেষে মোর্চার দুই নেতা এবং মুখ্যসচিবকে সঙ্গে নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন, টানা বন্‌ধের জেরে দুর্দশার মধ্যে রয়েছেন চা-বাগান শ্রমিকরা। ১৬-১৭ আর্থিক বছরের বোনাস তাঁরা পাননি। মালিকদের বলছি, বোনাস দিন। তা না হলে অন্য ব্যবস্থা করতে হবে। অসহনীয় অবস্থায় পড়া শ্রমিকদের প্রতি মালিকরা যে সহমর্মিতা জানাবেন, তারও ভরসা রেখেছেন মমতা। 
বিশদ

ফের বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে
উদ্বেগ উদ্যোক্তাদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পুজোয় কী হবে তা এখনও অনিশ্চিত। কিন্তু প্রাক পুজোয় বৃষ্টি থাকছে। জোড়া ঘূর্ণাবর্তর প্রভাবে আজ, মঙ্গলবার মহালয়ার দিন দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির অনুকূল পরিস্থিতি রয়েছে। কাল, বুধবারও বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। 
বিশদ

বিশ্ব ব্যাংকের ৩৫০০ কোটি ঋণে জলপথে বিরাট পরিকল্পনা
বেআইনি ভুটভুটির পরিবর্তে উন্নত জলযানের নকশা প্রকাশ শুভেন্দুর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিশ্ব ব্যাংকের সহায়তায় জলপথ পরিবহণ নিয়ে বিরাট পরিকল্পনা করেছে রাজ্য। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্পে অত্যাধুনিক জলযান নামানো থেকে শুরু করে গঙ্গায় গাড়ি পারাপারে রোরো পরিষেবা চালু, জলপথে পর্যটন পরিকাঠামো তৈরি, সুন্দরবনের মতো প্রান্তিক এলাকায় হাসপাতাল থেকে রোগী নিয়ে যাওয়া-আসার ব্যবস্থা করা হবে।
বিশদ

বিসর্জন নিয়ে রায় স্থগিত,
কাল হাইকোর্টে ফের শুনানি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দুর্গাপুজোর বিসর্জন নিয়ে রায় ঘোষণা হল না সোমবার। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এদিন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিশীথা মাত্রে ও বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর ডিভিশন বেঞ্চকে জানানো হয়, দশমীর দিন রাত ১০টার মধ্যে প্রতিমা নিয়ে ঘাটে পৌঁছাতে হবে। এই সময়সীমা বৃদ্ধি করা সম্ভব নয়। এই অবস্থায় আরেকটি মামলার সওয়াল সূত্রে এদিন রায়দান স্থগিত করে দেওয়া হয়।
বিশদ

দক্ষিণ-পূর্ব রেল
ভিড় এড়াতে উৎসবের মাসে প্ল্যাটফর্ম টিকিটের দাম দ্বিগুণ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উৎসবের দিনগুলিতে ভিড় নিয়ন্ত্রণে এবার প্ল্যাটফর্ম টিকিটের দাম দ্বিগুণ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব রেল। এই সিদ্ধান্তের খবর চাউড় হতেই নানা মহলে চর্চা শুরু হয়েছে। সাধারণত ভাড়া সংক্রান্ত ব্যাপারে ঘোষণা করা হয় দিল্লি থেকে।
বিশদ

কেন্দ্র টাকা পাঠায়নি, পুজোর আগে বেতন অনিশ্চিত এসএসকে-এমএসকে শিক্ষকদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসবের আর সপ্তাহখানিক মাত্র বাকি। আর পাঁচজন যখন শেষ মুহূর্তের মার্কেটিং করতে ব্যস্ত, তখন মাসের বেতন কবে হবে তা নিয়ে হা পিত্যেশ করে বসে রয়েছেন রাজ্যের ৫৪ হাজার এমএসকে-এসএসকে শিক্ষক।
বিশদ

ভারপ্রাপ্ত হিসাবে কেন? অবসরের আগে ক্ষোভ বিচারপতি মাত্রের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভারতের প্রাচীনতম হাইকোর্ট তার অতীত গরিমা হারিয়েছে। তা পুনরুদ্ধারে বিচারপতি-আইনজীবীদের সক্রিয় ভূমিকা নিতে হবে। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসাবে অবসর গ্রহণের প্রাক্কালে তাঁর সম্মানে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এমনই আবেদন জানালেন নিশীথা মাত্রে।
বিশদ

স্টুডেন্টস কাউন্সিল
শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক ব্যর্থ, বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি যাদবপুরের পড়ুয়াদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: স্টুডেন্টস কাউন্সিল নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের বৈঠক নিষ্ফলা হল। আর তার জেরে পুজোর পর বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে রাখলেন তাঁরা। তবে আন্দোলনের রূপরেখা ঠিক করতে আগামীকাল, বুধবার ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে ছাত্র প্রতিনিধিরা জানান।
বিশদ

উৎসবে কেউ হাঙ্গামা বাধালে রুখব: মমতা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উৎসবের মরশুমে হাঙ্গামা বাধানোর চেষ্টা হলে যে কোনও মূল্যে রুখব। সোমবার শ্রীভূমিতে পুজোর উদ্বোধনে এসে সতর্ক করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, পুজোর সময় মহরম পড়লে আমি কী করব? আমি কী পাঁজি তৈরি করি? দশমীতে সিঁদুর খেলা বা বিসর্জন—যা হয়, তা সবই হবে, উৎসবের সঙ্গে হবে।
বিশদ

বিধায়কদের দৈনিক ভাতা দ্বিগুণ করার উদ্যোগ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যের বিধায়কদের জন্য ফের সুখবর আসতে চলেছে। অর্থ দপ্তর সবুজ সংকেত দিলে তাঁদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ এক হাজার থেকে বেড়ে দু’হাজার টাকা হতে চলেছে।
বিশদ

 সিবিআইয়ে হাজিরা ফিরহাদের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নারদ স্টিংকাণ্ডে সিবিআইয়ের কাছে হাজিরা দিলেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সোমবার বেলা দশটা নাগাদ তিনি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার অফিসে আসেন। তাঁর সঙ্গে দীর্ঘ সময় কথা হয় তদন্তকারী অফিসারদের। প্রকাশিত ভিডিও ফুটেজ তাঁকে দেখানো হয়।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
টোকিও, ১৮ সেপ্টেম্বর: সদ্য কোরিয়া ওপেন সুপার সিরিজে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর পিভি সিন্ধু জাপান ওপেন খেতাব জয়ের লক্ষ্যে অভিযান শুরু করবেন। এই প্রতিযোগিতায় খেলবেন সাইনা নেহওয়াল ও কিদাম্বি শ্রীকান্তও। তবে কোরিয়া ওপেনের মোট পুরস্কার অর্থ ছিল ৬ লক্ষ ডলার। ...

হরিহর ঘোষাল, বারাকপুর, বিএনএ: ভারতীয়দের খাবারে আলুর কোনও বিকল্প নেই। এমন কোনও প্রদেশ নেই, প্রায় এমন কোনও খাবার নেই, যেখানে উপকরণ হিসাবে আলু লাগে না। সেই হিসাবে দামে সস্তা হওয়ায় বাজারে জ্যোতি আলুর কদর বেশি। কিন্তু, দিনদিন সেই জ্যোতির উৎপাদন ...

 নয়াদিল্লি, ১৮ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): রবিবার পূর্ব দিল্লি থেকে এক সন্দেহভাজন আল-কায়েদা জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করেছে দিল্লি পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ। সোমবার পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ধৃত জঙ্গির নাম সওমন হক (২৭)। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে রবিবার বিকাশ মার্গের কাছ থেকে তাকে গ্রেপ্তার ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রথমে সাদা, তারপর হলুদ, হলুদ-১, ধাপে ধাপে সবুজ, সবুজ-১, নীল, নীল-১, শেষের দিকে লাল, লাল-কালো ও শেষে কালো বেল্ট। আমজনতার কাছে যা ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

শারীরিক কারণে কর্মে বাধা দেখা দেবে। সন্তানরা আপনার কথা মেনে না চলায় মন ভারাক্রান্ত হবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

 ১৯১৯- অভিনেতা জহর রায়ের জন্ম
১৯২১- সাহিত্যিক বিমল করের জন্ম
১৯২৪- গায়িকা সুচিত্রা মিত্রের জন্ম
১৯৬৫- মহাকাশচারী সুনীতা উইলিয়ামসের জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.২৫ টাকা ৬৪.৯৩ টাকা
পাউন্ড ৮৫.৭০ টাকা ৮৮.৬৩ টাকা
ইউরো ৭৫.২৭ টাকা ৭৭.৯২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,২৩০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৬৮০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৯,১১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২ আশ্বিন, ১৯ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, চতুর্দ্দশী, পূর্ব ফল্গুনী দং ৪৩/৫২ রাত্রি ঘ ১১/১, সূ উ ৫/২৭/৫৭, অ ৫/৩৩/১১, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/১৫ মধ্যে পুনঃ ৭/৪ গতে ১১/৭ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/৫৭ গতে ৮/৪৫ মধ্যে পুনঃ ৯/৩২ গতে ১১/৫৪ মধ্যে পুনঃ ১/৩০ গতে ৩/৫ মধ্যে পুনঃ ৪/৪০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৬/৫৮ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ১/১ গতে ২/৩১ মধ্যে। কালরাত্রি ৭/৩ গতে ৮/৩২ মধ্যে।
২ আশ্বিন, ১৯ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, চতুর্দ্দশী, পূর্বফল্গুনীনক্ষত্র ১১/৩৮/৪৭, সূ উ ৫/২৬/২৮, অ ৫/৩৪/২৮, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৫/০ মধ্যে, ৭/৩/৩২- ১১/৬/১২, রাত্রি ৭/৫৬/৫২-৮/৪৪/২০, ৯/৩১/৪৮-১১/৫৪/১২, ১/২৯/৮-৩/৪/৪, ৪/৩৯/০-৫/২৬/২৮, বারবেলা ৬/৫৭/২৮-৮/২৮/২৮, কালবেলা ১/১/২৮-২/৩২/২৮, কালরাত্রি ৭/৩/২৮-৮/৩২/২৮। 
২৭ জেলহজ্জ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
অনূর্দ্ধ ১৭ ভারতীয় ফুটবল দলের খেলোয়াড়দের সর্বসম্মতিক্রমে অমরজিৎ সিং’কে ক্যাপ্টেন নির্বাচিত করা হল

05:13:00 PM

টালিগঞ্জ অগ্রগামীর বিরুদ্ধে ৫-০ গোলে জিতল ইস্ট বেঙ্গল
কলকাতা ফুটবল লিগে টালিগঞ্জ অগ্রগামীর বিরুদ্ধে ৫-০ ...বিশদ

05:03:00 PM

ত্রাণ নিয়ে যাওয়ার পথে দার্জিলিংয়ের জওবাড়িতে খাদে পড়ল ট্রাক, মৃত ৩, জখম ২
দার্জিলিংয়ের সান্দাকফুর কাছে একটি গ্রামে ত্রাণ নিয়ে যাওয়ার ...বিশদ

04:27:00 PM

দিল্লিতে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের রূপরেখা তৈরি করে ফিরলেন বিনয় তামাং
আজ দিল্লিতে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের রূপরেখা তৈরি করে ফিরলেন ...বিশদ

04:25:00 PM

আসানসোলের বরাকরে স্ত্রীকে শিলনোড়া দিয়ে থেঁতলে খুনের অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

03:55:23 PM

তর্পণ করতে গিয়ে দামোদর নদে তলিয়ে গেলেন মন্ত্রী মলয় ঘটকের দাদা অসীম ঘটক, নদীতে ডুবুরি নামিয়ে তল্লাশি চালানো হচ্ছে

03:48:00 PM

তোলাবাজির অপরাধে দাউদ ইব্রাহিমের ভাই ইকবাল কাসকার-সহ দু’জনকে ৮ দিনের পুলিশ হেপাজতের নির্দেশ দিল থানে আদালত

03:42:27 PM