দেশ
 

  ‘সকলের জন্য গৃহ’ প্রকল্প সফল করার দায়িত্ব রাজ্যগুলির উপরই চাপাচ্ছে মোদি সরকার

সন্দীপ স্বর্ণকার • নয়াদিল্লি, ২০ এপ্রিল: মোদি সরকারের প্রকল্প। অথচ রাজ্যগুলির ওপরই তা সফল করার দায়িত্ব চাপাচ্ছে কেন্দ্র। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় (নগর) আগামী ২০২২ সালের মধ্যে হাউজিং ফর অল অর্থাৎ ‘সকলের জন্য গৃহ’ প্রকল্প প্রসঙ্গে আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে স্পষ্টভাষায় এমনটাই জানালেন কেন্দ্রীয় আবাসনমন্ত্রী বেঙ্কাইয়া নাইডু। বললেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যা করার করে দিয়েছেন। এবার রাজ্যগুলির কোর্টে বল। তারা যদি ঠিক মতো প্রস্তাব না পাঠায়, তাহলে তার দায় মোটেই কেন্দ্রের নয়।
বেঙ্কাইয়া বলেন, সকলেরই নিজের বাড়ির স্বপ্ন থাকে। আর সেই স্বপ্ন সার্থক করার জন্যই নরেন্দ্র মোদিজির উদ্যোগ। কিন্তু ‘জমি’ রাজ্যের বিষয়। তাই তারা যদি উদ্যোগ না বাড়ায়, তাহলে এই প্রকল্প নিয়ে কেন্দ্রের দিকে আঙুল তোলা যাবে না। রাজ্যগুলিকেই দোষারোপ করতে হবে। কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পর গত তিন বছরে এই ‘সকলের জন্য গৃহ’ প্রকল্পের রিপোর্ট কার্ড প্রকাশ করতেই এদিন সাংবাদিক সম্মেলন ডাকা হয়।
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, মাত্র তিন বছরে আমরা ১৭ লক্ষ ৭৩ হাজার ৫৩৩ টি বাড়ি তৈরির অনুমোদন দিয়েছি। ২৭ হাজার ৮৮৩ কোটি টাকা অনুমোদনও হয়েছে। সরকারি রিপোর্ট অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গসহ দেশের ১২টি রাজ্য অ্যাফোডেবল হাউজেস বা স্বল্পমূল্যের বাড়ি তৈরির ক্ষেত্রে পারফরমেন্স অপেক্ষাকৃত ভালো। যদিও যে হারে হওয়া উচিত ছিল, তা হয়নি বলেই মন্তব্য করে বেঙ্কাইয়া নাইডু বলেন, আরও বেশি করে রাজ্যগুলি যদি উদ্যোগ না নেয়, তাহলে তাদেরই লোকে সমালোচনা করবে।
সরকারি রিপোর্ট বলছে, পশ্চিমবঙ্গ এখনও পর্যন্ত যে ১ লক্ষ ৪৪ হাজার ৩৬৯ টি বাড়ি তৈরির অনুমোদন পেয়েছে, তার মধ্যে ৫ হাজার ৬৬৫ টির কাজ শেষ করেছে। ৪৫ হাজার ২৬৯টির কাজ শুরু হয়েছে। অন্যদিকে, মোদির রাজ্য গুজরাত ১ লক্ষ ৪৪ হাজার ৬৮৭ টি বাড়ি তৈরির অনুমোদন আদায় করে ২৮ হাজার ৭০ টি সম্পূর্ণ করেছে। ৯২ হাজার ৩৬৭ টির কাজ শুরু হয়েছে। অনুমোদন এবং সম্পূর্ণ করার পরিসংখ্যানে সবার আগে রয়েছে গুজরাত।
প্রশ্ন হল, স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্তি বর্ষের মধ্যে ভারতীয়দের সবার জন্য গৃহ, নরেন্দ্র মোদির স্বপ্ন পূরণের উদ্যোগ কি নতুন? কারাই বা পেতে পারেন এই স্বল্পমূল্যের বাড়ি? উত্তর হল, প্রকল্পটি নতুন নয়। তবে নতুন নামে, মোড়কে এনেছে মোদি সরকার। আগে যা ছিল জওহরলাল নেহরু ন্যাশনাল আরবান রিনিউয়াল মিশন, এখন পিএমএওয়াই বা প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা (আরবান)।
অন্যদিকে, হাউজিং ফর অল মানে কি বাস্তবিকই প্রত্যেকের জন্য বাড়ি? উত্তর হল, না। পেতে পারেন পরিবারের যেকোনও একজন। পরিবার মানে এক্ষেত্রে স্বামী, স্ত্রী তাদের সন্তান। শর্ত হল, সারা ভারতে যাদের নামে কোথাও কোনও বাড়ি নেই, একমাত্র সেইসব পরিবারই এই সরকারি সুযোগ পাবেন। বাড়ি যে নেই, তার প্রমাণপত্র লাগবে। চার ধরনের উপার্জনকারীরা এই বাড়ি পেতে পারেন। বছরে যাদের উপার্জন যথাক্রমে ৩ লক্ষ, ৬ লক্ষ, ১২ লক্ষ এবং ১৮ লক্ষ টাকা পর্যন্ত, তারা এই সুযোগ পাবেন। এই চার উপার্জনকারী শ্রেণির জন্য ব্যাংক ঋণের ক্ষেত্রে ভরতুকির ব্যবস্থা করে কেন্দ্র বাড়ি তৈরিতে বা বাড়ি কিনতে উৎসাহ দিচ্ছে। বছরে যাদের উপার্জন তিন লক্ষ টাকা পর্যন্ত তারা (ইডব্লুএস) ঋণের ক্ষেত্রে ৬.৫ শতাংশ ছাড় পাবেন। মিলবে ৩০ বর্গ মিটার এলাকার বাড়ি। যাদের উপার্জন ৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত তারা (এমআইজি) পাবেন সাড়ে ৬ শতাংশ হারে সুদ ছাড়। মিলবে ৬০ বর্গ মিটার এলাকার বাড়ি। এমআইজি ওয়ানে যাদের উপার্জন বছরে ১২ লক্ষ টাকা তার ঋণের ক্ষেত্রে ভরতুকি পাবেন ৪ শতাংশ। মিলবে ৯০ বর্গমিটার এলাকার বাড়ি। আর যাদের উপার্জন ১৮ লক্ষ টাকা পর্যন্ত, তারা ঋণে ছাড় পাবেন ৩ শতাংশ। এমআইজি টুতে মিলবে ১১০ বর্গমিটার এলাকার বাড়ি। স্থানীয় পুরসভার মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।
উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, মোদি সরকারের এই প্রকল্পে দিল্লিতে এ ধরনের বাড়ি তৈরির জন্য কেন্দ্রের কাছে কোনও আবেদনই আসেনি। অথচ দিল্লি যেহেতু কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল, তাই তার জমির অধিকারও কেন্দ্রের। তাহলে সমস্যা কীসের? প্রশ্ন করায় বেঙ্কাইয়া নাইডু বলেন, এটা অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকারকে জিজ্ঞেস করুন। জমি কেন্দ্রের হতে পারে। কিন্তু প্রস্তাব রা঩জ্যের মাধ্যমেই আসতে হবে। তার জন্য কেন্দ্রের সঙ্গে যে ‘মউ’ চুক্তি করতে হয়, আপ সরকার তা করেনি। তাই বাড়ি হচ্ছে না। মোদির ঘোষণা, অথচ তা এগচ্ছে শম্বুকগতিতে। দু’বছর পরেই লোকসভা নির্বাচন। সেই কারণেই এখন রাজ্যের ঘাড়ে দায়িত্ব চাপাচ্ছে কেন্দ্র? উঠছে প্রশ্ন।
21st  April, 2017
  ‘ব্লু হোয়েল’ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ দিল্লি হাইকোর্টের

 নয়াদিল্লি, ১৭ আগস্ট (পিটিআই): ‘ব্লু হোয়েল’-এর ফাঁদে আত্মহত্যার ঘটনায় উদ্বিগ্ন দিল্লি হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার অস্থায়ী প্রধান বিচারপতি গীতা মিত্তাল এবং বিচারপতি সি হরি শংকরের বিভাগীয় বেঞ্চ উদ্বেগ প্রকাশ করে বলে, ‘বাচ্চা এবং প্রাপ্তবয়স্ক একইসঙ্গে কীভাবে এই খেলায় অনুরক্ত হচ্ছে, সেটাই বিস্ময়ের।
বিশদ

কর্মহীন দালালরাই আজ বেকারত্ব নিয়ে সরব, দুর্নীতি প্রসঙ্গে মোদি

 নয়াদিল্লি, ১৭ আগস্ট (পিটিআই): আজ দালালরাই বেকারত্ব নিয়ে চিৎকার করছে। দেশ থেকে দুর্নীতি সমূলে উৎখাত করতে তাঁর সরকার পদক্ষেপ নিয়েছে বলে নাম না করে এমনটাই জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাশাপাশি, সাধারণ মানুষকে সুরাহা দিতে আরও পদক্ষেপের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।
বিশদ

  সন্তানের জন্ম দিল চণ্ডীগড়ের সেই ধর্ষিতা ১০ বছরের বালিকা

 চণ্ডীগড়, ১৭ আগস্ট (পিটিআই): বালিকাতেই মা হল ১০ বছরের সেই ধর্ষিতা। বৃহস্পতিবার চণ্ডীগড়ের এক সরকারি হাসপাতালে সিজার ডেলিভারির মাধ্যমে সন্তানের জন্ম দেয় সে। বর্তমানে ওই বালিকার অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি, সদ্যোজাতকে ‘নিও নেটাল আইসিইউ’-তে রাখা হয়েছে।
বিশদ

  স্বাধীনতা দিবস: নির্দেশ অমান্যকারী মাদ্রাসার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে যোগী সরকার

 বেরিলি (উত্তরপ্রদেশ), ১৭ আগস্ট (পিটিআই): স্বাধীনতা দিবসে আবশ্যিক অনুষ্ঠান করার নির্দেশ অমান্য করার অভিযোগ পেলেই সংশ্লিষ্ট মাদ্রাসার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে উত্তরপ্রদেশ সরকার। বৃহস্পতিবার এমনই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন বেরিলির ডিভিশনাল কমিশনার পিভি জগন্মোহন।
বিশদ

মোদিকে হারাতে পারে
মহাজোটই: রাহুল

  সন্দীপ স্বর্ণকার, নয়াদিল্লি, ১৭ আগস্ট: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুরেই আজ নরেন্দ্র মোদিকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন রাহুল গান্ধী। সোনিয়া গান্ধীর ডাকা বৈঠকে দিল্লি এসে যে সুর বেঁধে দিয়ে গিয়েছিলেন মমতা, এক সপ্তাহ পর আজ জেডিইয়ের বিদ্রোহী নেতা শারদ যাদবের ডাকা বিরোধী দলের সভায় ঠিক সেই কথাই বললেন রাহুল। বললেন, নরেন্দ্র মোদি যত বড় শক্তিশালীই হোন না কেন, বিরোধীদের মহাজোট হলে মোদিকে ক্ষমতাচ্যুত করা সম্ভব।
বিশদ

৭ পুরসভাই তৃণমূলের দখলে
১৫০টির মধ্যে মাত্র ৬টি ওয়ার্ড বিজেপির  সাফ কং-সিপিএম

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা এবং বিএনএ: প্রত্যাশা মতোই রাজ্যের সাত পুরসভায় তৃণমূলের জয়জয়কার। ধূপগুড়ি, বুনিয়াদপুর, দুর্গাপুর, কুপার্স ক্যাম্প, নলহাটি, পাঁশকুড়া ও হলদিয়া পুরসভার সবগুলি এবং চাঁপদানি ও ঝাড়গ্রাম পুরসভার একটি করে- এই মোট ১৫০টি ওয়ার্ডের মধ্যে ১৪২টি ওয়ার্ড তৃণমূলের দখলে। সিপিএম ও কংগ্রেসের ভাঁড়ার শূন্য। তবে টিমটিমে সলতের মতো বাম শরিক ফরওয়ার্ড ব্লক জিতেছে একটি আসন। গত দু-তিনটি উপনির্বাচনের মতোই এবারও সিপিএমকে তৃতীয় স্থানে ফেলে দিয়ে দ্বিতীয় হল বিজেপি। তারা ধূপগুড়িতে চারটি এবং বুনিয়াদপুর ও পাঁশকুড়ায় পেয়েছে একটি করে ওয়ার্ড। এই জয়কে মানুষের জয় বলে আখ্যা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিরোধীদল সিপিএম, বিজেপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নির্বাচনকে প্রহসনে পরিণত করা হয়েছে। তাই এই ফলাফল প্রত্যাশিতই ছিল।
বিশদ

  ফের ধর্ষণের ঘটনা উত্তরপ্রদেশে

 বান্দা ও মুজফফরনগর, ১৭ আগস্ট (পিটিআই): ফের ধর্ষণের ঘটনার খবর মিলেছে উত্তরপ্রদেশে। আট বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রতিবেশী যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার পুলিশ এই খবর জানিয়েছে। এসপি শালিনী জানিয়েছেন, অভিযুক্ত এবং কিশোরী, দু’জনেই একই গ্রামের বাসিন্দা।
বিশদ

  পদত্যাগ করলেন ভুয়ো সংঘর্ষে মৃত্যুর মামলায় অভিযুক্ত গুজরাতের দুই পুলিশ অফিসার

 আমেদাবাদ ও নয়াদিল্লি, ১৭ আগস্ট (পিটিআই): পদত্যাগ করলেন ভুয়ো সংঘর্ষে মৃত্যুর মামলায় অভিযুক্ত গুজরাতের দুই সিনিয়র পুলিশ অফিসার এন কে আমিন এবং তরুণ ব্যারট। শুক্রবারই তাঁরা সুপ্রিম কোর্টে জানিয়েছিলেন, এদিনের মধ্যেই তাঁরা পদত্যাগ করবেন।
বিশদ

  আর লবি নয়, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের শীর্ষ পদের নিয়োগে এবার শুধুই দেখা হবে যোগ্যতা ও পারফরমেন্স: কেন্দ্র

 নয়াদিল্লি, ১৭ আগস্ট (পিটিআই): পরিষেবা প্রদানকে কেন্দ্র করে বেসরকারি ব্যাংকগুলির কাছে ক্রমশই জমি হারাচ্ছে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলি। পাশাপাশি, পরিচালনায় পেশাদারিত্বের অভাবে বাড়ছে অনাদায়ী ঋণের পরিমাণ। আর সেকারণেই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের শীর্ষ স্তরের নিয়োগে যোগ্যতা ও পারফরমেন্সের উপর জোর দেওয়া হচ্ছে।
বিশদ

  অত্যধিক সোনা আমদানি, দক্ষিণ কোরিয়ার উপর সেফগার্ড ডিউটি চাপাতে বিজ্ঞপ্তি জারি কেন্দ্রের

 নয়াদিল্লি, ১৭ আগস্ট (পিটিআই): সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়া থেকে বেড়েছে সোনা আমদানির পরিমাণ। সেই পরিপ্রেক্ষিতে সেদেশ থেকে আমদানিকৃত পণ্যের উপর ‘রক্ষাকবচ শুল্ক’ বা সেফগার্ড ডিউটি চাপাতে চলেছে নয়াদিল্লি। সেজন্য ‘ইন্ডিয়া-কোরিয়া কম্প্রিহেনসিভ ইকনমিক পার্টনারশিপ এগ্রিমেন্ট (বাইল্যাটারাল সেফগার্ড মেজার্স) রুলস ২০১৭’ সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে রাজস্ব বিভাগ।
বিশদ

চিকিৎসার জন্য বাবার সঙ্গে কলকাতায়
আসার পথে ট্রেনে মৃত্যু ৭ বছরের ছেলের

 বিএনএ, চুঁচুড়া: দীর্ঘদিন ধরেই কিডনির সমস্যায় ভুগছিল ছেলে। স্থানীয় চিকিৎসকদের দেখিয়েও তেমন কিছুই হচ্ছিল না। তাই ভালো চিকিৎসার জন্য ট্রেনে করে কলকাতায় নিয়ে আসছিলেন বাবা-মা। কিন্তু, কলকাতায় পৌঁছানোর আগেই বলাগড়ের কাছে মৃত্যুর কোলে ঢুলে পড়ল সাত বছরের সালিম শেখ। মৃত ছেলেকে নিয়ে তাই বাঁশবেড়িয়া স্টেশনে নেমে পড়েন ফারুখ শেখ ও তাঁর এক আত্মীয়।
বিশদ

Pages: 12345




একনজরে
রাতুল ঘোষ: মহান ফুটবলার ও সফল কোচ রূপে জিনেদিন জিদান ইতিমধ্যেই বিশ্ব ফুটবলের চিরকালীন তারকা সাম্রাজ্যে নিজের আসন পাকা করে ফেলেছেন। মারিও জাগালো, ফ্রানৎজ বেকেনবাওয়ার ...

সংবাদদাতা, কাঁথি: বুধবার এগরা ও কাঁথির দুই নাবালিকার বিয়ে রুখল পুলিশ ও প্রশাসন। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কুদি এলাকার বছর ষোলোর এক নাবালিকার সঙ্গে এগরার পিরিচখাঁবাড় এলাকার এক যুবকের বিয়ে ঠিক হয়। পরিবারের লোকজনের চাপে ওই নাবালিকা বিয়েতে মত দেয় ...

 সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: রাজ্যের কলেজগুলিতে ভরতির প্রক্রিয়া শেষ। কিন্তু তারপরও দেখা যাচ্ছে, অনেক কলেজেই অনেক আসন ফাঁকা পড়ে রয়েছে। যা যথেষ্ট চিন্তার কারণ। উচ্চশিক্ষা দপ্তরে ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ফের ভুয়ো ডাক্তার ধরা পড়ল সিআইডির হাতে। পুলিশ জানিয়েছে, হাওড়া স্টেশন থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। নাম দিব্যেন্দু চক্রবর্তী। তিনি ডাক্তার ডি চক্রবর্তী নামে এলাকায় পরিচিত ছিলেন। ভুয়ো চিকিৎসক-কাণ্ডের তদন্তে নেমে তাঁর নাম উঠে আসে। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চপদস্থ ব্যক্তির সহায়তায় কর্মস্থলে জটিলতার সমাধান। বাতজ বেদনায় কষ্ট পাবার সম্ভাবনা। প্রেম-প্রণয়ে সাফল্য। পরশ্রীকাতর ব্যক্তির ... বিশদ



ইতিহাসে আজকের দিন

১৯০০- রাজনীতিক বিজয়লক্ষ্মী পণ্ডিতের জন্ম
১৯৩৬- গীতিকার ও পরিচালক গুলজারের জন্ম
১৯৫৮- ইংলিশ চ্যানেল অতিক্রম করলেন প্রথম এশীয় ব্রজেন দাস
১৯৮০- গায়ক দেবব্রত বিশ্বাসের মৃত্যু


ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.৪৫ টাকা ৬৫.১৩ টাকা
পাউন্ড ৮১.৩৭ টাকা ৮৪.১৮ টাকা
ইউরো ৭৪.০৮ টাকা ৭৬.৬৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
17th  August, 2017
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,৪৬৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৭,৯৫৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,৩৭৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

দৃকসিদ্ধ: ১ ভাদ্র, ১৮ আগস্ট, শুক্রবার, একাদশী দিবা ১০/১, আর্দ্রানক্ষত্র রাত্রি ৯/৩, সূ উ ৫/১৮/১৩, অ ৬/২/৫১, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৯ পুনঃ ৭/৫১-১০/২৪ পুনঃ ১২/৫৭-২/৩৯ পুনঃ ৪/২০-অস্তাবধি, বারবেলা ৮/২৯-১১/৪১, কালরাত্রি ৮/৫২-১০/১৭।
১ ভাদ্র, ১৮ আগস্ট, শুক্রবার, একাদশী ৮/২৮/১১, আর্দ্রানক্ষত্র রাত্রি ৮/৪৬/১২, সূ উ ৫/১৫/৫৩, অ ৬/৪/৪১, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৮/২৩, ৭/৪৯/৩৯-১০/২৩/২৪, ১২/৫৭/১০-২/৩৯/৫০, ৪/২২/১১-৬/৪/৪১ রাত্রি ৭/৩৪/১১-৯/৩/১১, ৯/৩/৪০, ৩/১/৩৯-৩/৪৬/২৩, বারবেলা ৮/২৮/৫-১০/৪/১১, কালবেলা ১০/৪/১১-১১/৪০/১৭, কালরাত্রি ৮/৫২/২৯-১০/১৬/২৩।
২৫ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বিয়ে করলেন রিয়া সেন 
গুঞ্জন সত্যি প্রমাণ করে বিয়েটা সেরে ফেললেন রিয়া সেন। গত বুধবার পুনেতে প্রেমিক শিবম তিওয়ারির সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেন তিনি। সূত্রের খবর, বিয়েতে নিমন্ত্রিতদের তালিকায় একেবারেই ঘনিষ্ঠ আত্মিয়রা ছিলেন। হাজির ছিলেন রিয়ার মা তথা বর্তমানে এমপি মুনমুন সেন এবং তাঁর অভিনেত্রী বোন রাইমা সেন। রাইমাই প্রথম বিয়ের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন। শিবম তিওয়ারির সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরেই ছবি পোস্ট করছিলেন সুচিত্রা সেনের নাতনি রিয়া। শোনা যাচ্ছিল, এমাসেই বিয়ে করবেন তাঁরা। বিয়ে অবশ্য করলেন কিন্তু লোকচক্ষুর আড়ালে গিয়ে। বি-টাউনের খবর, সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়েছেন রিয়া। তাই তাড়াহুড়োয় বিয়ে সেরে ফেললেন।

04:06:08 PM

জলপাইগুড়ির নার্সিংহোমে চিকিৎসার গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ

 জলপাইগুড়ির একটি নার্সিংহোমে রোগী মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। নার্সিংহোমের বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে পরিবারের পক্ষ থেকে।

03:34:00 PM

 নেতাজি ইস্যুতে বোস পরিবারের সদস্য ও নেতাজি অনুগামীদের মিছিল শুরু

03:32:00 PM

মানিক সরকারকে খুনের হুমকি 
স্বাধীনতা দিবসের ভাষণ কাটছাঁট করা নিয়ে প্রসার ভারতীর সঙ্গে বিবাদে জড়িয়েছিলেন তিনি। এর তিনদিনের মধ্যেই ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারকে ফেসবুকে খুনের হুমকি দেওয়া হল। পুলিশ সূত্রে খবর, ফেসবুকে এক মহিলার নামের অ্যাকাউন্ট থেকে একটি সংগঠনের নাম করে মানিক সরকারকে খুনের হুমকি দেওয়া হয়। সেখানে বলা হয়েছে, যে বা যারা ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীকে খুন করতে পারবে, সে বা তাদের ৫ লক্ষ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। ঘটনার কথা জানতে পেরে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা রুজু করেছে পুলিশ। 

03:04:39 PM

কেতুগ্রামে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের অভিযোগ, গুলিবিদ্ধ হয়ে কিশোরের মৃত্যু 

02:53:12 PM

কোলাঘাট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ছাত্র বিক্ষোভ, অধ্যাপকদের ঢুকতে বাধা, পঠনপাঠন শিকেয় 

01:41:07 PM