দক্ষিণবঙ্গ
 

শীতের শুরুতেই ভিড়, বিষ্ণুপুরে জমে উঠেছে পোড়ামাটির হাট 

সংবাদদাতা, বিষ্ণুপুর: শীত পড়তেই বিষ্ণুপুরে পোড়ামাটির হাট জমে উঠেছে। প্রতি শনিবারের হাটে স্থানীয় বাসিন্দারা ছাড়াও পর্যটকদের ভিড় হচ্ছে। শুধু তাই নয়, ধামসা মাদলের বোলে আদিবাসী রমণীদের নাচের তালে পা মিলিয়ে ভিন দেশের নাগরিকরা অনাবিল আনন্দ উপভোগ করছেন। মহকুমা প্রশাসন পরিচালিত শান্তিনিকেতনে সোনাঝুরি হাটের আদলে হওয়া পোড়ামাটির হাট সবে ৯ সপ্তাহে পড়েছে। তার মধ্যেই জনমানসে বিপুল সাড়া ফেলেছে। ঐতিহাসিক জোড় শ্রেণীর মন্দিরপ্রাঙ্গণে প্রতি শনিবার বসা হাটে পোড়া মাটি, ঢোকরা, শঙ্খ থেকে শুরু করে বিভিন্ন হস্তশিল্পের সম্ভার নিয়ে হাজির হচ্ছেন শিল্পীরা। সেই সঙ্গে মহকুমা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আদিবাসী নৃত্য, রণপা থেকে শুরু করে দর্শনার্থীদের মনোরঞ্জনের জন্য নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে বিষ্ণুপুরের পোড়ামাটির হাট অল্পদিনেই বেশ জমে উঠেছে। সেই কারণে শুরুর সময় বেলা আড়াইটে থেকে হাট বসলেও ক্রমশ জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকায় এখন তা এগিয়ে এনে দুপুর ১টা থেকে শুরু হচ্ছে। দিন দিন ভিড় বাড়তে থাকায় হাটের পরিসরও বাড়ানো হয়েছে।
বিষ্ণুপুরের মহকুমা শাসক মানস মণ্ডল বলেন, বিষ্ণুপুরে বালুচরি, টেরাকোটা, কাঁসা, শঙ্খ, লণ্ঠন প্রভৃতি হস্তশিল্প রয়েছে। কিন্তু, শিল্পীরা বিচ্ছিন্নভাবে নিজেদের মতো করে কাজ করেন। তাতে শিল্পের প্রসারে ব্যাঘাত ঘটছে। সেই জন্য একই জায়গায় সপ্তাহে একদিন তাঁদের শিল্পদ্রব্য নিয়ে বসানোর ব্যবস্থা করা হয়। শুধু তাই নয়, পোড়ামাটির হাটকে আর পাঁচটা হাটের চেয়ে একটু ভিন্ন স্বাদের করা হয়েছে। পর্যটকদের হাটমুখী করতে আদিবাসী নৃত্য, রণপা, কীর্তন, লোক সঙ্গীত সহ নানা ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছাড়াও কিতকিত, কানামাছি, রুমালচুরি, কুমিরডাঙা প্রভৃতি পুরনো দিনের হারিয়ে যাওয়া খেলা নিয়ে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হচ্ছে।
হাটে প্লাস্টিক দ্রব্যের ব্যবহার নিষিদ্ধ রয়েছে। ঐতিহাসিক মন্দির প্রাঙ্গণে চলা মেলায় বিক্রেতারা মাদুরের উপর শিল্প সামগ্রী রেখে তা বিক্রি করেন। হাটে আসা দর্শনার্থীদের মনোরঞ্জনের জন্য ডুয়েট সাইকেল ও হ্যামক টাঙানো হয়। তাতে চড়ে দর্শনার্থীরা অনাবিল আনন্দ উপভোগ করতে পারছেন। বৈচিত্র্যপূর্ণ সম্ভারে সাজানোয় পোড়ামাটির হাট অল্পদিনেই বিপুল সাড়া মিলেছে।
মানসবাবু বিষ্ণুপুরে এসে মুখ্যমন্ত্রীর ভাবনাকে বাস্তবায়িত করার লক্ষ্যে ঐতিহাসিক মন্দির সহ পর্যটনকেন্দ্রকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরার প্রয়াস শুরু করেন। তার জন্য মিউজিক ফেস্টিভ্যাল থেকে শুরু করে বিষ্ণুপুরের নিজস্ব লোগো, বিষ্ণুপুরী গেঞ্জি, পোড়ামাটির হাট সহ নিত্যনতুন নানা উদ্যোগ নেন। তাতে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যেও বেশ উৎসাহ দেখা যায়। তবে পোড়ামাটির হাটকে অন্য আঙ্গিকে মুড়ে চালু করায় অল্পদিনেই ব্যাপক সাড়া পড়ে। শীতের মরশুম শুরু হতেই তা আরও জমে উঠেছে। পর্যটনের মরশুম হওয়ায় বিষ্ণুপুরে ভিন রাজ্য ছাড়াও বিদেশি পর্যটকের আনাগোনা বেড়েছে। জোড়শ্রেণীর মন্দির প্রাঙ্গণে ঐতিহাসিক তিনটি মন্দির রয়েছে। সেখানে মন্দির দেখার পাশাপাশি শনিবারে পোড়ামাটির হাটে বাড়তি পাওনা হিসেবে আদিবাসী নৃত্য, রণপা সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান দেখতে পাচ্ছেন। সেই সঙ্গে হাটে হস্তশিল্পের নানা সামগ্রী কিনতে পারছেন।
গত শনিবার সুদূর ফ্রান্সের একদল পর্যটক পোড়ামাটির হাটে হাজির ছিলেন। তাঁদের মধ্যে দু’জন হাটের ছবি তুলতে ব্যস্ত ছিলেন। পরে তাঁদেরকেই দেখা গেল হ্যামকে দুলতে। আবার ইতালির দুই মহিলা পর্যটককে ধামসা মাদলের তালে আদিবাসী রমণীদের নাচে পায়ে পা মেলাতে দেখা গেল। তাঁরা জানান, তাঁরা দারুণ এনজয় করেছেন। বিষ্ণুপুরে ঐতিহাসিক মন্দির দেখার পাশাপাশি এত মানুষের সঙ্গে খোলামেলাভাবে মিশতে পারছেন। এদেশের সংস্কৃতিকে এত কাছ থেকে দেখার সুযোগ পেয়ে তাঁরা আপ্লুত।
তবে শুধু মনোরঞ্জনই নয়, পোড়ামাটির হাটে স্থানীয় স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যরা তাঁদের তৈরি খাবার থেকে শুরু করে নানা হস্তশিল্পের সামগ্রী নিয়ে বসছেন। কেউ মাটির তৈরি হরেক রকমের গয়না, কেউ পোড়ামাটির ঘর সাজানোর জিনিস, কেউ বাঁশের কাজ, কেউ বা মাংস, রুটি, ঘুগনির দোকান বসাচ্ছেন। তা থেকে তাঁদের ভালো আয় হচ্ছে। স্থানীয় স্বনির্ভর গোষ্ঠীর এক সদস্য বলেন, প্রথম দিকে মেলায় বিক্রি কম হতো। তবে এখন মেলায় প্রচুর ভিড় হচ্ছে। বিক্রিও ভালো হচ্ছে।
বিষ্ণুপুরের নাগরিকদের একাংশের বক্তব্য, সপ্তাহে একদিন শহরের বাসিন্দারা পোড়ামাটির হাটে সকলেই চুটিয়ে আনন্দ উপভোগ করছেন। হ্যামক ও ডুয়েট এখানে খুবই আকর্ষণীয়। ঐতিহাসিক মন্দিরের পাশাপাশি আগামীদিনে পোড়া মাটির হাটের টানে বাইরের বহু মানুষ বিষ্ণুপুরে আসবেন। 
07th  December, 2018
বাড়ি তৈরির জন্য টাকা চাইলেই জেলে ঢুকিয়ে দেব, ফের বললেন অনুব্রত 

বিএনএ, পাথরচাপুড়ি: রবিবার পাথরচাপুড়িতে সিউড়ি-১ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস আয়োজিত জনসভায় ফের দলের পঞ্চায়েত প্রধান ও সদস্যদের হুঁশিয়ারি দিলেন জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। সরকারি প্রকল্পে বাড়ি তৈরির জন্য টাকা চাইলেই জেলে ঢোকানোর হুঁশিয়ারি দেন তিনি।  বিশদ

বেহাল পরিকাঠামোর জেরে মাইথনে কমে যাচ্ছে পর্যটক  

সুখেন্দু পাল, মাইথন, বিএনএ: বেহাল রাস্তা ও পরিকাঠামোর জেরে পর্যটনের মরশুমেও মাইথন থেকে মুখ ফেরাচ্ছেন পর্যটকরা। বেহাল রাস্তা সংস্কার করতে পারেনি ডিভিসি। আলোর ব্যবস্থা নেই। ফলে, পছন্দের সবুজে ঘেরা এই জলাধারে আসতে পর্যটকরা আগ্রহ হারাচ্ছেন বলে স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিমত।   বিশদ

অনিয়মিত বেতন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভ
প্রকাশে আশার আলো দেখছেন নুলিয়ারা 

বিএনএ, তমলুক: তাঁদের অনিয়মিত বেতন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করায় আশার আলো দেখছেন দীঘার নুলিয়ারা। প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার দীঘায় অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নিজেদের জীবন বাজি রেখে পর্যটকদের জীবন বাঁচানোর কাজ যাঁরা করেন, তাঁদের মাসিক বেতন কেন সময়ে হবে না?  বিশদ

দিনমজুরের মেয়ে শম্পা হাই জাম্পে রাজ্যে দ্বিতীয় 

বিএনএ, আরামবাগ: দিনমজুর মায়ের খেলোয়াড় মেয়ে শম্পা সিংয়ের দিন গুজরানই বড় দায় হয়ে উঠেছে। তারই মধ্যে খেলাধুলোয় রাজ্যস্তরের সাফল্যে সে এলাকায় স্টার হয়ে উঠেছে। গোঘাটের নকুণ্ডা গ্রামের দ্বাদশ শ্রেণীর ওই ছাত্রী সম্প্রতি হাই জাম্পে রাজ্য স্তরে দ্বিতীয় হয়েছে।  বিশদ

Loading...
তান্ত্রিকের কাছে নিয়ে যাওয়ার নামে স্ত্রীকে খুন করাল স্বামীই 

বিএনএ, সিউড়ি: শান্তিনিকেতন থানার চিপকুঠির জঙ্গলে রহস্যজনকভাবে মহিলা খুনের ঘটনার দশদিনের মধ্যে কিনারা করল পুলিস। পারিবারিক অশান্তির জেরে স্ত্রীকে ত্রান্ত্রিকের কাছে নিয়ে যাওয়ার নাম করে নিজের গাড়ির চালককে দিয়ে তাঁর স্বামী খুন করায় বলে পলিসের দাবি।  বিশদ

সুপারিশ তালিকা বাদ দিয়ে সর্বসম্মতিক্রমে কর্মাধ্যক্ষ নির্বাচন করলেন পার্থ 

সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম: সুপারিশ তালিকা বাদ দিয়েই সর্বসম্মতিক্রমে ঝাড়গ্রাম জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ নির্বাচন করলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শনিবার ঝাড়গ্রামে জেলা প্রাথমিক বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পর রাজবাড়ি ট্যুরিস্ট কমপ্লেক্সে সমস্ত জেলা পরিষদের সদস্য, দলীয় নেতা ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে মিটিং করেন পার্থবাবু।   বিশদ

Loading...
মাকে স্নান করানোর রীতি বন্ধ হচ্ছে
তারাপীঠে আর পালা বিক্রি নয়, সিদ্ধান্ত মন্দির কমিটির 

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: অবশেষে কঠোর সিদ্ধান্তে পৌঁছল তারাপীঠ মন্দির কমিটি। এবার বন্ধ হল পালা বিক্রি। সেই সঙ্গে বহিরাগত পূজারিদের দাপট রুখতে একগুচ্ছ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হল। পাশাপাশি মা তারার বিগ্রহের উপর নানা রকমের ফুল, বেলপাতা, অগুরু, গোলাপজল, মদ, সুগন্ধি তেল, চন্দন, ডাব বা নারকেলের জল দিয়ে স্নান করানোর রীতি চিরতরে বন্ধ হতে চলেছে। তবে মা তারার চরণে পুজো নিবেদন করতে পারবেন পুণ্যার্থীরা।   বিশদ

ভাতারে ৪ মাসের মেয়েকে খুনের অভিযোগে স্বামীর ফাঁসি চান শিশুর মা 

সংবাদদাতা, বর্ধমান: চার মাসের মেয়েকে মেরে ফেলার জন্য স্বামীর ফাঁসি চান মৃত শিশুর মা। বিচারকের কাছে সেই দাবিই জানাবেন তিনি। চার মাসের মেয়েকে মেরে ফেলার অভিযোগে ধৃত মনোজ দাসকে রবিবার আদালতে পেশ করা হয়।  বিশদ

আটক কাউন্সিলার
বহরমপুরে দলের কার্যালয়ে আক্রান্ত
তৃণমূলের জেলা সহ সভাপতি 

বিএনএ, বহরমপুর: বহরমপুরে দলের জেলা কার্যালয়েই আক্রান্ত হলেন তৃণমূলের জেলা সহসভাপতি অশোক দাস। অভিযোগ, পার্টি অফিসের মেঝেতে ফেলে চেয়ার ও বাঁশ দিয়ে অশোকবাবুকে বেধড়ক পিটিয়েছেন তৃণমূলেরই একাংশ। অভিযুক্তদের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র ছিল।  বিশদ

বর্ধমান শহর থেকে ৩০০-র বেশি বাস চলবে না
আজ থেকে দক্ষিণ দামোদরে বাস ধর্মঘটের ডাক 

শ্রীকান্ত পড়্যা, বর্ধমান, বিএনএ: বর্ধমান-আরামবাগ রোডে পূর্ব বর্ধমান জেলার অধীন ৩২কিলোমিটার রাস্তার মধ্যে ৮৮টি হাম্প বসানোর প্রতিবাদে আজ, সোমবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য দক্ষিণ দামোদরে বাস ধর্মঘটের ডাক দিল জেলা বাস অ্যাসোসিয়েশন।   বিশদ

নাবালক মোবাইল চোর-১
অআকখ-র বদলে ছোটবেলায় শেখে হাপিস ছুট কামাল 

সুখেন্দু পাল, আসানসোল, বিএনএ: ছোটবেলায় অ-আ-ক-খ নয়, মুখে বুলি ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই ওরা পরিচিত হয়ে যায় হাপিস, ছুট, কামাল শব্দগুলির সঙ্গে। শৈশবে তারা টেডি বা অন্য খেলনা ছুঁয়েও দেখে না। পরিবর্তে তারা ওই বয়সেই ২৫ থেকে ৪০হাজার টাকা দামের মোবাইল সেট ঘাঁটাঘাঁটি করে।  বিশদ

মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনে কেটে গেল জটিলতা
কালনা-শান্তিপুর ব্রিজের জন্য জমি দেবেন চাষিরা 

বিএনএ, বর্ধমান: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আবেদনে সাড়া দিয়ে ভাগীরথী নদীর উপর কালনা-শান্তিপুর সংযোগকারী ব্রিজের অ্যাপ্রোচওয়ের জন্য জমি দিতে মুখিয়ে আছেন স্থানীয় জমি মালিকরা। রবিবার থেকেই চাষিদের মধ্যে নোটিস বিলি শুরু করেছে প্রশাসন। আগামী ১২ডিসেম্বর থেকে জমি মালিকদের নিয়ে কালনা মহকুমা শাসকের অফিসে শুনানি শুরু হবে। তারআগে রবিবার থেকে নোটিস বিলি শুরু হয়েছে।  বিশদ

দুই উড়ালপুলকে জোড়ার সম্ভাবনা খতিয়ে দেখতে খড়্গপুরে প্রতিনিধি দল 

সংবাদদাতা, খড়্গপুর: খড়্গপুর শহরের গিরিময়দান রেলগেটের উপর প্রস্তাবিত উড়ালপুলের সঙ্গে খড়িদা রেলগেটকে যুক্ত করা যায় কিনা, তা এক উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদল খতিয়ে দেখলেন।  বিশদ

আপত্তি গ্রামবাসীদের একাংশের, আজ বৈঠক
ডাম্পিং গ্রাউন্ড ও জৈব সার তৈরির কারখানা
গড়ার উদ্যোগ বেলডাঙা পুরসভার 

বিএনএ, বহরমপুর: এবার ডাম্পিং গ্রাউন্ড ও জৈব সার তৈরির কারখানা গড়তে উদ্যোগী হল তৃণমূল পরিচালিত বেলডাঙা পুরসভা। তারা এজন্য মাড্ডা গ্রাম পঞ্চায়েতে দু’টি খাস জমি দেখেছে। এই খবর চাউর হতেই প্রকল্পগুলি নিয়ে গ্রামবাসীদের একাংশ আপত্তি তুলেছেন। এ ব্যাপারে বৈঠক তলব করেছে তৃণমূল পরিচালিত বেলডাঙা-১পঞ্চায়েত সমিতি। আজ, সোমবার পঞ্চায়েত সমিতির কার্যালয়ে ওই বৈঠক করা হবে।  বিশদ

Pages: 12345

Loading...
একনজরে
সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার: বিজেপি’কে রুখতে ফেডারেল ফ্রন্ট গড়ার লক্ষ্যে ১৯ জানুয়ারি তৃণমূল কংগ্রেসের ব্রিগেডের জমায়েতে আমন্ত্রণ পেলেও সিপিএম সেই আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করবে। রবিবার আলিপুরদুয়ারে দলের জেলা কমিটির বৈঠকে দলের এই অবস্থানের কথা জানান সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র।  ...

 মুম্বই, ৯ ডিসেম্বর (পিটিআই): মহারাষ্ট্রে ভোটের ডিউটিতে গিয়ে মারা গেলেন এক পুরকর্মী। পুলিস জানিয়েছে, রবিবার আহমেদনগর পুরসভার নির্বাচনে এই ঘটনা ঘটেছে। মৃত পুরকর্মীর নাম অশোক সূর্যবংশী। তোফখানা এলাকার একটি বুথে তাঁর ডিউটি ছিল। এক কর্তা জানিয়েছেন, সকালে অস্বস্তি বোধ করায় ...

সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: রাজ্যের কলেজগুলিতে ফাঁকা আসনের হার ক্রমশ বাড়ছে। গতবারের চেয়ে এবার অন্তত সাত শতাংশ বেশি আসন খালি পড়ে রয়েছে। উচ্চশিক্ষা দপ্তরের কাছে জমা পড়া রিপোর্টে এমনই তথ্য উঠে এসেছে। সরকারি কলেজই শুধু নয়, সরকার পোষিত কলেজগুলিতেও খালি আসনের ...

বিএনএ, চুঁচুড়া: পুজোর পর থেকে সেভাবে বৃষ্টি না হওয়ায় এবার ধানের ফলন ব্যাপক মার খেয়েছে। তাই খরচ কমাতে বহু কৃষক আদি প্রথা ছেড়ে যন্ত্রের মাধ্যমে ধান কেটেছেন। কিন্তু হুগলি জেলার কৃষকদের একটা বড় অংশ আমন ধান তোলার পর সেই জমিতে ...


Loading...

আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যায় সাফল্য ও হতাশা দুই-ই বর্তমান। নতুন প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠবে। কর্মপ্রার্থীদের শুভ যোগ আছে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব মানবাধিকার দিবস,
১৮৭০- ঐতিহাসিক যদুনাথ সরকারের জন্ম,
১৮৮৮- শহিদ প্রফুল্ল চাকীর জন্ম,
২০০১- অভিনেতা অশোককুমারের মৃত্যু 

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৭৫ টাকা ৭১.৪৪ টাকা
পাউন্ড ৮৮.৫৮ টাকা ৯১.৮০ টাকা
ইউরো ৭৮.৮২ টাকা ৮১.৮০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
08th  December, 2018
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,০৪০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৪০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩০,৮৫৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৭,৬০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৭,৭০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
09th  December, 2018

দিন পঞ্জিকা

২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার, তৃতীয়া ২৯/১১ দিবা ঘ ৫/৫০। নক্ষত্র- পূর্বাষাঢ়া ১১/৮ দিবা ঘ ১০/৩৭, সূ উ ৬/৯/৩৯, অ ৪/৪৮/৪৭, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৩৫ মধ্যে পুনঃ ৯/০ গতে ১১/৮ মধ্যে। রাত্রি ৭/২৯ গতে ১১/৩ মধ্যে পুনঃ ২/৩৭ গতে ৩/৩০ মধ্যে। বারবেলা ঘ ৭/২৭ গতে ৮/৪৮ মধ্যে পুনঃ ২/৮ গতে ৩/২৮ মধ্যে, কালরাত্রি ঘ ৯/৪৮ গতে ১১/২৮ মধ্যে।
২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার, তৃতীয়া অপঃ ৪/১৩/৩৫। পূর্বাষাঢ়ানক্ষত্র ৯/৫৯/২৮। সূ উ ৬/৯/৪৮, অ ৪/৪৮/৩, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৩৪/৫৪ মধ্যে ও ঘ ৯/০/০ থেকে ঘ ১১/৯/৩৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৮/২৪ থেকে ঘ ১১/২/১২ মধ্যে ও ২/৩৬/০ থেকে ৩/২৯/২৭ মধ্যে। বারবেলা ২/৮/২৯ থেকে ৩/২৮/১৬ মধ্যে, কালবেলা ৭/২৯/৩৫ থেকে ঘ ৮/৪৯/২২ মধ্যে, কালরাত্রি ৯/৪৮/৪২ থেকে ঘ ১১/২৮/৫৫ মধ্যে।
 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বিজয় মালিয়াকে ভারতে প্রত্যর্পণে সায় দিল ব্রিটিশ আদালত

06:00:00 PM

রামরাজাতলায় বেলাইন ট্রেন, ভাঙল ওভারহেড পোস্ট 

05:42:47 PM

পদত্যাগ করলেন আরবিআই গভর্নর উর্জিত প্যাটেল 
আজ, আরবিআইয়ের গভর্নর পদ থেকে ইস্তফা দিলেন উর্জিত প্যাটেল। ব্যক্তিগত ...বিশদ

05:27:00 PM

৫ দিনের মায়ানমার সফরে রওনা দিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ 

04:49:00 PM

৭১৩ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

04:02:48 PM

সবংয়ে নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ, পলাতক অভিযুক্ত 

02:36:07 PM

Loading...
Loading...