Bartaman Patrika
অমৃতকথা
 

 গুরু

 ‘‘অখণ্ডমণ্ডলাকারং ব্যাপ্তং যেন চরাচরম্‌।
তৎপদং দশিতং যেন তস্মৈ শ্রীগুরবে নমঃ।।’’
এই শ্লোকটি শ্রীগুরুর নমস্কার শ্লোক। লক্ষ্য করিতে হইবে এই স্থলে গুরুকে শ্রীগুরু বলিয়া উল্লেখ করা হইয়াছে। শ্রীশব্দ পরাশক্তির বাচক, সুতরাং শ্রীসহিত বা শ্রীযুক্ত গুরুই শ্রীগুরু ইহাতে কোন সন্দেহ নাই। গুরু শক্তিহীন শিব হইলে তাঁহাদ্বারা জীব বা জগতের কল্যাণসাধন সম্ভবপর হয় না। বস্তুতঃ তিনি জীবের উপাস্য নন, এমন কি নমস্কারের বিষয়ীভূত নন। কারণ শক্তিহীন শিব অব্যক্ত ও জীবের পক্ষে অনধিগম্য। হঠযোগ এবং তন্ত্রশাস্ত্র উভয়স্থলেই স্বরূপভূতা শক্তির সঙ্গে নিত্যমিলিত গুরুকে লক্ষ্য করিয়া শাস্ত্ররহস্য বর্ণিত হইয়াছে। কুণ্ডলিনীশক্তি জাগ্রত হইয়া যাবতীয় আধারকমল বিদ্ধ এবং অতিক্রম করিতে করিতে উত্থিত হইয়া সহস্রদলের বিন্দুস্থানে পরমশিবের সহিত মিলিত হন। এই মিলন নিত্য মিলন। এই মিলনে শিবরূপী গুরু শক্তিযুক্তরূপে সাক্ষী জীবের নিকট নিরন্তর অপরোক্ষভাবে প্রকাশিত হন। জীব সাধনবলে অথবা ভগবৎকৃপায় কোন শুভ মুহূর্তে এই মহা মিলনের অবস্থা লাভ করে। কিন্তু শ্রীগুরু নিত্যই নিজশক্তি দ্বারা আলিঙ্গিত থাকেন। তাই তিনি নমস্য।
‘তস্মৈ শ্রীগুরবে নমঃ’ বলিতে এই চৈতন্যরূপা শক্তিসংযুক্ত পরম গুরুতত্ত্বই জীবের নমস্কারের বিষয়রূপে লক্ষিত হইয়াছে। নমঃ বলিতে বুঝায় ন মম অর্থাৎ আমার নয় অর্থাৎ তোমার বা তাঁহার। আমি ভাব এবং তন্মূলক মমত্বভাব যাঁহাকে অর্পণ করা যায় তাহাই আমির পক্ষে নমস্য। এই নমস্কার শ্লোকে শ্রীগুরুতে আত্মসমর্পনের কথা বলা হইয়াছে। শুধু গুরুমাত্রে নহে।
শ্রীগুরুর স্বরূপটি বুঝাইবার জন্য শ্লোকের পূর্বাংশ উপদিষ্ট হইয়াছে। এই স্থানে পরমতত্ত্ব উপেয়রূপে এবং উপায়রূপে দুইভাবেই স্পষ্টভাবে নির্দিষ্ট হইয়াছে। যিনি উপেয় তাঁহাকে পরমপদ বলিয়া অর্থাৎ বিষ্ণুর পরমপদ বলিয়া গ্রহণ করা যাইতে পারে। ইহা ভগবদ্ভাবেরও অতীত পরমাবস্থা। যিনি এই পরমপদকে জীবের নিকট প্রকাশিত করেন তিনিই গুরু। বস্তুতঃ উপেয়রূপ পরমপদ এবং উপায়রূপ গুরু মূলতঃ অভিন্ন। কারণ উভয়ে স্বরূপগত ভেদ থাকিলে একটির দ্বারা অপরটির প্রাপ্তি বা প্রকাশন সম্ভবপর হইত না। যে যাহা নয় সে তাহা জানে না এবং জানাইতেও পারে না। সুতরাং যিনি পরমপদ স্বরূপ তিনিই যে বস্তুতঃ গুরুতত্ত্ব তাহাতে কোনই সন্দেহ নাই। তিনি স্বপ্রকাশ বলিয়া নিজেকে নিজে সদাই জানেন এবং পরপ্রকাশক বলিয়া নিজেকে জগতের নিকট প্রকাশ করেন। এই যে প্রকাশক রূপ ইহাই গুরুর রূপ। এই যে স্বপ্রকাশরূপ ইহাই পরমপদের স্বরূপ। বস্তুতঃ জীব বা জগতের নিকট সেই পরমবস্তুর প্রকাশ হইতেই পারে না। সুতরাং বুঝিতে হইবে গুরু যখন স্বীয় স্বরূপকে অর্থাৎ পরমতত্ত্বকে পরের নিকট প্রকাশিত করেন তখন পরকে আপন করিয়াই তাহা করেন নতুবা তাহা সম্ভবপর হইত না। এইজন্য যতক্ষণ জীবের তৃতীয় নেত্র অথবা জ্ঞান নেত্র উন্মিষিত না হয়—ততক্ষণ পরমপদ স্বপ্রকাশ হইলেও তাহার নিকট প্রকাশিত হয় না। শ্রীগুরুই এই জ্ঞাননেত্র—উন্মেষের কারণ। অনাদি অজ্ঞান পাশে আবদ্ধ জীব যতক্ষণ শ্রীগুরুর কৃপায় এই জ্ঞাননেত্রের উন্মীলনের. সৌভাগ্য লাভ না করে ততক্ষণ তাহার পক্ষে মিথ্যাদর্শন ব্যতিরেকে পরমার্থ দর্শনের সম্ভাবনা কোথায়?
ডক্টর গোপীনাথ কবিরাজের ‘পত্রাবলী’ থেকে
25th  May, 2019
ঈশ্বর ও বিত্তদেবতা 

তোমরা যদি মানুষের অপরাধ ক্ষমা করো তবে তোমাদের স্বর্গস্থ পিতা তোমাদের ক্ষমা করবেন। কিন্তু তোমরা যদি অপরের অপরাধ ক্ষমা না করো তবে ভগবানও তোমাদের ক্ষমা করবেন না। 
বিশদ

 ভগবান বলছেন

ডাক্তার যেমন ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে তোমার চশমার পাওয়ার ঠিক করে, ঠিক আমরাও একই কাজ করি। জাগতিক লোক সব অন্ধ হয়ে গেছে, আমরা দেখাতে সাহায্য করি। দান করার সময় দু’হাতে দান করে দেবে। কিন্তু নেবার সময় ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে নিতে হবে। বিশদ

16th  June, 2019
মা

জয় মা। পূজো এলেই মনটা কেন জানি মাতৃসকাশে যাবার জন্য উদ্বেলিত হয়ে ওঠে। মা যখন স্বশরীরে ছিলেন প্রায় প্রতিবৎসর পূজোর সময় তাঁর কাছে যেতাম। কোন কোন সময় মা নিজেও যেতে বলতেন। তাই এবার পূজোয় কনখল যাব বলে স্থির করলাম। এখন কনখলে মায়ের সমাধি মন্দিরে মায়ের উপস্থিতি অনুভব করি।
বিশদ

15th  June, 2019
  বৌদ্ধধর্ম

ঐতিহাসিকের দৃষ্টিতে বৌদ্ধধর্ম এক বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ধর্ম—দার্শনিক দৃষ্টিতে নয়; কারণ পৃথিবীর ইতিহাসে এই ধর্মান্দোলন সর্বাধিক প্রবল আকারে দেখা দিয়েছিল, মানবসমাজের ওপর এই আন্দোলন সবচেয়ে শক্তিশালী আধ্যাত্মিক তরঙ্গে ফেটে পড়েছিল; এমন কোন সভ্যতা নেই, যার ওপর কোন না কোন ভাবে এর প্রভাব অনুভূত হয়নি।
বিশদ

14th  June, 2019
পরমেশ্বর

 এ সংসারে সত্য, ভালোবাসা—এ সবের মূল্য বড় অল্প। মাত্র তিরিশটি টাকার জন্য জুডাস তার প্রভু যীশুকে মৃত্যুর হাতে সঁপে দিয়েছিল। আমি সামান্য মানুষ, অসত্যের খড়্গে বারবার বলি হবো, তাতে আর আশ্চর্য হবার কি আছে! শাপগ্রস্ত রাজা নহুস যখন যুধিষ্ঠিরকে প্রশ্ন করেন—পরমেশ্বর কে?
বিশদ

13th  June, 2019
অমৃতকথা 

আমরা গভীর ভাবে নিজেদের দিকে তাকালে আশ্চর্যের সঙ্গে দেখব যে, আমাদের নিজেদের প্রতি, যে জগতে আমরা বাস করি সেই জগতের প্রতি এবং যাঁদের সঙ্গে মিশছি তাঁদের প্রতি আমরা একটা তীব্র অসন্তোষের ভাব পোষণ করি।  বিশদ

12th  June, 2019
মনের ধর্ম দ্বিবিধ

‘‘মনসা কল্পিতা মূর্ত্তিঃ নৃণাং চেন্মোক্ষসাধনী।
স্বপ্নলব্ধেন রাজ্যেন রাজানঃ মানবাস্তথা।।” বিশদ

11th  June, 2019
প্রেমলাভ

আশ্রম হবে প্রেম ও পবিত্রতার কেন্দ্র—লোকে সেখানে থেকে পাবে আলো, মহৎ আদর্শ। অনুশীলন ছাড়া কোনো বস্তুকে আয়ত্ত করা যায় না। ভগবৎপ্রেম লাভের জন্য প্রত্যেক সাধককেই দুশ্চর তপস্যা করতে হয়েছে। প্রেমলাভের উপায় আছে—কিন্তু সংসারে ক’জন মানুষ তা অনুসরণ করে?
বিশদ

09th  June, 2019
শিবোপদেশ

প্রাচীনকালে মানুষের পরিপ্রশ্নের প্রতিভূ ছিলেন পার্বতী। মানব মনের যা কিছু চিরন্তন জিজ্ঞাসা তা মানুষের প্রতিনিধি হিসাবে পার্বতী সদাশিবকে জিজ্ঞাসা করতেন। সদাশিবের উত্তরগুলো তো সর্বকালের নয়নাভিরাম রত্ন। কিন্তু পার্বতীর প্রশ্নগুলো এতই সুন্দর যে প্রশ্ন শুনে যে কোন বিদগ্ধ মানব ভাববেন, ‘সত্যিই তো, এটা আমারও মনের প্রশ্ন।’
বিশদ

08th  June, 2019
 ভক্ত

 শ্রীরামকৃষ্ণ (বৈষ্ণবভক্ত ও অন্যান্য ভক্তদের প্রতি)—‘আমার ধর্ম ঠিক আর অপরের ধর্ম ভুল—এমত ভাল না। ঈশ্বর এক বই দুই নাই। তাঁকে ভিন্ন ভিন্ন নাম দিয়ে ভিন্ন ভিন্ন লোকে ডাকে। কেউ বলে গড্‌, কেউ বলে আল্লা, কেউ বলে কৃষ্ণ, কেউ বলে শিব, কেউ বলে ব্রহ্ম। বিশদ

07th  June, 2019
 কার্য

দার্শনিক জগতে একটা আলোড়ন এনেছিলেন মহর্ষি কণাদ তাঁর কণাদীয় ন্যায় বা বৈশেষিক দর্শনে। সেদিনকার চিন্তাক্ষেত্রে এটা একটা আলোড়ন বৈ কি! তিনি বললেন, “কারণাভাবাৎ কার্য্যাভাবঃ।” অর্থাৎ কারণ না থাকলে কার্য থাকতে পারে না। বিশদ

06th  June, 2019
অমৃতকথা 

ভগবান বুদ্ধ বলেছিলেন সম্যক কর্মান্তের কথা। মানুষের জীবনের পক্ষে উপযোগী কিছু সূক্ষ্ম নির্দেশনা আছে যা মানবীয় মূল্যবোধের ওপর প্রতিষ্ঠিত। ভগবান বুদ্ধ সাধারণ মানুষ সহ সবরকমের মানুষের জন্যেই আটটি মৌলনীতির কথা বলেছেন।  বিশদ

05th  June, 2019
ওঙ্কার 

ধারণার্থক ‘ধূ’ ধাতুর উত্তর ‘মন’ প্রত্যয় ক’রে ‘ধর্ম’ শব্দটির উৎপত্তি হয়েছে। ধর্মের ব্যুৎপত্তি-গত অর্থ হ’ল—যা ধারণ করে; রক্ষণার্থক ‘অব্‌’ ধাতুর উত্তর ঐ ‘মন্‌’ প্রত্যয় করেই আমরা ‘ওম্‌’ শব্দটি পাই। ওম্‌-এর অর্থ হ’ল যিনি রক্ষা করেন, অর্থাৎ ঈশ্বর।
বিশদ

04th  June, 2019
সন্তান

সন্তান পিতামাতার নিজের প্রাণ অপেক্ষা অধিক প্রিয়। সন্তানের মৃত্যুতে মায়ের মরণ যন্ত্রণা গৃহে গৃহে দেখা যায়। সন্তানের মৃত্যুতে, অনেক স্থলেই, মায়ের কোনও ক্ষতি হয় না। সন্তান একটু বড় হইলেই মায়ের নিকট হইলেই মায়ের নিকট হইতে সরিয়া পড়ে। ছেলে নিজের স্ত্রী নিয়া দিল্লী চলিয়া যায়। মেয়েকে ত পিতামাতা পরমানন্দে পরের হাতে সমর্পণ করে।
বিশদ

03rd  June, 2019
দেবতারে প্রিয় করি 

রবীন্দ্রনাথের ঈশ্বরপ্রেম এমন একটি বৃত্ত যার কেন্দ্র সর্বত্র, কিন্তু যার পরিধি নেই কোথাও। সেখানে ঈশ্বর, জীব, বিশ্বপ্রকৃতির ভেদরেখা লুপ্ত। সেই বোধের অপরূপ কাব্যিক প্রকাশ ‘দেবতারে প্রিয় করি প্রিয়েরে দেবতা’। 
বিশদ

02nd  June, 2019
 লীলা

 শ্রীহরি লীলার ছলে বহু সাজিয়েছেন, কিন্তু তিনি নিজে জানেন, ‘আমি একই আছি’। যাহারা খেলায় তৃপ্ত, তাহারা পোষাক ছাড়িতে চায়; কিন্তু বহুকালের সংস্কার বশতঃ ‘দেহমনবুদ্ধি আমি নই’ এই সত্যটীতে মন বসে না, বিশ্বাস হয় না, চিন্তা করিতে ভয় হয়।
বিশদ

01st  June, 2019
একনজরে
  মুম্বই, ১৭ জুন (পিটিআই): ৬৭ কোটি ৬৫ লক্ষ টাকা ঋণ পরিশোধ করতে ব্যর্থ হওয়ায় বিড়লা সূর্য সংস্থার ডিরেক্টর যশোবর্ধন বিড়লাকে ইচ্ছাকৃত ঋণখেলাপি ঘোষণা করল ইউকো ব্যাঙ্ক। রবিবার এ বিষয়ে জনস্বার্থে নোটিস জারি করেছে তারা। ...

  চেন্নাই, ১৭ জুন: তামিলনাড়ু পুলিসের এক সাব-ইন্সপেক্টরের বিশেষ রিপোর্টের ভিত্তিতে তিন আইএস সমর্থনকারীকে গ্রেপ্তার করল বিশেষ তদন্তকারী শাখা (এনআইএ)। ওই তিনজন কোয়েম্বাটোরের বিভিন্ন ধর্মীয়স্থানে আত্মঘাতী হামলার ছক করেছিল বলে পুলিসের দাবি। ধৃতদের নাম মহম্মদ হুসেন, শাহজাহান এবং শেখ সইফুল্লা। ...

সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার: বিধানসভা ভোটের দিকে লক্ষ্য রেখে আলিপুরদুয়ারে জেলা জুড়ে ফের সদস্য সংগ্রহ অভিযানে নামছে বিজেপি। কিভাবে এই সদস্য সংগ্রহ হবে তার জন্য প্রশিক্ষণ নিতে দলের জেলা ও মণ্ডল কমিটির চার নেতার নাম কলকাতায় পাঠানো হয়েছে।   ...

  ফিলাডেলফিয়া ও লোয়া, ১৭ জুন (এপি): মার্কিন মুলুকে ফের বন্দুকবাজের হামলা। পার্টি চলাকালীন ফিলাডেলফিয়ায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হল এক পড়ুয়ার। জখম হয়েছে আরও ৮ জন। রবিবার রাত সাড়ে ১০টার কিছুটা আগে সাউথ সেভেনটি স্ট্রিট এবং রিড বার্ড স্ট্রিটের কাছে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চতর বিদ্যায় সাফল্য আসবে। প্রেম-ভালোবাসায় আগ্রহ বাড়বে। পুরনো বন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাতে আনন্দলাভ হবে। সম্ভাব্য ক্ষেত্রে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৩৬- রুশ সাহিত্যিক ম্যাক্সিম গোর্কির মৃত্যু
১৯৮৭- পরিচালক হীরেন বসুর মৃত্যু
২০০৫- ক্রিকেটার মুস্তাক আলির মৃত্যু
২০০৯- প্রখ্যাত সরোদ শিল্পী আলি আকবর খানের মৃত্যু  

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৯৯ টাকা ৭০.৬৮ টাকা
পাউন্ড ৮৬.৩৪ টাকা ৮৯.৫৫ টাকা
ইউরো ৭৬.৭৯ টাকা ৭৯.৭৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৩,৩২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,৬১৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩২,০৯০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৭,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৭,২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩ আষা‌ঢ় ১৪২৬, ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, প্রতিপদ ২৩/৫৮ দিবা ২/৩১। মূলা ১৭/১৬ দিবা ১১/৫০। সূ উ ৪/৫৬/০, অ ৬/১৮/৫৪, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৬ মধ্যে পুনঃ ৯/২৩ গতে ১২/৩ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৮ গতে ৪/৩১ মধ্যে। রাত্রি ৭/১ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৮ গতে ২/৬ মধ্যে, বারবেলা ৬/৩৭ গতে ৮/১৭ মধ্যে পুনঃ ১/১৮ গতে ২/৫৮ মধ্যে, কালরাত্রি ৭/৩৯ গতে ৮/৫৮ মধ্যে। 
২ আষাঢ় ১৪২৬, ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, প্রতিপদ ২২/২২/৩৮ দিবা ১/৫২/৩৩। মূলানক্ষত্র ১৭/২৭/২৯ দিবা ১১/৫৪/৩০, সূ উ ৪/৫৫/৩০, অ ৬/২১/২৮, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪০ মধ্যে ও ৯/২৭ গতে ১২/৮ মধ্যে ও ৩/৪২ গতে ৪/৩৫ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৫ মধ্যে ও ১২/২ গতে ২/৯ মধ্যে, বারবেলা ৬/৩৬/১৫ গতে ৮/১৬/৫৯ মধ্যে, কালবেলা ১/১৯/১৩ গতে ২/৫৯/৫৮ মধ্যে, কালরাত্রি ৭/৪০/৪৩ গতে ২/৫৯/৫৯ মধ্যে। 
মোসলেম: ১৪ শওয়াল 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বিশ্বকাপ: আফগানিস্তানকে ১৫০ রানে হারাল ইংল্যান্ড

10:48:34 PM

স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে নিরাপত্তা, চালু কলকাতা পুলিসের হেল্প লাইন 
গতকাল মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পাওয়ার পর স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে নিরাপত্তা জনিত সমস্যার ...বিশদ

09:48:24 PM

বিশ্বকাপ: আফগানিস্তান ৮৬/২ (২০ ওভার) 

08:17:00 PM

দার্জিলিং পুরসভায় প্রশাসক নিয়োগ করল রাজ্য সরকার 

08:08:39 PM

জাপানে বড়সড় ভূমিকম্প, মাত্রা ৬.৫, জারি সুনামি সতর্কতা 

07:34:58 PM

বিশ্বকাপ: আফগানিস্তান ৪৮/১ (১০ ওভার) 

07:05:00 PM