Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

রাধারানিদেবীর আত্মাহুতিই
এগিয়ে দিয়েছিল শিল্পী রামকিঙ্করকে 

শিল্পী রামকিঙ্করের জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে রয়েছে তাঁর নাম। তিনি রাধারানি। তাঁর জন্ম বর্ধমানের আউশগ্রামের গুসকরার কাছে। জানা যায় গ্রামটির নাম ছিল সাহেব বাগান। তাঁর বাবার নাম চন্দ্র আর মা দুর্গাদেবী। তাঁরা ছিলেন তিন বোন। মেজ বোন মারা যায় কম বয়সে। বাবা চাকরি করতে যেতেন শ্রীরামপুরে। বাবা কী চাকরি করতেন তা জানতেন না রাধারানি, কারণ তখন তাঁর বয়স কম। চাকরির কারণেই তাঁর বাবা কিছুদিন বোলপুরে ছিলেন। বাবার কাছে শান্তিনিকেতনে যখন আসেন তখন রবীন্দ্রনাথকে দেখেছিলেন। কিঙ্করবাবুর কাছে আসার সময় দেখেন রথীন্দ্রনাথকে।
বাবা বোলপুরে থাকার সময়, বাবারই পছন্দের বোলপুরের এক মুদি দোকানের মালিক, বছর তিরিশের চণ্ডী গড়াইয়ের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল রাধারানির। তখন তিনি ন’বছরের বালিকা। একটি ছেলেও হয়েছিল তাঁর।  পরে মারা যায়। ভেদিয়ার গ্রাম থেকে বোলপুরে গিয়ে জীবন কাটছিল। কিন্তু সুখ বেশিদিন স্থায়ী হল না। বিয়ের কয়েক মাস পরেই সাংসারিক অশান্তি শুরু হয়। দিনে দিনে তা চরমে ওঠে। এ অশান্তির মাঝে বাবার কাছে ফিরে যাবেন এমন অবস্থাও ছিল না রাধারানির। কারণ, সে পরিবারেও অভাব ছিল নিত্যসঙ্গী। শ্বশুর চাষবাস করতেন। স্বামীও চাষের কাজে তার বাবাকে সাহায্য করতেন। শ্বশুরবাড়িতে রাধারানিকে নিয়ে খুব গণ্ডগোল শুরু হয়। রাধারানির স্বামী একটি মেয়ে রেখেছিল। মেয়েটার স্বামীর সঙ্গে রাধারানির স্বামীর বন্ধুত্ব ছিল। গঙ্গাজল পাতিয়েছিল। মেয়েটি রাধারানির স্বামীর দোকানে জিনিস কিনতে আসত। এই ভাবেই তাদের সম্পর্ক ঘন হয়ে ওঠে। সে কথা জানতে পেরে রাধারানি বলেছিলেন, ওই মেয়েটার সঙ্গে সম্পর্ক রাখলে তিনি স্বামীর সঙ্গে সম্পর্ক রাখবেন না। এদিকে মেয়েটির স্বামীও সবকিছু জেনে, রাধারানিকে তাঁর ঘরে নিয়ে যেতে চাইলেন। এই নিয়ে গণ্ডগোলের সূত্রপাত। বাড়ি ছাড়তে হয় রাধারানিকে। ঠাকুমা গিয়ে নিয়ে আসেন রাধারানিকে। সেই বাপ মেয়েতে দ্বন্দ্ব! 
সমস্যা মেটাতে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হতে বোলপুরে কাজের খোঁজে এলেন রাধারানি। অনেক খোঁজাখুঁজির পরে, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কনিষ্ঠা কন্যা মীরাদেবীর বাড়িতে মাসমাইনে ও থাকা-খাওয়ার শর্তে কাজে বহাল হলেন। এখানেই প্রতিমাদেবীর সঙ্গে আলাপ হয় রাধারানির। একবার রাধারানিকে তিনি সঙ্গে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন, মীরাদেবী রাজি হননি।
মীরাদেবীর বাড়িতেই অনেক গুণী মানুষের সঙ্গে আলাপ হয় রাধারানির। সেখানেই প্রথম দেখা, ধুতির ওপর ফতুয়া পরা অগোছালো চেহারার মানুষটিকে। কালো, ঝাঁকড়া চুল উজ্জ্বল চোখের মানুষটি। প্রথম দেখাতেই আষাঢ় নামে দু’চোখে। তিনি রামকিঙ্কর বেইজ। তত দিনে রবীন্দ্রনাথ মারা গিয়েছেন। মীরাদেবীর কাছে এসে রাধারানিকে তাঁর বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন রামকিঙ্কর। তারও মন টেনেছিল। একবার নয় বারবার। অবশেষে রাজি হন মীরাদেবী।
তবে সংসার সামলানোর পাশাপাশি, তাঁর শিল্পকর্মের সঙ্গেও জড়িয়ে গেলেন রাধারানি। রাধারানিকে নিয়ে নানা শৈল্পিক কাজ করেছেন রামকিঙ্কর। তাঁকে মডেল হিসেবে ব্যবহার করে অনেক ছবি এঁকেছেন, ভাস্কর্যের কাজও করেছেন। সেই সময়ে দু’জনের সম্পর্ক নিয়ে শান্তিনিকেতনে আপত্তিও উঠেছিল। এই খবর পৌঁছে গিয়েছিল রাধারানির বাপেরবাড়ি পর্যন্ত। তবু রামকিঙ্করের মৃত্যুদিন পর্যন্ত রাধারানি কিঙ্করের সঙ্গ ছাড়েননি। বিশ্বভারতীর কর্মকর্তারা আপত্তি জানালেন এই নিয়ে! কিন্তু রামকিঙ্কর অনড়। তাদের বিয়ে হয়নি। তবে কিঙ্কর তাঁকে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়েছিলেন। দেশিকোত্তম পেয়েছেন রামকিঙ্কর। ছাত্ররা গিয়ে জানালেন, তাঁকে সংবর্ধনা দেবেন। উপাচার্যও থাকবেন সেই অনুষ্ঠানে। রামকিঙ্কর জানালেন, মঞ্চে উপাচার্য এবং তাঁর পাশে সম-মর্যাদায় রাধারানিকে আসন দিলে তবেই তিনি যাবেন। পরে সারা জীবনের সম্বলের কিছু দিয়ে ভুবনডাঙায় একটি খড়ের চালের বাড়ি রাধারানিদেবীর নামে কিনেছিলেন রামকিঙ্কর। সেটাই পরে দোতলা হয়। অনেক ভাস্কর্য সৃষ্টির সাক্ষী এই বাড়িটি এখনও রয়েছে। বাড়িটি রাধারানি তাঁর জীবিত কালে পালিত কন্যা অলকা অধিকারী ও জামাতা অবণী অধিকারীকে দানপত্র করে দিয়ে যান। 
রামকিঙ্করের জীবনের নানা উত্থান-পতনের সাক্ষী থেকেছেন রাধারানি। দিল্লিতে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সামনে আজও আছে ২১ ফুটের সেই যক্ষ-যক্ষীর মূর্তি। যার প্রেরণা ছিলেন রাধারানি। ১৯৫৪ সালে রামকিঙ্কর কুলু যাওয়ার পথে দেখলেন তাঁর পছন্দসই পাথর। ভাকড়া-নাঙাল ড্যামের বিশেষজ্ঞদের দিয়ে ব্লাস্ট করিয়ে পাওয়া গেল পাথরের টুকরো। ন্যারোগেজ লাইনের ট্রেনে সেই পাথর আনা ঝকমারি। বদলানো হল ওয়াগনের চেহারা। পাঠানকোটে এসে ব্রডগেজ ট্রেনে সেই পাথর আনা হল দিল্লিতে। ১৯৬৭-তে শেষ হল কাজ। রামকিঙ্কর চিঠিতে রাধারানিকে জানালেন, ‘যক্ষীটা তোমার আদলে। তোমার জন্য অনেকগুলি টাকা পেয়েছি। আমাদের বাড়ি ছেড়ে কখনও যাবে না।’ 
রামকিঙ্করের জীবনের বড় ভরসা হয়ে উঠেছিলেন রাধারানি। প্রতক্ষ্যদর্শীর বিবরণে পাওয়া যায়, চিকিৎসার জন্য শিল্পীকে কলকাতায় নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি চলছে। সে সময়েও রামকিঙ্কর শিশুর মতো কাকুতি মিনতি করেছিলেন রাধারানির কাছে! মৃত্যুকালেও, সে কথা বলে চোখের জল ফেলতেন রাধারানি। ১৯৭৩-৭৪ সালে জন্মদিনে কলাভবন রামকিঙ্করকে অভিনন্দিত করার ব্যবস্থা করেন। রামকিঙ্কর সেদিন সেজেগুজে হাজির, সঙ্গে রাধারানিকে নিয়ে। কলাভবনে রাধারানিকে সসম্মানে আসন দেওয়া হয়েছিল। দিল্লিতে এক ছাত্রের বাড়িতে নিয়ে গিয়েছিলেন স্বামী স্ত্রী’র মতো। কোনও বন্ধু বা ছাত্র ছাত্রী এলে রাধারানিকে দেখিয়ে বলতেন, ‘ওর ফিগার দারুণ ছিল!’ রাধারানি ছিলেন সাধারণ ঘরের মেয়ে, তাঁর মধ্যে যে অসাধারণত্ব লুকিয়ে আছে নিজেই জানতেন না। জেনেছিলেন রামকিঙ্কর। সাধারণ ঘরের মেয়ে অসাধারণ শিল্পীর ছোঁয়াতে অমর হয়ে রইলেন শিল্পে, যক্ষ যক্ষীতে। 
যক্ষীর জন্য রামকিঙ্কর রাধারানির দেহকে অবলম্বন করেছিলেন। আর যক্ষের জন্য নিজের দেহকে। রামকিঙ্কর যক্ষ যক্ষীর আরাধ্য রূপ অন্বেষণ করেছেন। রোমন্থন করছিলেন।
রাধারানি রাতের পর রাত, সংস্কার সরিয়ে রেখে, নারীর স্বাভাবিক লজ্জা দূর করে, নিজের শারীরিক গঠনকে রামকিঙ্করের সামনে তুলে ধরলেন। ধ্যানমগ্ন রামকিঙ্কর বেইজ রাধারানির স্থূল দেহকে স্টাডি করেন। সে নির্মাণ আজ জগৎ বিখ্যাত হয়ে আছে। 
রামকিঙ্কর বেইজের মৃত্যুর পরে তাঁর শিল্পকর্ম বিক্রির অর্থের একটা অংশ পেয়েছিলেন রাধারানি। সে টাকায় তিনি শান্তিনিকেতনের বেশ কয়েকজনকে সাহায্য করেছিলেন। শেষ জীবনে পক্ষাঘাতে আক্রান্ত হয়েছিলেন। ১৯৭৮, ১৮ নভেম্বর রাধারানি ভুবনডাঙার বাড়িতেই শেষ  নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। শিল্পী রামকিঙ্কর আর রাধারানি প্রায়ই আসতেন অজয়ের কোলে বর্ধমানের ভেদিয়াতে। সেই স্মৃতি আজও আঁকড়ে আছে বর্ধমানের নাম। 
রাধামাধব মণ্ডল  
03rd  August, 2019
আমি সবার ভালোবাসা পেতে চাই
শ্রাবণী ভুঁইয়া

 দুই বোন কনক আর কাঁকন। খুব ছোটবেলায় ওরা ওদের বাবা-মাকে হারায়। তারপর একে অপরের পরিপূরক হয়ে জীবন কাটাতে শুরু করে। বড় বোন নাচ জানে এবং ছোট বোন একজন খেলোয়াড়। দু’জনেই দু’জনের স্বপ্ন পূরণ করার লক্ষ্যে এগিয়ে চলে। আর এই পথে বিভিন্ন ঘাত-প্রতিঘাতের সম্মুখীন হতে হয় ওদের। এই দুই বোনের পারস্পরিক বন্ধন নিয়েই কালারস বাংলায় শুরু হয়েছে মেগা ধারাবাহিক কনক কাঁকন। আজ আমরা কনক তথা শ্রাবণী ভুঁইয়ার মুখোমুখি। বিশদ

17th  August, 2019
 তিন তালাক আইন ও অভিমত

 বহুদিনের লড়াইয়ের পর মহিলাদের জয় হয়েছে। রদ হয়েছে তাৎক্ষণিক তিন তালাক। মুসলিম মহিলাদের একটা সামাজিক স্বীকৃতি লাভ বলা চলে একে। তিন তালাকে বিবাহ-বিচ্ছেদ এখন আইনত অপরাধ। বিষয়টি নিয়ে সরব লেডি ব্রাবোর্ন কলেজের ছাত্রীরা। তাঁদের মুখোমুখি শাকিলা খাতুন। বিশদ

17th  August, 2019
ভগিনী নিবেদিতা ও ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রাম

ভগিনী নিবেদিতা ভারতের মাটিতে বিপ্লববাদের ভিত গড়ে তুলেছিলেন। নিবেদিতার পূর্ব নাম মার্গারেট এলিজাবেথ নোব্‌ল। তৎকালীন সমাজের বিদগ্ধ, স্বনামধন্য লেখক, বৈজ্ঞানিক, শিক্ষাবিদ, রাজনীতিবিদদের সঙ্গে মার্গারেটের স্বতঃস্ফূর্ত মেলামেশা, নিত্য ওঠাবসা ছিল। কিছুদিনের মধ্যেই তিনি লন্ডনের বুদ্ধিজীবী মহলে এক স্থান দখল করে নেন।
বিশদ

10th  August, 2019
স্বাধীনতার ইতিহাসে দুই জাপানি মহিলা ও রাসবিহারী বসু

ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে অনেক মহিলা নিজেদের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন, তাঁদের মধ্যে দুই বিদেশি মহিলা যাঁরা ভারতীয় না হয়েও ভারতের স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে নিজেদের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন তাঁদের কথা আজ বলি। ভারতীয় মহান বিপ্লবী রাসবিহারী বসুর জীবন রক্ষার্থেই সেই কাহিনী শুরু হয়েছিল।
বিশদ

10th  August, 2019
 মহাত্মা গান্ধীর জীবনে মহিলাদের প্রভাব

জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর (১৮৬৯-১৯৪৮) জীবনে একাধিক নারীর উপস্থিতি লক্ষ করা যায়। গান্ধীর জীবনে এঁরা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে উপস্থিত থেকে গভীর প্রভাব বিস্তার করেছেন। তাঁদের সম্পর্ক কখনও পারিবারিক, কখনও আশ্রমিক, আবার কখনও স্বাধীনতা আন্দোলনকেন্দ্রিক— এমনভাবে বহু স্তর বিভাজিত ছিল।
বিশদ

10th  August, 2019
গৌড়ীয় নৃত্যশিল্পী
মহুয়া মুখোপাধ্যায় 

বঙ্গীয় ধ্রুপদী নৃত্যের বিশেষ নৃত্যশৈলী গৌড়ীয় নৃত্য নিয়ে গবেষণা করেছেন নৃত্যশিল্পী মহুয়া মুখোপাধ্যায়। ছোট শহরে ওঁর জন্ম, কিন্তু অনেক বড় কীর্তির নজির সৃষ্টি করেছেন। সুদীর্ঘ কয়েক দশকের পথচলা।   বিশদ

03rd  August, 2019
প্রভা ও প্রেমের আলোকে কবি সৃষ্ট নারী চরিত্র 

কবিগুরু প্রভা ও প্রেমের আলোকে অতীন্দ্রিয় অনুভূতি দিয়ে সৃষ্টি করেছেন কতই না নারী চরিত্র। কঠোরতা ও কোমলতার সংমিশ্রণে তারা আজও উজ্জ্বল। ২২ শ্রাবণ, কবির মৃত্যুবার্ষিকীর প্রাক্কালে তাঁকে তাঁরই সৃষ্টির মাধ্যমে স্মরণ করার সামান্য চেষ্টা করব।  বিশদ

03rd  August, 2019
সমাজ সংস্কারক বিদ্যাসাগর
ও বিধবা বিবাহ প্রচলন

বাংলা সাহিত্যের প্রসার, সংস্কৃত সাহিত্যের সহজসরল অনুবাদ নারী শিক্ষা বিস্তারে বহু প্রবন্ধ লিখে সমাজে আলোড়ন তুলেছিলেন ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর। নারীর সম্মান ও আত্মমর্যাদা রক্ষার্থে সর্বদা সচেষ্ট ছিলেন তিনি। সমাজে বিধবা বিবাহ প্রচলন করে বিদ্যাসাগর বিশেষভাবে স্মরণীয় হয়ে আছেন। বিশদ

27th  July, 2019
২ কোটি টাকার প্রস্তাব
ফিরিয়ে দিলেন সাই পল্লবী

ফর্সা না হলে কপালে তো নানা দুর্ভোগ! পাত্রী পড়াশোনায় তুখোড় হলেও বিয়ে হবে না, ফর্সা না হলে যৌতুক দিতে হবে বেশি। এমনকী এই ফর্সা হওয়ার লড়াই পুরুষরাও চালিয়ে যাচ্ছেন। ফর্সা হওয়ার ক্রিম ও প্রসাধনী মাখলেই আপনি হয়ে উঠবেন অনন্য বা অনন্যা— একথা প্রচার করতে সবচেয়ে বেশি দেখা যায় চলচ্চিত্র তারকাদেরই।
বিশদ

27th  July, 2019
বিধায়কের উদ্যোগে গণবিবাহ

আবারও গণবিবাহের আয়োজন করলেন বিধায়ক পরেশ পাল। প্রতি বছরের মতো এ বছরও ৭ জুলাই ৪৮তম বর্ষে কাঁকুড়গাছি সিআইটি বিল্ডিং-এর সামনের রাস্তাটিতে তৈরি হয় বিশাল বড় বিবাহ আসর। মণ্ডপসজ্জা থেকে শুরু করে ছাদনাতলা সেজে উঠেছিল রজনীগন্ধা, জুঁইফুলে। বিশদ

27th  July, 2019
নারীর সমান অধিকার ৬টি দেশে

সারা পৃথিবীতে গড়ে পুরুষদের তিন ভাগের এক ভাগ মাত্র অধিকার ভোগ করেন নারীরা। বিশ্বব্যাঙ্ক জানিয়েছে, মাত্র ছয়টি দেশে নারী ও পুরুষের অধিকার সমান, বিশেষ করে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে। বিশদ

27th  July, 2019
পুরাণের ধূসর পাতায় ঘুমিয়ে
থাকা এক অনামা নারী সুকন্যা

আমরা রামায়ণ, মহাভারত সহ নানা পুরাণ কথায় নারীর বীরত্বের পাশাপাশি ভয়ঙ্কর অবমাননা, কুৎসিত অপমান ও নিদারুণ অসম্মান লক্ষ করেছি। কোনও সময় দেখেছি দাঁতে দাঁত চেপে নারীর লড়াই। ক্রোধ, সন্দেহ, অশ্রু, আবেগ নিজের বুকে লুকিয়ে মাথা নিচু করে মেনে ও মানিয়ে নেওয়ার ইতিহাস পাতার পর পাতা জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে।
বিশদ

27th  July, 2019
পরিবর্তনের ঢেউ লেগেছে মুসলিম সমাজে 

একবিংশ শতাব্দীতে পদার্পণের আগে মুসলিম সমাজে নারী স্বাধীনতা প্রহসন ছিল বললে অত্যুক্তি হয় না। মাত্র কয়েক দশক আগেও মুসলিম নারী ছিল অন্তঃপুরবাসিনী। অবগুণ্ঠনের আড়াল থেকেই তাদের বিশ্বদর্শন হতো। কিন্তু সেই চিত্র আজ অনেকটাই বদলে গিয়েছে।  বিশদ

20th  July, 2019
মেয়েদের হার্টের পক্ষে
নাইট শিফট ক্ষতিকারক 

এই একবিংশ শতাব্দীতে দাঁড়িয়ে আপাতদৃষ্টিতে নারীর সঙ্গে পুরুষের পার্থক্যের সীমারেখা প্রায় ঘুচেই গিয়েছে বলা যায়। এখন পুরুষদের সঙ্গে নারীরাও সমানতালে সবকিছুই করছে। সে কঠিন বিজ্ঞান গবেষণা থেকে শুরু করে টোটো চালানো পর্যন্ত প্রায় সবকিছুই। একসময় যে নাইট শিফটে কাজ শুধুমাত্র পুরুষদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল এখন সেখানেও মেয়েদের মৌরুসিপাট্টা। বিশদ

20th  July, 2019
একনজরে
সংবাদদাতা, বসিরহাট: ভ্যাপসা গুমোট গরমের শেষে একটানা বৃষ্টির স্বস্তি এখন অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বসিরহাট পুরসভা এলাকায়। বেশিরভাগ ওয়ার্ডের রাস্তাঘাট, ঘরবাড়ি জলের তলায়। বাসিন্দাদের অভিযোগ, ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: শুধু হাওড়া শহর সংলগ্ন এলাকায় নয়, হাওড়া জেলার প্রত্যন্ত এলাকায় এবার শিল্প স্থাপনে উদ্যোগী হল রাজ্য সরকার। তার জন্য উদয়নারায়ণপুরের কান্দুয়ায় ৪০০ একর জমি বাছা হয়েছে। তার মধ্যে ১৭০ একর জমি কেনাও হয়ে গিয়েছে। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গোটা বিশ্বেই মধ্যবিত্ত শ্রেণী বাড়ছে দ্রুত। নতুন প্রজন্ম অর্থ উপার্জন করছে বলেই এই শ্রেণীর বাড়বাড়ন্ত। সরকারেরও উচিত তাদের কাজের সুযোগ করে দেওয়া। সেই কারণেই সরকার যতটা পেনশন খাতে খরচ করে, তার চেয়ে গুরুত্ব দেওয়া উচিত শিক্ষা খাতে ...

সংবাদদাতা, বিষ্ণুপুর: বিষ্ণুপুর শহরে দলমাদল রোডে ভরসন্ধ্যায় যুবক খুনের ঘটনায় শুক্রবার রাতে পুলিস এক ফুচকা বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিস জানিয়েছে, ধৃতের নাম মধুসূদন মাঝি। তার বাড়ি বিষ্ণুপুর পুরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে। অভিযোগ,ওইদিন সন্ধ্যায় ফুচকা বিক্রেতার সঙ্গে যুবকের বচসা বাধে। তা ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

হঠাৎ জেদ বা রাগের বশে কোনও সিদ্ধান্ত না নেওয়া শ্রেয়। প্রেম-প্রীতির যোগ বর্তমান। প্রীতির বন্ধন ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯০০: রাজনীতিক বিজয়লক্ষ্মী পণ্ডিতের জন্ম
১৯৩৬: গীতিকার ও পরিচালক গুলজারের জন্ম
১৯৫৮: ইংলিশ চ্যানেল অতিক্রম করলেন প্রথম এশীয় ব্রজেন দাস
১৯৮০: সঙ্গীতশিল্পী দেবব্রত বিশ্বাসের মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৫৯ টাকা ৭২.২৯ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৮১ টাকা ৮৭.৯৪ টাকা
ইউরো ৭৭.৮৩ টাকা ৮০.৭৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
17th  August, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,২৪৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,২৮৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৬,৮৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৩,৯০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪,০০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, তৃতীয়া ৪৯/৪৯ রাত্রি ১/১৪। পূর্বভাদ্রপদ ২৯/২ অপঃ ৪/৫৫। সূ উ ৫/১৮/২, অ ৬/৩/১৪, অমৃতযোগ দিবা ৬/৯ গতে ৯/৩৩ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩২ গতে ৯/২ মধ্যে, বারবেলা ১০/৫ গতে ১/১৬ মধ্যে, কালরাত্রি ১/৫ গতে ২/৩০ মধ্যে।
৩২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, তৃতীয়া ৪৩/৯/৬ রাত্রি ১০/৩২/৩৬। পূর্বভাদ্রপদনক্ষত্র ২৬/১/৪১ দিবা ৩/৪১/৩৮, সূ উ ৫/১৬/৫৮, অ ৬/৫/৪৬, অমৃতযোগ দিবা ৬/১২ গতে ৯/৩১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২২ গতে ৮/৫৪ মধ্যে, বারবেলা ১০/৫/১৬ গতে ১১/৪১/২২ মধ্যে, কালবেলা ১১/৪১/২২ গতে ১/১৭/২৮ মধ্যে, কালরাত্রি ১/৫/১৬ গতে ২/২৯/১০ মধ্যে।
 ১৬ জেলহজ্জ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নয়াদিল্লির এইমস-এ আগুন
নয়াদিল্লির এইমস -এ আগুন। ঘটনাটি ঘটে আজ বিকাল ৫টা নাগাদ। ...বিশদ

17-08-2019 - 05:47:48 PM

ভাইকে নিয়ে স্বামীকে খুন, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড 
ভাইকে সঙ্গে নিয়ে স্বামীকে খুনের ঘটনায় দু’জনকেই যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা ...বিশদ

17-08-2019 - 04:09:34 PM

জলমগ্ন শহর, পুরকর্মীদের ছুটি বাতিল 
টানা বৃষ্টিতে কার্যত জলের নীচে মহানগর। ব্যাহত হচ্ছে জনজীবন। দ্রুত ...বিশদ

17-08-2019 - 02:13:11 PM

ট্রাকে ধাক্কা যাত্রীবোঝাই বাসের, জখম ২০ 
গভীর রাতে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের পেছনে ধাক্কা যাত্রীবোঝাই বাসের। ঘটনায় ...বিশদ

17-08-2019 - 01:55:28 PM

ভুয়ো পরিচয় দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার প্রতারণা, ধৃত অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মী 
সচিব পদমার্যাদার অফিসার পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সরকারি কর্মীদের লক্ষ লক্ষ ...বিশদ

17-08-2019 - 01:07:00 PM

সঙ্কটে জেটলি, রাখা হল লাইফ সাপোর্টে 
আরও সঙ্কটে অরুণ জেটলি। এদিন সকাল থেকে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে ...বিশদ

17-08-2019 - 12:57:58 PM