Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

রক্তের গ্রুপ থেকে
কী কী জানা যায়? 

বর্তমানে ভারতে তো বটেই, সারা বিশ্বে রক্তরোগীর সংখ্যা বাড়ছে। রক্তের গ্রুপের সঙ্গে রোগের আদৌ কি কোনও সম্পর্ক রয়েছে? শরীরে ভুল রক্ত ঢুকলে তা কতটা মারাত্মক হতে পারে? রক্ত সম্পর্কিত রোগের শিকার মানুষের আধুনিক চিকিৎসার কোনও ব্যবস্থা আমাদের রাজ্যে রয়েছে কি? এসব প্রশ্নেরই জবাব দিলেন কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের ইমিউনোহেমাটোলজি অ্যান্ড ব্লাড ট্রান্সফিউশন বিভাগের প্রধান ডাঃ প্রসূন ভট্টাচার্য।
গোড়ার কথা
ব্লাড গ্রুপ কী, সে সম্পর্কে আমাদের সকলেরই একটা ধারণা রয়েছে। সবাই নিজের নিজের ব্লাড গ্রুপ সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। অঙ্গ প্রতিস্থাপন বা শরীরে রক্ত দেওয়ার (ব্লাড ট্রান্সফিউশন) দরকার পড়লে ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় করা ছাড়া গতি নেই। এক্ষেত্রে সামান্যতম গাফিলতিও চরম পরিণতি ডেকে আনতে পারে। কারও শরীরের ভুল রক্ত ঢুকলে তাঁর শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা ভেঙে পড়তে পারে। কিডনি বিকল হয়ে যেতে পারে। রক্ত জমাট বেঁধে অর্গ্যান ফেলিওর, স্ট্রোক এমনকী মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। কিন্তু বর্তমানে চিকিৎসা বিজ্ঞানের প্রভূত উন্নতির ফলে রক্তের মিসম্যাচ হওয়ার এই ঝুঁকি অনেকটাই কমে গিয়েছে।
রক্ত কী?
রক্ত সম্পর্কে জানতে গেলে আগে তার প্রাথমিক উপাদানগুলি জানতে হবে। রক্তে উপস্থিত লোহিত রক্তকণিকার কাজ হল ফুসফুসের মধ্যে এবং ফুসফুস থেকে অক্সিজেন সংবহন করা। শ্বেত রক্তকণিকা আবার রক্তে মিশে যাওয়া ‘অনুপ্রবেশকারীদের’ সঙ্গে লড়াই করে তাদের নিকেষ করে। প্লেটলেটের কাজ হল রক্তকে জমাট বাঁধতে সাহায্য করে রক্তক্ষরণ বন্ধ করা। সবশেষে আসে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ উপাদান, প্লাজমা বা রক্তরস। এই উপাদানটি বাকিদের একজোট করে রাখে।
রক্তের গ্রুপ নির্ণয়
মানুষের রক্তের লোহিত কণিকার মধ্যে সাধারণত দুটি অ্যান্টিজেন পাওয়া যায় ‘এ’ এবং ‘বি’। এই দুই অ্যান্টিজেন-এর উপস্থিতি বা অনুপস্থিতিই রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে। যা উত্তরাধিকার সূত্রে সন্তান তার বাবা-মায়ের কাছ থেকে পেয়ে থাকে। বিজ্ঞানীরা এখনও পর্যন্ত মোট ৩৬টি ব্লাড গ্রুপ সিস্টেম এবং ৩৪০ রকম অ্যান্টিজেন খুঁজে পেয়েছেন বটে, কিন্তু সাধারণত চার ধরনের রক্তই মানবশরীরে সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায়। সেগুলি হল— এ, বি, এবি এবং ও। এ গ্রুপের রক্তে ‘এ’ অ্যান্টিজেন থাকে আর ‘বি’ গ্রুপের রক্তে ‘বি’। আবার ‘এবি’ গ্রুপের রক্তে দুটোই থাকে এবং ‘ও’ গ্রুপে ‘এ’ কিংবা ‘বি’ কোনও অ্যান্টিজেনই থাকে না। সারা বিশ্বে ‘ও’ গ্রুপের রক্তেরই আধিক্য রয়েছে। তারপরের স্থানে রয়েছে ‘এ’ অথবা ‘বি’ এবং সবশেষে ‘এবি’। আমরা সবাই রক্তের পজিটিভ ও নেগেটিভ দিকটা জানি। কিন্তু, তা কী করে নির্ণয় করা হয়, সেটাও জেনে রাখা ভালো। আমাদের রক্তে আরেক ধরনের প্রোটিন থাকে, যার নাম আরএইচ ফ্যাক্টর। এই প্রোটিন রক্তে থাকলে সেটা হয়ে যায় পজিটিভ। না থাকলে নেগেটিভ।
গবেষকরা দাবি করেছেন, বিশেষ বিশেষ গ্রুপের রক্তের সঙ্গে বিশেষ কিছু রোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধির সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু, তাই বলে আপনি আপনার রক্তের গ্রুপ বদলে ফেলতে পারেন না। সেটা সম্ভবও নয়। তবে আগেভাগে কিছু সতর্কতা মেনে চললে সেই রোগগুলিকে প্রতিহত করা সম্ভব।
রক্ত ও রোগ
রক্তের গ্রুপের সঙ্গে রোগের প্রবণতা তৈরি হওয়ার একটা যোগসূত্র রয়েছে। দীর্ঘদিনের গবেষণা এবং সমীক্ষা চালিয়ে বিজ্ঞানীরা সেটা দেখিয়েছেন। যেমন— ‘এ’ গ্রুপের রক্তে জমাট বাঁধার ক্ষমতা (কোয়াগুলেশন) বেশি থাকে। এই ধরনের রক্তের গ্রুপের অধিকারী ব্যক্তিদের মধ্যে থ্রম্বোএম্বোলিক ডিসঅর্ডারে (মাথায় বা ধমনীতে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়া) আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেশি থাকে। এছাড়াও ‘এ’ গ্রুপের রক্তের মধ্যে পাকস্থলী বা অন্ত্রের ক্যান্সারের প্রবণতাও বেশি দেখা যায়। অন্যদিকে, ‘ও’ গ্রুপের রক্তে এর ঠিক উল্টো বৈশিষ্ট্য থাকে। সেখানে রক্ত জমাট বাঁধার ক্ষমতা এতটাই কম থাকে যে, একবার রক্তক্ষরণ শুরু হলে তা সহজে বন্ধ হয় না। পাশাপাশি এবি গ্রুপের রক্তে স্মৃতিশক্তির সমস্যা, বি গ্রুপের রক্তে হৃদরোগের সমস্যা ইত্যাদির প্রবণতা বৃদ্ধির আশঙ্কা থাকে। আমরা সাধারণত এ, বি, এবি এবং ও গ্রুপের রক্তকে প্রাধান্য দিলেও বাকি যে সমস্ত রক্তের গ্রুপ রয়েছে, তাদেরও কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যেমন— ‘ডাফি’ ব্লাড গ্রুপ ম্যালিগনেন্ট ম্যালেরিয়ার জীবাণুর বাহক হিসেবে কাজ করে। আফ্রিকায়, যেখানে এই ম্যালিগনেন্ট ম্যালেরিয়ার প্রকোপ বেশি, সেখানকার অধিবাসীদের শরীরে কিন্তু এই গ্রুপের রক্ত একেবারেই পাওয়া যায় না। বিবর্তনের মাধ্যমে প্রকৃতিই তাঁদের এই ‘রক্ষাকবচ’ দিয়েছে। অন্যদিকে, আরএইচ ব্লাড গ্রুপের ক্ষেত্রে মা যদি আরএইচ নেগেটিভ হন এবং তাঁর সন্তান যদি পজিটিভ হয়, তাহলে পরিণতি ভয়ঙ্কর হতে পারে। প্রথম সন্তান সুস্থ থাকলেও, গোল বাঁধে দ্বিতীয় সন্তানের ক্ষেত্রে। মায়ের রক্তের অ্যান্টিবডিগুলি শিশুর রক্তে থাকা লোহিত কণিকাগুলিকে ভেঙে দেয়। এই রোগকে বলা হয় এরিথ্রোব্লাস্টোসিস ফিটালিস। এছাড়াও রয়েছে ‘কেল’ ব্লাড গ্রুপ। এই গ্রুপের ক্ষেত্রে যদি মায়ের শরীরে কেল অ্যান্টিবডি থাকে এবং সন্তানের শরীরে যদি সেটার অ্যান্টিজেন থাকে তবে তা আরএইচ-এর থেকেও ভয়ঙ্কর। এতে শিশুটির শরীরে এরিথ্রোপোয়েসিস হয়, যা তার শরীরে রক্ত তৈরির ক্ষমতাকেই নষ্ট করে দেয়।
রাজ্যে চিকিৎসার সুযোগ
আমাদের রাজ্যে বর্তমানে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রক্তের প্রক্রিয়াকরণ থেকে যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য বিশেষ ল্যাবরেটরি রয়েছে। নাম ইমিউনো হেমাটোলজি অ্যান্ড ব্লাড ট্রান্সফিউশন ল্যাব। যে সমস্ত রোগীদের নিয়মিত রক্তের প্রয়োজন পড়ে, মূলত (যেমন— ক্যান্সার বা থ্যালাসেমিয়া রোগী) তাঁদের জন্যই চালু হয়েছে এই বিভাগ। রোগীর ব্লাড গ্রুপের সঙ্গে বাইরে থেকে দেওয়া রক্ত মিলিয়ে দেখারই কাজ হয় এই লাবে। রোগীকে শুধুমাত্র ‘এ’, ‘বি’, ‘এবি’, ‘ও’ এবং আরএইচ গ্রুপ মিলিয়ে দেখে রক্ত দিলেই হয় না। ডাফি বা কেল ব্লাড গ্রুপের রক্তেরও প্রাদুর্ভাব আমাদের রাজ্যে থাকার দরুন এই মিলিয়ে দেখার কাজের পরিধিটা অনেক বেড়ে যায়। প্রয়োজন হলে একটি বিশেষ প্রক্রিয়ায় আমরা রোগীর ব্লাড গ্রুপের সঙ্গে বাইরের রক্ত মিলিয়ে দেওয়ারও ব্যবস্থা করি। এই সংক্রান্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের একাধিক গবেষণাপত্র দেশে তো বটেই, বিদেশেও সমাদৃত হয়েছে। আবার অঙ্গ বা অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপনের জন্য আসা রোগীদের ক্ষেত্রে বাইরে থেকে দেওয়া রক্তের শ্বেত রক্তকণিকাগুলিকে বিশেষ পদ্ধতিতে ছেঁটে ফেলতে হয়। সংশ্লিষ্ট রোগীর শরীরে নতুন রক্ত দেওয়ার ফলে যাতে বড় ধরনের কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া না হয়, সেটা নিশ্চিত করতেই এই ব্যবস্থা। আমাদের ল্যাবে সেকাজও সাফল্যের সঙ্গে হচ্ছে।
লিখেছেন নীতীশ চক্রবর্তী 
05th  September, 2019
পাওয়ার থাকলে চোখের যত্ন নেবেন কীভাবে? 

চোখের পাওয়ার
জানলে অবাক হবেন, দেশের ৩০ শতাংশ মানুষ মাইয়োপিক। অর্থাৎ তাঁদের চোখে মাইনাস পাওয়ারের চশমা রয়েছে। তুলনায় প্লাস পাওয়ার বা হাইপারমেট্রোপিকের সমস্যায় ভোগা রোগীর সংখা কম। 
বিশদ

19th  September, 2019
আত্মহত্যা বিরোধী দিবস উদযাপন
 

১০ সেপ্টেম্বর ছিল বিশ্ব আত্মহত্যা বিরোধী দিবস। এই উপলক্ষ্যে মেডিক্যাল ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে কলকাতার বিভিন্ন স্কুলের পড়ুয়াদের একত্রিত করে শোভাবাজার মেট্রো স্টেশনের সামনে আত্মহত্যা বিরোধী প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছিল।  
বিশদ

19th  September, 2019
বিএমবিড়লায় প্রাণ বাঁচানোর অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি 

বারবার বুকে ব্যথা হয়েই চলেছিল পঞ্চাশোর্ধ্ব এক রোগীর। রোগী বিশ্রামরত অবস্থাতে থাকলেও বুকে এমন ব্যথা হতো। এমনকী শেষ কদিনে অ্যান্টি অ্যানজাইনাল ওষুধও আর কাজ করছিল না। অথচ কয়েকমাস আগেই তিনি অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করিয়েছিলেন।  
বিশদ

19th  September, 2019
বোন অ্যান্ড জয়েন্ট ক্লিনিকের অনুষ্ঠান 

চতুর্থ প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে বোন অ্যান্ড জয়েন্ট ক্লিনিক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছিল অভিনব উদ্যোগ। সংস্থার পক্ষ থেকে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে ২৫ জন বিশেষ ভাবে সক্ষম ও দুঃস্থ ছাত্রছাত্রীদের সম্বর্ধনা দেওয়া হয়। 
বিশদ

19th  September, 2019
তারাপিঠে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবির 

কৌশিকী অমাবস্যা উপলক্ষ্যে তারাপিঠ মন্দিরের কাছে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল। বাম তারা অর্চনম ট্রাস্ট পরিচালিত এই শিবিরে কলকাতার বিশিষ্ট চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।  
বিশদ

19th  September, 2019
নারায়ণা হাওড়ায় হার্টের বিরল চিকিৎসা 

‘ওয়ার্ল্ড হার্ট ডে’ উপলক্ষ্যে হাওড়ার নারায়ণা সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালের তরফে প্রেস ক্লাবে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে সম্প্রতি হাসপাতালে বিরল কার্ডিয়াক ইন্টারভেনশন সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।   বিশদ

19th  September, 2019
 পুজোয় বেড়াতে গেলে
কী কী ওষুধ রাখবেন?
ডাঃ আশিস মিত্র ( মেডিসিন বিশেষজ্ঞ)

 সারা বছরের ধকল কাটাতে পুজোর ছুটিতে বাইরে বেড়াতে যাওয়া বাঙালির সংখ্যা নেহাত কম নয়। শরতের আবাহাওয়ায় পাহাড়, জঙ্গল, সমুদ্র যেন নতুন রূপে সেজে ওঠে। আর সেই অপরূপ সাজ চাক্ষুষ করতে ভ্রমণ পিপাসুরা দলে পৌঁছে যান প্রকৃতির কোলে। বুনে ফেলেন নতুন অভিজ্ঞতার স্মৃতি।
বিশদ

12th  September, 2019
 হোমিওপ্যাথিক ওষুধ
ডাঃ দেবর্ষি দাস ( হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক)

 বাঙালি আর বেড়ানো এই দুই শব্দকে কখনওই আলাদা করা যায় না। কিন্তু বেড়াতে গিয়ে শরীর খারাপ হলে প্রকৃতি দর্শনের পুরো আনন্দটাই মাটি। আর এই বেড়ানোর আনন্দটা যাতে কোনওভাবেই নিরানন্দে পরিণত না হয় তাই বেড়াতে যাবার ব্যাগ গোছানোর সময় অবশ্যই কিছু জরুরি ওষুধ ব্যাগে নিতে হবে। দরকারে এগুলো ভীষণ উপযোগী এবং বেড়ানোটাকে নির্ঝঞ্ঝাট রাখতে পারে। বিশদ

12th  September, 2019
 শিশুদের সমস্যায়
ডাঃ সুজয় চক্রবর্তী ( শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ)

  বর্ষার শেষ আর শরতের আগমন মানেই বাঙালির এক বছরের অপেক্ষার অবসান। মা দুর্গার আগমনীবার্তায় যখন আকাশ-বাতাসে খুশির সুর, ঘরকুনো বাঙালিও তাঁর বদনাম ঘোচাতে হয়ে ওঠে ভ্রমণ পিপাসু। পাহাড় থেকে সমুদ্র, অরণ্য থেকে সমতল— এই সময়টাতে সর্বত্র আমাদের অবাধ বিচরণ।
বিশদ

12th  September, 2019
 ডি এন দে হোমিওপ্যাথিক কলেজের পুনর্মিলন উৎসব

  শিয়ালদহের কৃষ্ণপদ ঘোষ মেমোরিয়াল প্রেক্ষাগ্রৃহে অনুষ্ঠিত হল ডি এন দে হোমিওপ্যাথিক মেডিক্যাল কলেজের বার্ষিক পুনর্মিলন উৎসব। আয়োজক ছিল ওই কলেজের প্রাক্তন ছাত্র সমিতি। উৎসবের সূচনা করেন রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের (যোগোদদান) অধ্যক্ষ স্বামী বিমলাৎমানন্দজী মহারাজ।
বিশদ

12th  September, 2019
মাতৃভবন হাসপাতালে ল্যাপেরোস্কোপি

  আধুনিক ল্যাপেরোস্কোপি ও হিস্টেরেস্কোপির পদ্ধতিতে পেটের উপর শুধুমাত্র কয়েকটি ছিদ্র করে অপারেশন করা হচ্ছে। এরফলে রোগীর ব্যথা বেদনা কম হওয়া, অপারেশনের ঝুঁকি কম থাকা সহ আরও অনেক সুবিধে রয়েছে। কিন্তু খরচের কারণে অনেকেই এই সার্জারির সুবিধে নিতে পারেন না।
বিশদ

12th  September, 2019
গঙ্গা হাসপাতাল 

তামিলনাড়ুর কোয়াম্বাটুরের গঙ্গা মেডিক্যাল সেন্টার অ্যান্ড হাসপাতালের তরফে সল্টলেকে রিকনস্ট্রাকটিভ মাইক্রোসার্জারি, আগুনে পোড়া, ব্রেস্ট ক্যান্সার, প্লাস্টিক সার্জারি ইত্যাদি চিকিৎসার নয়া কেন্দ্র চালু হল।   বিশদ

05th  September, 2019
তামাকমুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে শিক্ষকদের নিয়ে প্রশিক্ষণ শিবির 

গ্লোবাল অ্যাডাল্ট টোব্যাকো সার্ভে (গ্যাটস ২০১৭) অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গে রোজ তামাকের নেশায় পা দিয়ে চলেছে ৪৩৮টি শিশু! রাজ্য জুড়ে যে হারে শিশুরা তামাকের নেশায় জড়িয়ে পড়ছে তা যথেষ্ট চিন্তায় রেখেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের শিক্ষা দপ্তরকে।   বিশদ

05th  September, 2019
মেডিকার সেন্টার ফর লিভার ডিজিজ 

লিভারের রোগের চিকিৎসা এবং লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্টের ক্ষেত্রে চিকিৎসা পরিষেবা দিতে মেডিকা হাসপাতালে শুরু হল সেন্টার ফর লিভার ডিজিজ ক্লিনিক। লিভারের চিকিৎসার সঙ্গে প্যাংক্রিয়াস ও গল ব্লাডারের রোগেরও চিকিৎসা হবে সেখানে।  বিশদ

05th  September, 2019
একনজরে
সংবাদদাতা, মালদহ: ইংলিশবাজার শহরে চলাচলের অনুমতি দিতে শুরু হয়েছে টোটো বা ই-রিকশর নিবন্ধীকরণ কর্মসূচি। এই সুযোগে শহর জুড়ে পুজোর মুখে ফের হুহু করে বাড়ছে টোটো’র সংখ্যা।  ...

বিএনএ, বর্ধমান: বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ২৫টি বেডের নতুন ডায়ালিসিস ইউনিটের কাজ শেষ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত দিয়ে উদ্বোধন করিয়ে শীঘ্রই ওই ইউনিট চালু করতে চাইছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।  ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব পর্যটন দিবস। এবার তার থিম পর্যটন এবং চাকরি। সেই ভাবনাকে সামনে রেখেই পর্যটন শিল্পে চাকরির পরিসর বাড়াতে উদ্যোগী হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কলকাতায় আজ, সোমবার থেকে চাকরির মেলা শুরু করছে পর্যটন মন্ত্রক। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কারিগরি প্রশিক্ষণকেন্দ্রগুলি টাকা খরচ করেও তার শংসাপত্র জমা দিচ্ছে না। এ নিয়ে কারিগরি শিক্ষা ডিরেক্টরেটের তরফে বারবার চিঠি দেওয়া হয়েছে। কোনও কোনও প্রশিক্ষণকেন্দ্র চিঠি পেয়েও সাড়া দিচ্ছে না বলে অভিযোগ। এবার কড়া চিঠি দিল ভোকেশনাল এডুকেশন ও ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সম্পত্তিজনিত মামলা-মোকদ্দমায় জটিলতা বৃদ্ধি। শরীর-স্বাস্থ্য দুর্বল হতে পারে। বিদ্যাশিক্ষায় বাধা-বিঘ্ন। হঠকারী সিদ্ধান্তের জন্য আফশোস বাড়তে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৪৭: বাংলার প্রথম র‌্যাংলার ও সমাজ সংস্কারক আনন্দমোহন বসুর জন্ম
১৯৩২: চট্টগ্রাম আন্দোলনের নেত্রী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের মৃত্যু
১৯৩৫: অভিনেতা প্রেম চোপড়ার জন্ম
১৯৪৩: অভিনেত্রী তনুজার জন্ম
১৯৫৭: গায়ক কুমার শানুর জন্ম 

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.১৯ টাকা ৭২.৭০ টাকা
পাউন্ড ৮৬.৪৪ টাকা ৯১.১২ টাকা
ইউরো ৭৬.২৬ টাকা ৮০.৩৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
21st  September, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮, ৩৩৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬, ৩৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৬, ৯১৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৬, ১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৬, ২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  September, 2019

দিন পঞ্জিকা

৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, নবমী ৩২/৫১ রাত্রি ৬/৩৭। আর্দ্রা ১৫/১ দিবা ১১/২৯। সূ উ ৫/২৮/৫৭, অ ৫/২৯/৪১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪ মধ্যে পুনঃ ৮/৪১ গতে ১১/৫ মধ্যে। রাত্রি ৭/৫২ গতে ১১/৫ মধ্যে পুনঃ ২/১৭ গতে ৩/৫ মধ্যে, বারবেলা ৬/৫৯ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ২/৩০ গতে ৪/০ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/০ গতে ১১/৩০ মধ্যে। 
৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, নবমী ১৯/৪৮/৫৫ দিবা ১/২৪/১৪। আর্দ্রা ৫/৩৮/১৫ দিবা ৭/৪৪/৮, সূ উ ৫/২৮/৫০, অ ৫/৩১/৩০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৭ মধ্যে ও ৮/৪১ গতে ১১/১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪২ গতে ১০/৫৯ মধ্যে ও ২/১৭ গতে ৩/৬ মধ্যে, বারবেলা ২/৩০/৫০ গতে ৪/১/১০ মধ্যে, কালবেলা ৬/৫৯/১০ গতে ৮/১৯/৩০ মধ্যে, কালরাত্রি ১/০/৩০ গতে ১১/৩০/১০ মধ্যে। 
২৩ মহরম

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নদীয়ার কলেজে বোমাবাজি, জখম ২
নদীয়ার মাজদিয়া কলেজে বোমাবাজির ঘটনা ঘটল। টিএমসিপি-এবিভিপি একে অন্যের বিরুদ্ধে ...বিশদ

06:28:00 PM

গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে উত্তেজনা চন্দননগরে
এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল হুগলী-চুঁচুড়া পৌরসভার ...বিশদ

06:23:18 PM

ষষ্ঠ বেতন কমিশন অনুযায়ী কেমন হচ্ছে কর্মচারীদের বেতন
ক্যাবিনেটেও অনুমোদিত হয়ে গেল ষষ্ঠ বেতন কমিশন । নতুন এই ...বিশদ

05:49:00 PM

ফায়ার লাইসেন্স ফি কমাল রাজ্য
ফায়ার লাইসেন্স ফি ৯২ শতাংশ কমিয়ে দিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। ...বিশদ

04:54:52 PM

কাটোয়ায় বাজ পড়ে মৃত ১ 
আজ সোমবার দুপুরে কাটোয়ায় বাজ পড়ে মৃত্যু হল এক ব্যক্তির। ...বিশদ

04:54:00 PM

রাজীব কুমারের কোয়ার্টারে ফের সিবিআই 
ফের নোটিস দিতে রাজীব কুমারের কোয়ার্টারে হানা দিল সিবিআই।   ...বিশদ

04:48:06 PM