Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

 সুদিন ফিরছে বাংলার সুগন্ধী ধানের

ব্রতীন দাস: সে কলকাতা পত্তনের আগের কথা। জানা যায়, হাওড়া থেকে গঙ্গা পেরিয়ে চারঘর বসাক ও একঘর শেঠ গোবিন্দপুরে (বর্তমানে যেখানে গড়ের মাঠ) এসে বসতি স্থাপন করে। সেখানেই তারা তাদের আরাধ্য দেবতা গোবিন্দকে ভোগ নিবেদনের উদ্দেশ্যে সুগন্ধী ধান ফলায়। সেই ধানই পরবর্তীতে পরিচিতি পায় গোবিন্দভোগ হিসেবে।
অন্যদিকে, উত্তরবঙ্গের বিখ্যাত সুগন্ধী ধানের ভাত তুলোর মতো নরম বলেই না কি তার নামকরণ হয় তুলাইপাঞ্জি। কেউ কেউ বলেন, তুলাই নামে এক নদীর তীরে ধানটি চাষ হতো। সেই থেকেই এই নামকরণ। তবে, শুধু গোবিন্দভোগ বা তুলাইপাঞ্জি নয়।
বাংলার সুগন্ধী ধানের তালিকায় রয়েছে বাদশাভোগ, কাটারিভোগ, রাধাতিলক, রাধুনিপাগল, দুধেশ্বর, হরিণখুরি, চিনিগুড়া, কালোজিরা, কালোনুনিয়া আরও কত কী। স্বাদে-গন্ধে একে-অপরকে টেক্কা দেয় তারা।
বাংলার এইসব সুগন্ধী ধান জড়িয়ে রয়েছে আমাদের সমাজ-সংস্কৃতির সঙ্গেও। একসময় ভালোই চাষ হতো। কিন্তু, উচ্চ ফলনশীল ধানের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়ে ১৯৭০ সাল থেকে ধীরে ধীরে কমতে থাকে দেশি সুগন্ধী ধানের এলাকা। হারিয়ে যায় অনেক ধান। সেসব ধানকে ফিরিয়ে আনতেই কাজ শুরু করেছেন বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা। উত্তরবঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়কে সঙ্গে নিয়ে গত ১০ বছর ধরে চলছে নিরলস প্রচেষ্টা। এতে অনেকটাই সাফল্য এসেছে। বাংলার লুপ্তপ্রায় বেশকিছু সুগন্ধী ধান আবারও ফিরেছে। উন্নত প্রযুক্তির প্রয়োগে বেড়েছে ফলন। ফলে চাষিরা আনন্দের সঙ্গেই সেসব ধান চাষ করছেন। এমনটাই দাবি বিজ্ঞানীদের। দেশি সুগন্ধী ধানের জাতগুলি মূলত আলোক সংবেদনশীল। ফুল আসা থেকে ধান পাকা পর্যন্ত অনেকটাই নির্ভর করে তাপমাত্রার উপর। সেক্ষেত্রে খুব বেশি গরম বা মারাত্মক ঠাণ্ডা, কোনওটাই উপযুক্ত নয়। সঙ্গে মাটির গুণ তো আছেই। বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলার সুগন্ধী ধান প্রকল্পের মুখ্য বিজ্ঞানী ড. মৃত্যুঞ্জয় ঘোষ জানিয়েছেন, বর্তমানে খরিফ মরশুমে রাজ্যে ১ লক্ষ হেক্টর জমিতে সুগন্ধী ধান চাষ হয়ে থাকে। যা থেকে গড়ে ফলন পাওয়া যায় প্রায় ৩ লক্ষ টন। ৩০-৩৫ ধরনের সুগন্ধী ধান বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে কম-বেশি চাষ হচ্ছে। এর মধ্যে ৬-৭টি ধানের চাহিদা রয়েছে। সেসব ধানের ভালো বীজ উৎপাদন করে চাষের এলাকা বাড়াতে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি উৎপাদিত চাল বিপণনের ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। রাজ্য সরকারের কৃষি বিপণন নিগম ও সুফল বাংলা কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি সুগন্ধী ধান কিনছে। ফলে চাষিরা ন্যায্য দাম পাচ্ছেন। স্বাভাবিকভাবেই উৎসাহিত হচ্ছেন তাঁরা। আর তাতেই সুগন্ধী ধান চাষের এলাকা বাড়ছে। বাংলার গোবিন্দভোগ রপ্তানি হচ্ছে দক্ষিণ ভারতে। তুলাইপাঞ্জি যাচ্ছে নেপাল, বাংলাদেশে।
প্রতিটি সুগন্ধী ধানের একটি নিজস্ব এলাকা রয়েছে। সেই এলাকার বাইরে গেলেই ফলন দিলেও সে সুবাস হারায়। ফলে বিজ্ঞানীরাও চাইছেন না, এক জায়গার ধানকে অন্যত্র নিয়ে গিয়ে চাষ করাতে। বরং যে এলাকায় যে ধানটি চাষ হয়ে থাকে, সেখানেই কীভাবে তার উৎপাদন বাড়ানো যায় তারই প্রচেষ্টা চলছে। কোন সুগন্ধী ধানের জন্য খ্যাতি রয়েছে কোন এলাকার?
ছোট দানার সুগন্ধী, তুলাইপাঞ্জি, কালো নুনিয়া, কাটারিভোগ মূলত উত্তরবঙ্গের ধান। এর মধ্যে তুলাইপাঞ্জির আদি বাসভূমি রায়গঞ্জের মোহিনীগঞ্জ। কালো নুনিয়া চাষ হয় জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং জেলায়। কাটারিভোগ চাষ হয়ে থাকে মালদহ ও দক্ষিণ দিনাজপুরে। রাজ্যে প্রায় ৪০ হাজার হেক্টর জমিতে গোবিন্দভোগ চাষ হয়। মূলত বর্ধমান, বীরভূম, নদীয়া জেলায় এই সুগন্ধী ধানটি চাষ হয়ে থাকে। রাধুনিপাগল বেশি চাষ হয় বীরভূম ও বাঁকুড়ায়। কিছুটা হয় বর্ধমান ও নদীয়ায়। গোবিন্দভোগ যে সব এলাকায় হয়ে থাকে, সেখানেই চাষ হয় বাদশাভোগ। তবে দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পশ্চিম মেদিনীপুরেও এই সুগন্ধী চাষ করা হচ্ছে। রাধাতিলক ধানটি চাষ হয়ে থাকে নদীয়া, হুগলি ও হাওড়ায়। কালোজিরা ধানটি ছোট দানার। চাষ হয় মূলত দক্ষিণবঙ্গে। বাংলাদেশে এই ধানটি প্রচুর পরিমাণে চাষ হয়ে থাকে। রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে চাষ হয় লাল বাদশাভোগ। দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগর এলাকায় দীর্ঘদিন পর ফিরেছে হরিণখুরি ধান। দুধেশ্বর ধানটি চাষ হচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনার সুন্দরবন অঞ্চলে। গোবিন্দভোগ, বাদশাভোগ ধানের চাল মূলত পায়েস ও ভোগ রান্নার কাজে ব্যবহৃত হয়। বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে গোবিন্দভোগের ধানের চিড়ে তৈরি করা হয়েছে। পোলাও হিসেবেও ব্যবহৃত হয় এই ধানের চাল। তুলাইপাঞ্জি ব্যবহৃত হয় সুগন্ধী ভাত হিসেবে। ভোগ রান্নার পাশাপাশি তৈরি হয় পোলাও, বিরিয়ানি, চিড়ে। মাঝারি দানার কালো নুনিয়া ও কাটারিভোগ সুগন্ধী ভাত হিসেবে ব্যবহৃত হয়।
বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী ড. মৃত্যুঞ্জয় ঘোষ জানিয়েছেন, ২০১৭ সালের অক্টোবরে তুলাইপাঞ্জি ও গোবিন্দভোগ জিআই তকমা পেয়েছে। বিদেশে রপ্তানিতে এই জিআই লোগো অনেকটাই সুবিধা দেবে। রাজ্য যে এক্সপোর্ট পলিসি তৈরি করছে তাতে বাংলার সুগন্ধী ধানকে যুক্ত করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

07th  August, 2019
ভাতারে ধানগাছে পোকার আক্রমণ, দুশ্চিন্তায় চাষিরা 

গণেন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়, বর্ধমান: ভাতারের বেলেণ্ডা, বালশিডাঙা, বলগোনা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রায় সর্বত্র ও মাহাচান্দার পঞ্চায়েতের খুরুল গ্রাম সহ একাধিক এলাকায় জমিতে লাগানো ধান গাছে পোকার সংক্রমণে মাথায় হাত পড়েছে চাষিদের। জমির মধ্যে বেশ কিছুটা অংশ বাদামি রঙের হয়ে যাচ্ছে। ক্রমে তা গোটা জমিতে ছড়িয়ে পড়ছে। 
বিশদ

06th  November, 2019
শিলিগুড়িতে রেশম গুটি উৎপাদনে লাভের মুখ 

সুব্রত ধর, শিলিগুড়ি: রেশম দপ্তরের উদ্যোগে ফাঁসিদেওয়া ও মাটিগাড়ায় অগ্রহায়ণী পি-১ সঞ্চ গুটির ভালো উৎপাদন হয়েছে। পরবর্তী বন্দগুলিতেও উৎপাদনে জোর দেওয়া হচ্ছে। পরিচর্যা, প্রশিক্ষণ ও বিক্রির সুবন্দোবস্ত থাকায় এই গুটি উৎপাদনের ফলে কৃষকরা আর্থিকভাবে সহজেই লাভবান হতে পারবেন। 
বিশদ

06th  November, 2019
আমনের ফলন মার খাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত বীরভূমের কৃষকরা 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায় : বীরভূম জেলার মুরারই ২ নম্বর ব্লকের জাজিগ্রাম, আমডোল, পাইকোর ১ ও ২, নন্দীগ্রাম ও রুদ্রনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত বিভিন্ন অঞ্চলে আমন ধানের ফলন নষ্ট হয়ে যাওয়ায় চাষিরা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। এমনিতেই এবছর এই অঞ্চলে আমন ধান চাষে জলের অভাব ছিল।  
বিশদ

06th  November, 2019
বনগাঁয় হাইব্রিড বেগুনে জোর 

নবজ্যোতি সরকার: বেগুনের বাজারদর বর্তমানে ভালোই। বেগুনচাষে সমৃদ্ধ উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ মহকুমার চাষিরা উৎপাদন বাড়াতে শীতকালীন হাইব্রিড বেগুনচাষে মন দিয়েছেন। বনগাঁ, বাগদা, গাইঘাটার চাষিরা জানান, এবছর তাঁরা পুসা হাইব্রিড ৫, পুসা হাইব্রিড ৬ এবং গ্রীন হাইব্রিড, এই তিন প্রজাতির বেগুন চাষ করছেন। 
বিশদ

06th  November, 2019
নিয়ম মেনে সাদা ও টোরি সর্ষে চাষে মিলবে লাভ 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: বিভিন্ন তৈলবীজ চাষের মধ্যে সাদা সর্ষের চাষ বেশ লাভজনক। এই চাষ একটু কম হয় বলে বাজারে ভালোই চাহিদা আছে। সাদা সর্ষের উন্নত জাতগুলির মধ্যে সবচেয়ে ভালো ফলন দেয় বিনয় (বি-৯), সুবিনয় এবং ঝুমকা।  বিশদ

30th  October, 2019
ধান কাটা শেষ হলেই মুসুর ও ছোলা বুনুন 

ব্রতীন দাস: অনেক জায়গায় আউশ ও আমন ধান কাটা শুরু হয়েছে। কিছু জায়গায় আর কিছুদিন পরই ধান কাটা হবে। এই পরিস্থিতিতে চাষিদের জন্য কৃষি আধিকারিকদের সুপারিশ, যেসব জমিতে ধান কাটা হয়ে যাচ্ছে এবং যেখানে অন্তত একটা সেচ দেওয়ার সুযোগ রয়েছে, সেখানে জমি ফেলে না রেখে মুসুর ও ছোলা চাষ করা যেতে পারে।   বিশদ

30th  October, 2019
গ্রিনহাউসে ফুল ও সব্জি চাষে জনপ্রিয়তা বাড়ছে 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায়: গ্রিনহাউস চাষ গোটা বিশ্বে সাড়া জাগিয়েছে। ভারতীয় কৃষি অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য সাফল্য আসছে। কৃষি বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ভারতীয় অর্থনীতি (কৃষিতে) পাল্টে দিতে পারে গ্রিনহাউস পদ্ধতিতে উৎপাদিত পণ্য বিক্রি করে।   বিশদ

30th  October, 2019
ভুট্টা চাষে রাজ্যজুড়ে কৃষকদের আগ্রহ বাড়াতে উচ্চ পর্যায়ের কর্মশালার আয়োজন করছে কৃষি দপ্তর 

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: প্রকৃতির খামখেয়ালিপনার মোকাবিলা করা মুশকিল। একদিকে চাষের উপযোগী সময়ে বৃষ্টি হচ্ছে না, আবার যখন হচ্ছে তাতে জমিতে জল জমে ক্ষতি হচ্ছে অন্য ফসলে। বৃষ্টির এই অসম বণ্টনে চিন্তিত কৃষিদপ্তর থেকে চাষিরা।  
বিশদ

24th  October, 2019
অল্প পরিচর্যায় মেলে ফসল, লাভও ভালো
আমন ধান কাটার পর জমিতে ভুট্টা চাষের পরামর্শ কৃষি দপ্তরের 

সংবাদদাতা, কান্দি: শীতের মরশুমে আমন ধান কাটার পর ও পতিত জমিতে ভুট্টা চাষের উপর জোর দিতে চাইছে কান্দি মহকুমা কৃষি দপ্তর। ভুট্টা চাষ যেমন লাভজনক তেমনই এর বাজারদরও রয়েছে। তার উপর অল্প পরিচর্যায় এই চাষ করা যায় বলে কৃষি দপ্তর সূত্রে জানানো হচ্ছে।  
বিশদ

24th  October, 2019
গাঁদাফুল চাষ করে লাভের মুখ
দেখছেন রানাঘাটের কৃষকরা 

অভিষেক পাল, রানাঘাট, সংবাদদাতা: পুজোর মরশুমে গাঁদা ফুলের চাহিদা থাকে ঊর্ধ্বমুখী। তাই এই সময় গাঁদা ফুলের চাষ করে সারা বছরের তুলনায় কিছুটা বেশি লাভের মুখ দেখেন রানাঘাটের নোকারি সহ আশপাশের এলাকার ফুল চাষিরা।  বিশদ

23rd  October, 2019
শীতকালীন পেঁয়াজ চাষ শুরু করতে
হবে এখনই, যত্ন চাই চারা তৈরিতে 

ব্রতীন দাস: শীতের পেঁয়াজ চাষের প্রস্তুতি শুরু করতে হবে এখনই। এমনটাই বলছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের সুপারিশ, আগামী কিছুদিনের মধ্যেই রবি মরশুমে চাষের জন্য পেঁয়াজের বীজতলা তৈরির কাজ শেষ করে ফেলতে হবে।  বিশদ

23rd  October, 2019
পানিফল চাষে লাভ মেলায় খুশি আরামবাগের কৃষকরা 

সুদেব দাস, আরামবাগ: আরামবাগে পানিফল চাষে তিনগুণ লাভ হওয়ায় খুশি চাষিরা। শীতের আগে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে ওই পানিফল। কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, এ রাজ্যে নদীয়া ও মুর্শিদাবাদ জেলায় পানিফলের চাষ শুরু হয়েছিল। পরবর্তী সময়ে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বর্তমানে কমবেশি এই ফলের চাষ হচ্ছে।  
বিশদ

16th  October, 2019
আমনে ভালো ফলন পেতে শোষক পোকা ও ঝলসা ঠেকানো জরুরি 

নিজস্ব প্রতিনিধি: আমন ধান কাটার সময় চলে এসেছে। যেসব জমিতে সময়ে ধান লাগানো হয়েছে, সেখানে ধানগাছে শিষ চলে এসেছে। যেখানে একটু দেরিতে রোয়া করা হয়েছে, সেখানে ধানগাছে থোড় এসেছে। এইসময় ধানখেতে পরিচর্যা জরুরি। কয়েকটি রোগপোকা দমনের দিকেও বিশেষ নজর রাখতে হবে চাষিদের। নতুবা ফলন মার খেতে পারে।  
বিশদ

16th  October, 2019
লাভ বাড়বে ৯ গুণ, মালদহে মিশ্র চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা 

সংবাদদাতা, হরিশ্চন্দ্রপুর: মালদহ জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর-২ ব্লকে অধিক মুনাফা লাভের আশায় মিশ্র চাষের দিকে ঝুঁকছেন চাষিরা। ব্লক কৃষি দপ্তরের আতমা প্রকল্পের মাধ্যমে ধানের জমিতে মাছ ও সব্জি চাষ করা হয়। ব্লক কৃষি দপ্তরের উদ্যোগে ধানের সঙ্গে মাছ চাষের একটি প্রদর্শনী ক্ষেত্র করা হয় ব্লকের সুলতাননগর গ্রাম পঞ্চায়েতের সাহাপুর গ্রামে। 
বিশদ

16th  October, 2019

Pages: 12345

একনজরে
সুকান্ত গঙ্গোপাধ্যায়, কোচবিহার, বিএনএ: বেনারসি পানের সুনাম বহুকাল থেকেই রয়েছে। ১৯৭৮ সালে ‘ডন’ ছবিতে অমিতাভ বচ্চনের অভিনয়ে এবং কিশোর কুমারের কণ্ঠের সেই বিখ্যাত ‘খাইকে পান ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: এবার পুজোর আগে বন্যায় হাওড়ার একাংশে এবং বুলবুলের দাপটে দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলায় ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ফের রবি শস্য ও আলু চাষের সময় এসে গিয়েছে। এই সময় যাতে কৃষকদের কৃষিঋণ পেতে কোনও রকম অসুবিধা না হয়, তার ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: হাওড়া শহরে একটি শিশু হাসপাতাল তৈরির জন্য ইন্ডিয়ান রেডক্রশ সোসাইটির হাওড়া শাখাকে ১০ লক্ষ টাকা দিলেন সংসদ সদস্য প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। খুব শীঘ্রই এই হাসপাতালের কাজ শুরু হবে। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কথা ছিল ম্যাচের প্রথম ব্রেকে ‘ফ্যাব ফাইভে’র চ্যাট শো হবে। তবে এই অনুষ্ঠানে রাহুল দ্রাবিড়কে দেখা যায়নি। শুক্রবার ভোর সাড়ে চারটেয় তিনি ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের ধৈর্য ধারণ করতে হবে। কর্মক্ষেত্রে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো থাকবে। কর্মসূত্রে দূর দেশে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৮৩: লেখক প্যারীচাঁদ মিত্রের মৃত্যু
১৮৯৭: লেখক নীরদচন্দ্র চৌধুরির জন্ম
১৯৩৭: বিজ্ঞানী আচার্য জগদীশচন্দ্র বসুর মৃত্যু  





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.১৩ টাকা ৭৩.৩০ টাকা
পাউন্ড ৯০.৪৫ টাকা ৯৪.৮৩ টাকা
ইউরো ৭৭.৫১ টাকা ৮১.২৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৮১৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৮২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৩৭৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,২৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,৩৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার, একাদশী ০/৫ দিবা ৬/২৪ পরে দ্বাদশী ৫৪/২২ রাত্রি ৩/৪৩। হস্তা ২১/৫৬ দিবা ২/৪৫। সূ উ ৫/৫৮/৫, অ ৪/৪৭/৩৭, অমৃতযোগ দিবা ৬/৪১ মধ্যে পুনঃ ৭/২৪ গতে ৯/৩৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৪ গতে ২/৩৮ মধ্যে পুনঃ ৩/২১ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ১২/৪২ গতে ২/২৭ মধ্যে, বারবেলা ৭/২০ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৪ গতে ২/৫ মধ্যে পুনঃ ৩/২৬ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ৬/২৭ মধ্যে পুনঃ ৪/২০ গতে উদয়াবধি। 
৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার, দ্বাদশী ৫০/৪৮/৪৪ রাত্রি ২/১৯/৫৭। হস্তা ১৯/৫১/৩২ দিবা ১/৫৭/৪, সূ উ ৬/০/২৭, অ ৪/৪৭/১১, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৩ মধ্যে ও ৭/৩৫ গতে ৯/৪৩ মধ্যে ও ১১/৫১ গতে ২/৪১ মধ্যে ও ৩/২৩ গতে ৪/৪৭ মধ্যে এবং রাত্রি ১২/৫০ গতে ২/৩৬ মধ্যে, বারবেলা ১২/৪৪/৪০ গতে ২/৫/৩০ মধ্যে, কালবেলা ৭/২১/১৮ মধ্যে ও ৩/২৬/২১ গতে ৪/৪৭/১১ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/২৬/২০ মধ্যে ও ৪/২১/১৭ গতে ৬/১/১৭ মধ্যে।
২৫ রবিয়ল আউয়ল  

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
শওকত কাইফির জীবনাবসান 
প্রখ্যাত অভিনেত্রী শওকত কাইফি (৯১)-র জীবনাবসান হল। আজ মুম্বইয়ের বাড়িতে ...বিশদ

22-11-2019 - 09:45:00 PM

করিমপুর: থানারপাড়ার ওসিকে সরিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন 

22-11-2019 - 09:21:00 PM

দ্বিতীয় টেস্ট, প্রথম দিন: ভারত ১৭৪/৩  

22-11-2019 - 08:35:43 PM

বেআইনিভাবে টিকিট বিক্রির অভিযোগে ইডেন গার্ডেন্স চত্বর থেকে ধৃত ৯ 

22-11-2019 - 06:33:37 PM

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 

22-11-2019 - 06:14:00 PM

দ্বিতীয় টেস্ট: ভারত ৩৫/১ (চা বিরতি) 

22-11-2019 - 05:47:19 PM