Bartaman Patrika
বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
 

সমাজে অপরাধ
বাড়াচ্ছে বায়ুদূষণ
বলছে বিজ্ঞানীদের গবেষণা

মৃণালকান্তি দাস: আগ্নেয়গিরির শিখরে যেন পিকনিক চলছে! অথচ হুঁশ নেই কারও। প্রতিদিনই একটু একটু করে ঘড়ির কাঁটার সঙ্গে বাড়ছে অসহিষ্ণুতা, বাড়ছে অপরাধের সংখ্যা। শুনলে অবাক হবেন, চলতি বছরের প্রথম ছ’মাসে আমাদের দেশে ২৪ হাজারের বেশি শিশু ধর্ষণের শিকার। সমাজে অস্থিরতা, রাজনীতিতে হিংসার বহিঃপ্রকাশ, অসামঞ্জস্যপূর্ণ সমাজ যখন তৈরি হয়, তখন এ ধরনের অবক্ষয়ের প্রবণতা বাড়ে। আমাদের মধ্যে বিচারহীনতা ও ভয়ের সংস্কৃতি বিরাজ করছে। এই পরিস্থিতিতে ধর্ষণ সহ নানা অপরাধের সংখ্যা বেড়ে যায়। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই অপরাধ বাড়ার পিছনেও রয়েছে ‘বায়ুদূষণ’-এর অদৃশ্য হাত! শুনতে আশ্চর্য লাগলেও এটাই ঘটনা।
২০১১ সাল। লন্ডন স্কুল অব ইকনমিক্সের সেফি রথ নামে এক শিক্ষক বায়ুদূষণের বিভিন্ন প্রভাব নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করছিলেন। ভাবলেন, চিন্তাশক্তির উপর এর কোনও প্রভাব পড়ে কি না একটুখানি পরীক্ষা করে দেখা যাক। শিক্ষার্থীদের কয়েকটি পরীক্ষার দিন তিনি বেছে নিলেন। সেই সমস্ত দিনে বায়ুদূষণের মাত্রা কেমন থাকে, সেটা দেখা হল। বিশেষ করে বায়ু বাদে বাকি সব বিষয় যেন একই থাকে, সেটা খেয়াল রাখা হল। যেমন, ভিন্ন ভিন্ন দিন পরীক্ষা নেওয়া হলেও অংশগ্রহণকারী সব শিক্ষার্থী একই হতে হবে। পরীক্ষা হতে হবে একই জায়গায়। প্রশ্নের মান হতে হবে একইরকম। গবেষক দল আবিষ্কার করলেন, বায়ুদূষণের মাত্রা যেদিন বেশি ছিল, সেদিন শিক্ষার্থীদের পরীক্ষাও খারাপ হয়েছে। অর্থাৎ, বায়ুদূষণ আসলেই শিক্ষার্থীদের চিন্তাশক্তির উপর খারাপ প্রভাব ফেলছে। বাস্তব জীবনে যা হয়, গবেষক দল তারপর সেটাই দেখালেন। যারা সেদিন পরীক্ষা খারাপ করেছে, তারা স্বাভাবিকভাবেই অন্যদের চেয়ে পিছিয়ে গিয়েছে। ফলে, তুলনামূলক ভালো বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে তাদের পড়ার সুযোগ কমে গিয়েছে। যার প্রভাব পড়বে তাদের চাকরি জীবনেও। যেটা পরবর্তীকালে আবার তাদের পারিবারিক জীবনেও প্রভাব ফেলবে। মানে, শুধু পরীক্ষার দিনটায় যে এলাকার বায়ুদূষণের মাত্রা বেশি থাকবে, সারা জীবনের জন্য সেই এলাকার শিক্ষার্থীরা কোনও কারণ ছাড়াই অনেকটা পিছিয়ে যাবে।
পরবর্তী প্রমাণ পাওয়া গেল ২০১৬ সালে। আরও একদল গবেষক এ নিয়ে পরীক্ষা করে একই ফলাফল পেলেন। রথ এবং তাঁর দল তাঁদের গবেষণা আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যান। দু’বছরে লন্ডনের ৬০০ ইলেক্টোরাল ওয়ার্ডে (ভোটের হিসেবে ভাগ করা এলাকা) যেসব অপরাধ সংগঠিত হয়েছে, সেসব তথ্য নিয়ে কাজ করলেন। দেখা গেল, যে এলাকাই হোক না কেন, ভয়ঙ্কর সব অপরাধ যেসব দিনে ঘটেছে, সেসব দিনের বায়ুদূষণের মাত্রা অন্যান্য দিনের তুলনায় বেশি ছিল।
হ্যাঁ, এর মধ্যে অন্য অনেক ব্যাপারই থাকতে পারে। শুধু এটুকু যুক্তি দিয়ে গবেষণার ফলাফল টেনে ফেলা যায় না। তাহলে, এই বিষয়টা সঠিক কিনা, সেটা পুরোপুরি বোঝার উপায় কী? এরপর গবেষকরা কিছু এলাকা বেছে নিলেন। সেখানকার দূষিত বায়ু শনাক্ত করে তার গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করতে লাগলেন। বাতাস যেদিকে বইবে, দূষিত বায়ু ধীরে ধীরে সেদিকেই সরে যাবে। সেই হিসেবে, একটা শহরে সময়ে সময়ে বায়ুদূষণের পরিমাণ কম-বেশি হবে। রথের ভাষায়, ‘আমরা শুধু সেই দূষিত বায়ু-মেঘটাকে অনুসরণ করে গিয়েছি। সেইসঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকার অপরাধ প্রবণতার দিকেও লক্ষ্য রেখেছি। দেখা গেল, দূষিত বায়ু যে এলাকা দিকে যাচ্ছে, অপরাধের হার তুলনামূলকভাবে বেড়ে যাচ্ছে। তবে, এই গবেষণা থেকে অপরাধ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেলেও, ভয়াবহ অপরাধগুলোর
উপর এর প্রভাব সেভাবে বোঝা যায়নি।’
২০১৮ সালের আরও এক গবেষণা থেকে খুন, ধর্ষণের মতো অপরাধের উপরেও বায়ুদূষণের সম্ভাব্য প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। এই গবেষণাটির নেতৃত্বে ছিলেন আমেরিকার ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি)-র গবেষক জ্যাকসন লু। দীর্ঘ ন’বছর ধরে আমেরিকার ৯ হাজারের মতো এলাকা নিয়ে কাজ করেছেন তাঁরা। দেখা গেল, ছ’টি ভয়াবহ অপরাধ, যেমন — খুন, ধর্ষণ, ডাকাতি ইত্যাদির উপরেও বায়ুদূষণের প্রভাব পড়ছে এবং যেসব শহরে দূষণের মাত্রা বাড়ছে, সেখানে অপরাধের মাত্রাও বেড়ে যাচ্ছে। এরকম একাধিক গবেষণা বলছে, বায়ুদূষণ মস্তিষ্কের উপর যে প্রভাব ফেলে, তার ফলে মানুষের বিবেচনা বোধ এলোমেলো হয়ে যেতে পারে। বেড়ে যেতে পারে মানসিক সমস্যা এবং অপরাধ প্রবণতা।
শুধু তাই নয়, মানুষের মস্তিষ্ক স্বাভাবিকভাবেই আত্মরক্ষার চেষ্টা করে। জ্যাকসন লু এবং তাঁর সহকর্মীরা পরীক্ষা করে দেখিয়েছেন, বায়ুদূষণের প্রভাব মস্তিষ্কের স্বাভাবিক চিন্তা-ভাবনায় ব্যাঘাত ঘটায়। পরীক্ষা করতে তাঁরা বিভিন্ন দেশের মানুষকে আলাদাভাবে বসান। খুব দূষিত এলাকার ছবি দেখিয়ে জানতে চান, তাঁরা সেসব এলাকায় বসবাস করতে রাজি আছেন কিনা। এর মধ্যে আমেরিকান যেমন ছিলেন, তেমনই ভারতীয়ও ছিলেন। এই সময় তাদের মস্তিষ্কের ব্রেনওয়েভ, পালস ইত্যাদি পর্যবেক্ষণ করা হয়।
লু’র কথায়, ‘আমরা তাঁদেরকে মানসিকভাবে বায়ুদূষণের অনুভূতি দিই। জিজ্ঞাসা করি, এমন পরিবেশে থাকতে তাঁদের কেমন লাগবে? একইসঙ্গে পরিষ্কার কোনও এলাকায় থাকতে কেমন লাগবে, সেটাও তাঁদের কাছে জানতে চাওয়া হয়।’ দেখা যায়, শুধু মানসিকভাবে দূষিত এলাকায় থাকার অনুভূতিও মানুষের মধ্যে দুশ্চিন্তা, উদ্বেগ এবং স্বার্থপর ভাবনা জাগিয়ে তোলে। শান্ত মাথায় অপরাধ করা বা কাউকে ঘুসি মেরে বসার চেয়ে উদ্বিগ্ন অবস্থায় মেরে বসার সম্ভাবনা বেশি। তার মানে, বায়ুদূষণ আপনার ব্যবহারের উপর খারাপ প্রভাব ফেলছে।
গবেষকদের মতে, শুধু উদ্বেগ বা স্বার্থপর ভাবনাই নয়, জৈবিক কারণও রয়েছে এর পিছনে। দূষিত বায়ুতে শ্বাস নিলে আপনার মস্তিষ্ক প্রয়োজনের তুলনায় কম মাত্রায় অক্সিজেন পৌঁছয়। এমন অবস্থায় ওই ব্যক্তি যে স্বাভাবিকভাবে কাজ করতে পারবেন না, সেটাই স্বাভাবিক। তাছাড়া, দূষিত বায়ু নাক, কান, গলা, ফুসফুসের উপরেও প্রভাব ফেলে। এসবের ফলে মস্তিষ্কে স্নায়বিক সংযোগের ক্ষতি হতে পারে। এই ক্ষতিটা মস্তিষ্কের প্রি-ফ্রন্টাল লোবে হয়। আর, মস্তিষ্কের এই অংশটিই মূলত আমাদের আত্মনিয়ন্ত্রণ, বিবেচনাবোধ ইত্যাদিকে নিয়ন্ত্রণ করে।
বর্তমান পৃথিবীর অর্ধেকের বেশি মানুষ শহরে বসবাস করে। ফলে বাসে বা গাড়িতে যাতায়াতের সময় নিয়মিত ভীষণরকম দূষিত বাতাস টেনে নিচ্ছে মানুষ। ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (‘হু’) বলছে, বিশ্বের প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৯ জনই ভয়াবহ দূষিত বায়ুতে শ্বাস নিচ্ছে। বর্তমান হিসেবে প্রতিবছর প্রায় ৭০ লক্ষ মানুষ শুধু বায়ুদূষণের প্রভাবে মারা যাচ্ছে। তাহলে ভাবুন আমাদের ভবিষ্যৎ সমাজের চিত্রটা কেমন হতে চলেছে?
বিজ্ঞান গবেষণার একটা বড় বৈশিষ্ট্য হল, সে শুধু তথ্য বিশ্লেষণই করে না, বরং বিশ্লেষিত তথ্য ব্যবহার করে অনুমান করতে পারে, কী ধরনের ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে। দেখা গেল, এমআইটির গবেষক জ্যাকসন লু’র গবেষণা শুধু তথ্য বিশ্লেষণই করছে না, বরং বায়ুদূষণের মাত্রা হিসেব করে বলে দিতে পারছে, কোন শহরে কোন দিন অপরাধের হার কেমন হবে। সবচেয়ে বড় কথা, এই গবেষণায় বয়স, লিঙ্গ, চাকরিজীবীদের পেশাগত পদ এবং সেই হিসেবে তাদের আয়-ব্যয়, জনসংখ্যা ইত্যাদি বিষয়গুলিও হিসেবে রাখা হয়।
সাউথ ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির ডায়ানা ইউনান এবং তাঁর সহকর্মীরা গবেষণা করে দেখেছেন, প্রতারণা কিংবা স্কুল পালানো থেকে শুরু করে ছোটখাটো চুরি, ভাঙচুর ইত্যাদির উপরেও বায়ুদূষণের প্রভাব রয়েছে। ওই গবেষণায় ৬২৮ জন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে। তাঁরা বাতাসে পিএম ২.৫ কণার দূষণের দিকে বিশেষ নজর রেখেছিলেন। মানুষের চুল যতটা সরু তার থেকে প্রায় ৩০ গুণ ছোট যেসব কণা বাতাসের সঙ্গে মিশে গিয়ে বায়ুদূষণ ঘটায়, এরাই পিএম ২.৫ নামে পরিচিত। কল-কারখানা, মোটর গাড়ি বা পোড়ানো কাঠ থেকে এই ধরনের কণা উৎপন্ন হতে পারে এবং বাতাসের সঙ্গে মিশে যেতে পারে। ভারত কি এই মারণ-ঘাতক থেকে সতর্ক?
বায়ুদূষণের বিরুদ্ধে লড়াই জোরদার করতে পরিবেশ মন্ত্রক সম্প্রতি একটি নির্দিষ্ট রূপরেখা প্রকাশ করেছে। যার পোশাকি নাম, ‘ন্যাশনাল ক্লিন এয়ার প্রোগ্রাম’ (এনসিএপি)। ওই কর্মসূচির প্রধান উদ্দেশ্যই হল, যেভাবে দেশে বায়ুদূষণ বিপজ্জনক মাত্রায় বৃদ্ধি পাচ্ছে, তাকে নিয়ন্ত্রণ করা। পাশাপাশি, ২০২৪ সালের মধ্যে প্রাথমিক ভাবে বাতাসে ভাসমান ধূলিকণা (পিএম ১০) এবং অতি সূক্ষ্ম ধূলিকণার (পিএম ২.৫) পরিমাণ জাতীয় স্তরে ২০-৩০ শতাংশ কমানো। সেই রিপোর্টেই দেখা যাচ্ছে, গত পাঁচ বছর ধরে ধারাবাহিক ভাবে বায়ূসূচকের স্বাভাবিক মাত্রা লঙ্ঘিত হয়েছে এমন ১০২টি শহরের (মন্ত্রকের তরফে যেগুলিকে ‘নন অ্যাটেনমেন্ট সিটিজ’ বলা হচ্ছে) মধ্যে অন্যতম হল কলকাতা! অর্থাৎ, পরিবেশ, আক্ষরিক অর্থেই, অনাথ। এইসব তথ্য জানার পর প্রশ্ন ওঠাই স্বাভাবিক — ওরা পারে, আমরা পারি না কেন?
আসলে কোনও জাদুকাঠির বলে কলকাতা সহ গোটা দেশের বড় বড় শহরে বায়ুদূষণ রোধ করা যাবে না। এর জন্য চাই সরকারের সুষ্ঠু পরিকল্পনা ও নীতি। যার বড় উদাহরণ হতে পারে আমেরিকার অঙ্গরাজ্য ক্যালিফোর্নিয়া। কলকাতায় এসে বলে গিয়েছিলেন মার্কিন পরিবেশ প্রযুক্তি বিজ্ঞানের অধ্যাপক ডঃ জেমস স্যার।
11th  August, 2019
ক্যাম স্ক্যানারে ভাইরাস
প্লে-স্টোর থেকে সরাল গুগল

গ্রাহক সুরক্ষা ও নিরাপত্তার স্বার্থে জনপ্রিয় মোবাইল অ্যাপ ‘ক্যাম স্ক্যানার’কে নিজেদের অ্যান্ড্রয়েড প্লে-স্টোর থেকে সরিয়ে দিল তথ্যপ্রযুক্তি জায়ান্ট গুগল। অ্যাপটিতে ভয়ঙ্কর ‘ট্রোজান’ ভাইরাস মিলতেই এই পদক্ষেপ বলে জানা গিয়েছে। ‘ক্যাম স্ক্যানার’-এর লেটেস্ট ভার্সানে এই ভাইরাস মিলেছে।
বিশদ

08th  September, 2019
ভুয়ো অ্যাপ চেনার উপায়

 প্লে-স্টোর থেকে ক্যাম স্ক্যানারের মতো জনপ্রিয় অ্যাপ গুগল সরিয়ে ফেলতেই অ্যাপ ব্যবহারকারী তথা টেকপ্রেমীদের মধ্যে নতুন করে সংশয় জেগেছে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করছে, কোন অ্যাপ আসল? কোন অ্যাপ ব্যবহার করলে সুরক্ষিত থাকবে ব্যক্তিগত গোপন নথি? কেন না, বর্তমান প্রযুক্তি-যুদ্ধে যে দেশের কাছে যত বেশি তথ্য রয়েছে, সেই দেশ তত বেশি শক্তিশালী।
বিশদ

08th  September, 2019
পৃথিবী থেকে চন্দ্রপৃষ্ঠ
ন্দ্রযান-২-এর পথ পরিক্রমা

  জিএসএলভি রকেটের যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য শুরুতেই পিছিয়ে গিয়েছিল উৎক্ষেপণ। তারপর ২২ জুলাই চন্দ্রযান-২-এর সফল উৎক্ষেপণ ঘটান ইসরোর বিজ্ঞানীরা। আর ফিরে তাকাতে হয়নি। পরিকল্পনামাফিক পৃথিবীর কক্ষপথ ছাড়িয়ে এগতে থাকে সেটি। একের পর এক লাফ দিতে দিতে পৌঁছে যায় চাঁদের কক্ষপথে।
বিশদ

08th  September, 2019
 কৃষ্ণগহ্বরের ছবি তুলে বিজ্ঞানে অস্কার

  ইতিহাস গড়ে ৫ কোটি ৫০ লক্ষ আলোকবর্ষ দূরে (ম্যাসিয়ার ৮৭-গ্যালাক্সির কেন্দ্রে) অবস্থিত কৃষ্ণগহ্বর (ব্ল্যাকহোল)-এর ছবি তুলেছিলেন একদল বিজ্ঞানী। সেই বেনজির কৃতিত্বের জন্য ফান্ডামেন্টাল ফিজিক্সে ব্রেকথ্রু পুরস্কারে সম্মানিত হতে চলেছেন তাঁরা। পোশাকি নাম ‘অস্কার অব সায়েন্স’ বা বিজ্ঞানের অস্কার।
বিশদ

08th  September, 2019
 ইসরোর আরও
১০টি সা ফ ল্য

  ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা বা ইসরো বিগত কয়েক দশকে প্রচুর সাফল্য পেয়েছে, যা দেশবাসীকে গর্বিত করেছে। আজ থেকে পাঁচ দশক আগে ১৯৬৯ সালে যাত্রা শুরু করে মহাকাশ গবেষণায় তাবৎ দেশের সঙ্গে টেক্কা দিচ্ছে ভারত। যে কারণে গোটা বিশ্ব এখন ভারতের সাফল্যকে কুর্ণিশ জানাচ্ছে। একনজরে ইসরো সাফল্য: বিশদ

08th  September, 2019
বাজারে আসছে ৬৪
মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা

 এবার ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার মোবাইল বাজারে নিয়ে আসতে চলেছে স্যামসাং। মডেলের নাম গ্যালাক্সি এ৭০এস। মোবাইলটির অপারেন্টিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড পাই। ফোনটিতে রয়েছে অক্টাকোর স্ম্যাপড্রাগন ৬৭৫ চিপসেট। ৬ জিবির এই ফোনটিতে রয়েছে ৬৪ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা।
বিশদ

16th  August, 2019
নতুন অপারেটিং সিস্টেম
লঞ্চ করল হুওয়াই

 নতুন অপারেটিং সিস্টেম লঞ্চ করল চীনের মোবাইল প্রস্তুতকারী সংস্থা হুওয়াই। সম্প্রতি মার্কিন প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এই সংস্থার সবরকম সাপোর্ট বন্ধ করে দিয়েছিল গুগল। ফলে স্মার্টফোনের ব্যবসা প্রায় ডুবতে বসেছিল। কিন্তু চীনা কোম্পানি বলে কথা। 
বিশদ

16th  August, 2019
শাওমি ফোনে বিজ্ঞাপন
বন্ধ করবেন কীভাবে?

কম দামে দুর্দান্ত ফিচার উপহার দিয়ে ইতিমধ্যেই ভারতবাসীর মন জয় নিয়েছে চীনা মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা শাওমি (Xiaomi)। কিন্তু, শাওমির নিজস্ব অ্যান্ড্রয়েড স্কিন MIUI-তে বিজ্ঞাপন দেখানোর অভিযোগ উঠছে। গাঁটের পয়সা খরচ করে স্মার্টফোন কেনার পরে অপারেটিং সিস্টেমের মধ্যে বিজ্ঞাপন দেখানোয় তিতিবিরক্ত গ্রাহককূল।
বিশদ

11th  August, 2019
 ‘মৃত্যুর ব্যবসায়ী’ অ্যালফ্রেড নোবেল!

  ঊনবিংশ শতাব্দীর শেষ ভাগ। এক ভদ্রলোক ইতালির স্যানরিজো শহরে নিজের বাড়িতে বসে খবরের কাগজ পড়ছেন। ভদ্রলোকের নিজস্ব ব্যবসা আছে। তাঁর আর্থিক অবস্থা যে ভীষণ ভালো তা বলাই বাহুল্য। সেইসঙ্গে ইতালি, সুইডেন ইউরোপের বিভিন্ন দেশে তাঁর প্রভাব প্রতিপত্তিও যথেষ্ট।
বিশদ

11th  August, 2019
সাধ্যের মধ্যে সেরা
পাওয়ার ব্যাঙ্ক

 রাস্তায় হাঁটছেন হঠাৎই দেখলেন আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারির চার্জ প্রায় শেষ। এদিকে আবহাওয়ার অবস্থাও ভালো নয়। ক্যাব বুক করার আশায় জল ঢেলে আপনার ফোন কাজে সাময়িকভাবে ইস্তফা দিল। বাড়ির সঙ্গে যোগাযোগও বিচ্ছিন্ন। এরকম অপ্রীতিকর অবস্থায় কমবেশি আমাদের সকলকেই কখনও না কখনও পড়তে হয়েছে। কিন্তু আর চিন্তা নেই। কারণ বাজারে কম দামের মধ্যে এসে গিয়েছে বেশ কিছু পাওয়ার ব্যাঙ্ক। যার সাহায্যে নিমেষের মধ্যেই মোবাইলের ব্যাটারিতে চার্জ দিয়ে নিতে পারবেন। সে আপনি যেখানেই থাকুন না কেন। আজ আপনাদের পকেট ফ্রেন্ডলি তেমনই কিছু পাওয়ার ব্যাঙ্কের সুলুক সন্ধান দেব আমরা।
বিশদ

11th  August, 2019
ভারতের চন্দ্রাভিযান ২.০ 

ডঃ দেবীপ্রসাদ দুয়ারী: ২০ জুলাই ২০১৯। সারা পৃথিবীর মানুষ উদযাপন করবেন ৫০ বছর আগের সেই অবিস্মরণীয় মুহূর্তটিকে। ১৯৬৯ সালে মানুষ প্রথম পা রেখেছিল চাঁদে। মানব সভ্যতার ইতিহাসে অদম্য এক প্রয়াস, মহাশূন্যকে জয় করার এক প্রচেষ্টা এবং পৃথিবীর বাইরে অন্য এক জগৎকে নতুন করে আবিষ্কার করার সেই স্মৃতি এখনও যেন এক অবিশ্বাস্য কল্পনার জগৎকে উজ্জীবিত করে মানব মনে।   বিশদ

14th  July, 2019
চন্দ্রাভিযানে বিরাট ভূমিকা রয়েছে বিক্রম, প্রজ্ঞানের 

‘চন্দ্রযান-২’ নিয়ে দ্বিতীয়বার চাঁদে পাড়ি দিচ্ছে ভারত। আধুনিক প্রযুক্তির নিরিখে চন্দ্রযান-২ নিয়ে চরম আশাবাদী ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো। পৃথিবীর মাটি থেকে পৃথক পৃথক কাজের জন্য একাধিক পে-লোড বা যন্ত্র নিয়ে মহাকাশে পাড়ি দেবে চন্দ্রযান-২।  বিশদ

14th  July, 2019
আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স
দেবজ্যোতি রায়

 আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স কী: প্রোগ্রামিংয়ের মাধ্যমে মেশিনকে বুদ্ধিমান করে তোলাই হল আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা কৃত্রিম মেধা। এটি হল এক ধরনের সফটওয়্যার টেকনোলজি, যা রোবট বা কম্পিউটারকে মানুষের মতো কাজ করায় এবং ভাবায়। যেমন, কারও কথা বুঝতে পারা, সিদ্ধান্ত নেওয়া, দেখে চিনতে পারা ইত্যাদি ইত্যাদি।
বিশদ

30th  June, 2019
 বেলুন দিয়ে বিজ্ঞান শিক্ষা

 একটি ফোলানো বেলুনকে এঁফোর-ওঁফোর করে চলে গেল ফিতে লাগানো একটা লম্বা সূঁচ। কিন্তু বেলুনটি ফেটে বা চুপসে গেল না। কিংবা বেলুন দিয়ে একটা গ্লাস বা দুটি কাপকে অনায়াসে উপরে তোলা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, পাশাপাশি দুটি বেলুন ফুলিয়ে রাখা হয়েছে। একটি বাতাসে ভাসছে, অন্যটি মাটিতে গড়াগড়ি দিচ্ছে।
বিশদ

30th  June, 2019
একনজরে
সংবাদদাতা, কালনা: কালনা থানার বাঘনাপাড়া এলাকায় শুক্রবার রাতে এক প্রৌঢ়ার অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। মৃতার নাম কল্পনা দুর্লভ(৫০)। বাড়ি স্থানীয় দেউলপাড়া এলাকায়। শনিবার কালনা হাসপাতালে মৃতদেহ ময়নাতদন্ত করা হয়। পুলিস একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে।  ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বৃহস্পতিবার রাতে ছাত্র বিক্ষোভের জেরে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতির মধ্যে উপাচার্য-সহ উপাচার্যের অনুপস্থিতিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে উদ্ধার করতে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার ক্যাম্পাসে যেতে ...

 অভিমন্যু মাহাত, সোদপুর, বিএনএ: ১৫০ বছরের পুরনো আস্ত জমিদার বাড়িকেই তুলে ধরছে সোদপুরের উদয়ন সংঘ। এবার তাদের থিম ‘খিড়কি থেকে সিংহদুয়ার’। থিম ড্রামা, থিম সং ...

 ওয়াশিংটন ও হিউস্টন, ২১ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): ‘হাউডি মোদি’ অনুষ্ঠান ঘিরে আমেরিকায় সাজ সাজ রব। মোদি-জ্বরের উন্মাদনায় অন্তিম মুহূর্তের জন্য প্রহর গুনছে ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিকরা। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বেফাঁস মন্তব্যে বন্ধুর সঙ্গে মনোমালিন্য। সম্পত্তি নিয়ে ভ্রাতৃবিরোধ। সৃষ্টিশীল কাজে আনন্দ। কর্মসূত্রে দূর ভ্রমণের সুযোগ।প্রতিকার— ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৫৩৯: পাঞ্জাবের শহর কর্তারপুরে প্রয়াত গুরু নানক
১৭৯১: ইংরেজ বিজ্ঞানী মাইকেল ফ্যারাডের জন্ম
১৮৮৮: ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক ম্যাগাজিন প্রথম প্রকাশিত
১৯১৫ - নদিয়া পৌরসভার নামকরণ বদল করে করা হয় নবদ্বীপ পৌরসভা
১৯৩৯: প্রথম এভারেস্ট জয়ী মহিলা জুনকো তাবেইয়ের জন্ম
১৯৬২ – নিউজিল্যাণ্ডের প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা ধারাভাষ্যকার মার্টিন ক্রোর জন্ম
১৯৬৫: শেষ হল ভারত-পাকি স্তান যুদ্ধ। রাষ্ট্রসংঘের আহ্বানে সাড়া দিয়ে দু’দেশ যুদ্ধ বিরতি ঘোষণা করল
১৯৭০: লেখক শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যু
১৯৭৬: ব্রাজিলের প্রাক্তন ফুটবলার রোনাল্ডোর জন্ম
১৯৮০: ইরান আক্রমণ করল ইরাক
১৯৯৫: নাগারকোভিল স্কুলে বোমা ফেলল শ্রীলঙ্কার বায়ুসেনা। মৃত্যু হয় ৩৪টি শিশুর। যাদের মধ্যে বেশিরভাগই তামিল
২০১১: ক্রিকেটার মনসুর আলি খান পতৌদির মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.১৯ টাকা ৭২.৭০ টাকা
পাউন্ড ৮৬.৪৪ টাকা ৯১.১২ টাকা
ইউরো ৭৬.২৬ টাকা ৮০.৩৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
21st  September, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮, ৩৩৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬, ৩৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৬, ৯১৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৬, ১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৬, ২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রবিবার, অষ্টমী ৩৫/৫৪ রাত্রি ৭/৫০। মৃগশিরা ১৫/৪৪ দিবা ১১/৪৬। সূ উ ৫/২৮/৪০, অ ৫/৩০/৩৮, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৬ গতে ৮/৪১ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/৭ মধ্যে। রাত্রি ৭/৫৫ গতে ৯/৩০ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ১/২৯ মধ্যে পুনঃ ২/১৭ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৯/৫৯ গতে ১/০ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৯ গতে ২/২৯ মধ্যে।
৪ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রবিবার, অষ্টমী ২৩/৭/৩২ দিবা ২/৪৩/৩১। মৃগশিরা ৬/৫২/৫৬ দিবা ৮/১৩/৪০, সূ উ ৫/২৮/৩০, অ ৫/৩২/৩০, অমৃতযোগ দিবা ৬/২০ গতে ৮/৪১ মধ্যে ও ১১/৪৭ গতে ২/৫৪ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪২ গতে ৯/২১ মধ্যে ও ১১/৪৯ গতে ১/২৭ মধ্যে ও ২/১৭ গতে ৫/২৯ মধ্যে, বারবেলা ১০/০/০ গতে ১১/৩০/৩০ মধ্যে, কালবেলা ১১/৩০/৩০ গতে ১/১/০ মধ্যে, কালরাত্রি ১/০/০ গতে ১১/৩০/৩০ মধ্যে।
 ২২ মহরম

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
এরআরসি আতঙ্ক, বসিরহাটে আত্মহত্যা এক ব্যক্তির  
ফের এনআরসি আতঙ্কের ছায়া। বসিরহাট এক নম্বর ব্লকের সোলাদানা গ্রামে ...বিশদ

12:29:00 PM

মোবাইলের টাওয়ার বসানোর নামে প্রতারণা, অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করল বিধাননগর সাইবার ক্রাইম পুলিস 

11:25:00 AM

রাজীব কুমার ঘনিষ্ঠ ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ সিবিআইয়ের, রয়েছেন ২ ব্যবসায়ীও 

11:00:00 AM

বিশাখাপত্তনামে স্ত্রী, কন্যাকে খুন করে আত্মঘাতী এক ব্যক্তি 

10:35:00 AM

তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত পাড়ুই 
তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল বীরভূমের পাড়ুই। গতকাল রাতে সাত্তোর ...বিশদ

10:32:00 AM

পরবর্তী বায়ুসেনা প্রধানের নামেই রাফালের নম্বর আরবি-০১
 

ফ্রান্সের দাসো অ্যাভিয়েশনের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবারই প্রথম রাফাল যুদ্ধবিমান ভারতকে ...বিশদ

10:31:04 AM